পুত্র স্টেডিয়াম এবার বিশ্বমানের আজিয়াটা অ্যারিনা

মালয়েশিয়ার পুত্র ইনডোর স্টেডিয়ামের উন্নয়ন ও আধুনিকায়নের জন্য পৃষ্ঠপোষকতা করবে এশিয়ার অন্যতম টেলিযোগাযোগ গ্রুপ আজিয়াটা গ্রুপ বারহাদ। এ লক্ষ্যে পারবাদানান স্টেডিয়ামের সাথে সম্প্রতি দশ বছর মেয়াদী একটি চুক্তি সই করেছে টেলিকম গ্রুপটি।

চলতি বছরের জুলাইয়ে উদ্বোধন হতে যাওয়া দেশটির জাতীয় ক্রিড়া কমপ্লেক্স ‘আজিয়াটা অ্যরিনা’ হবে কুয়ালামলামপুরের স্পোর্টস সিটি। ক্রিড়া, বিনোদন ও সংস্কৃতির এই কেন্দ্রস্থল হবে লস এঞ্জেলসের স্টেপলস সেন্টার, লন্ডনের ওটু অ্যারিনা ও শাংহাইয়ের মার্সিডিজ বেঞ্জ অ্যারিনা’র মতো আন্তর্জাতিক ভেন্যু।

জাতি গঠনে আজিয়াটার প্রতিশ্রুতির একটি প্রতিফলন এই আজিয়াটা অ্যারিনা। মালয়েশিয়াসহ আঞ্চলিক ক্রিড়া ও যুব উন্নয়নে অবদান রেখে চলেছে আজিয়াটা। সেলকম আজিয়াটা মালয়েশিয়া ওপেন, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দলের পৃষ্ঠপোষক হওয়া এবং ইন্দোনেশিয়া ও ক্যাম্বোডিয়ায় বেশ কয়েকটি ট্যালেন্ট ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম চালুর মত কার্যক্রমে যুক্ত আছে এই টেলিকম গ্রুপটি।

পারবাদানান স্টেডিয়ামের সাথে যৌথ উদ্যোগের ব্যাপারে আজিয়াটার প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড গ্রুপ চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার তান শ্রি জামালুদিন ইব্রাহিম বলেন, ‘এমন একটি সুযোগ দেয়ার জন্য যুব ও ক্রিড়া মন্ত্রণালয় এবং পারবাদানান স্টেডিয়াম মালয়েশিয়াকে ধন্যবাদ জানাই আমরা। আমাদের কোম্পানির নামে নাম হবে অ্যারিনাটির যা আমাদের জন্য অনেক বড় সম্মানের।’

নতুন নতুন সেবা ও উদ্ভাবনী প্রযুক্তির সহযোগে মালয়েশিয়ার প্রথম ডিজিটাল অ্যারিনা নির্মাণে এই পৃষ্ঠপোষকতা সহায়ক হবে বলে প্রত্যাশা আজিয়াটার। ইনডোর ও আউটডোরে সেলকমের নিরবিচ্ছিন্ন সংযোগের মাধ্যমে ডিজিটাল ফিচারগুলো নির্বিঘ্নে কাজ করবে। এতে নিজেদের ইন্টারঅ্যাক্টিভ অ্যাপ, ফেসাল রিকগনিশন টেকনোলজি, ডিজিটাল এলইডি স্কোরবোর্ড, পথনির্দেশক ও বিজ্ঞাপন বোর্ডসহ ইন্টারঅ্যাক্টিভ গেমস ও এন্টারনেইনমেন্ট থাকবে।

inner

আজিয়াটা অ্যারিনাতে থাকবে বিশ্বমানের এমন সব সুযোগ-সুবিধা ও আয়োজন যা অতিথিদের জন্য এক অনন্য অভিজ্ঞতা হয়ে থাকবে। এতে থাকবে দর্শকদের জন্য যথেস্ট বসার জায়গা, কর্পোরেট স্যুট, অত্যাধুনিক সাউন্ড সিস্টেম, পরিচ্ছন্ন লবি ও লকার রুম এবং ডিজিটাল ফিচার।

১৪ হাজার ৪২৫টি’র বেশি আসন এবং ৬৯ ঢ ২৫ মিটার মাঠ নিয়ে আজিয়াটা অ্যারিনা হবে মালয়েশিয়ার সবচেয়ে বড় ইনডোর স্টেডিয়াম। অনুষ্ঠানের ধরণ অনুযায়ী আসন বিন্যাস এবং মাঠের প্রকৃতি পরিবর্তিত হবে; যেমন: ব্যাডমিন্টন, জিমন্যাস্টিকস, মার্শাল আর্টস ইত্যাদি ইনডোর স্পোর্টস’র জন্য একরকম, আবার কনসার্ট, সম্মেলন ও প্রদর্শনীর জন্য হবে ভিন্ন ভিন্ন আয়োজন।

২৯তম সাউথ-ইস্ট এশিয়ান গেমস এবং ৯ম আসিয়ান প্যারা গেমসের মূল ভেন্যু হবে আজিয়াটা অ্যারিনা। ইতোমধ্যে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংগীত শিল্পীদের কনসার্ট আয়োজনের আলোচনা চলছে এই ভেন্যুটিতে।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.