পাঠাও সুপার অ্যাপে এলো পরিবর্তন

বাংলাদেশে রাইড শেয়ারিং সেবা চালু হয় প্রায় তিন বছর আগে, এর পরপরই দেশীয় কোম্পানিগুলো গ্রাহকসেবা বৃদ্ধিতে ওয়ান স্টপ ঘরাণার গ্রাহক-বান্ধব নতুন ও যুগান্তকারী সেবা নিয়ে হাজির হয়। এ জাতীয় সেবা প্রদানে পাঠাও দেশের প্রথম দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী কোম্পানি। পাঠাও নিরলসভাবে প্রতিনিয়ত তার অ্যাপের ডিজাইন ও ব্যবহার-উপযোগিতা বৃদ্ধিতে কাজ করছে, যা সম্প্রতি পাঠাও অ্যাপে নতুন সব সংযোজন ও প্রয়োজনীয় পরিবর্তনের মাধ্যমে আবারো প্রমাণিত হয়েছে। পাঠাও তার অ্যাপে তিনটি বড় ধরনের পরিবর্তন এনেছে।

পরিবর্তিত পাঠাও অ্যাপের বড় পরিবর্তনের অন্যতম হচ্ছে পিক-আপ পয়েন্ট। নতুন পাঠাও অ্যাপে রাইডারের বর্তমান অবস্থান ও পিক-আপ পয়েন্টের উপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। পুরাতন পাঠাও অ্যাপে কেবল পুরো যাত্রাপথের একটি স্থিরচিত্র প্রদর্শিত হতো, যেখানে নতুন অ্যাপে রাইডারের বর্তমান অবস্থান দেখানোর পাশাপাশি পিকআপ পয়েণ্টে পৌঁছানোর জন্য সম্ভাব্য সংক্ষিপ্ত পথের দিকনির্দেশনাও থাকবে। এর ফলে আরো  অল্প  সময়ে রাইডার ও গ্রাহক সেবা আদানপ্রদানে সমর্থ হবেন। এছাড়াও অবস্থান জানানোর জন্য সেফটি ফিয়েচার বাটন এবং জাতীয় জরুরী সেবা (৯৯৯) ব্যবহারকারীদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে অ্যাপের টপ-রাইট কর্নারে সংযোজিত হয়েছে।
রাইডার ও ব্যবহারকারীদের সুবিধার জন্য সমগ্র যাত্রাটিকে তিনটি ভিন্ন ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে। বিআরটিএ নির্দেশনা অনুসরণে অ্যাপের জরুরী সেবা সাজানো হয়েছে। ব্যবহারকারীরা এর মাধ্যমে উপকৃত হবেন বলে আশা করা যায়।

নতুন অ্যাপে গ্রাহকেরা মোটরযানের রেজিস্ট্রেশন নম্বরের পাশাপাশি রাইডারের নাম ও রেটিং মোটরযানের মডেল দেখতে পাবেন। কেবল রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে রিকোয়েস্ট পাঠানো মোটরযানকে চিহ্ণিত করা খুব সহজ নয়। অ্যাপের এই নতুন সেবার ফলে এই ঝক্কি আর থাকবে না, এমনকি রাস্তার মধ্যবর্তী স্থান থেকেও রিকোয়েস্ট পাঠানো রাইডারকে খুঁজে নিতে সক্ষম হবেন। যাত্রার পুরো সময়জুড়েই পাঠাও ব্যবহারকারীরা অ্যাপের বটমে রাইডারের বিষয়ে প্রয়োজনীয় সকল তথ্য পাবেন। এটি পুল কার্ড স্টাইলে ডিজাইন করা। পুল করলেই ব্যবহারকারীরা পুরো স্ক্রিন জুড়ে যাত্রাপথের ম্যাপ দেখতে পাবেন। ম্যাপে জুম ইন-আউট সুবিধা সংযোজিত হয়েছে। এর ফলে ব্যবহারকারীরা যাত্রার সময় চাইলে যেকোন মুহুর্তে প্রকৃত অবস্থান জানতে পারবেন।

পাঠাও গ্রাহক চাহিদার কথাকে গুরুত্ব দিয়ে ফাইভ স্টার/ পাঁচ তারকা পদ্ধতিকে নতুন ভাবে ফিডব্যাক সিস্টেমে সংযোজিত করেছে। ইমোটিকন আকারে ফাইভ স্টার/ পাঁচ তারকা প্রদর্শিত হচ্ছে নতুন অ্যাপে। কমেন্ট, “প্রফেশনাল, ক্লিন এ্যান্ড ক্লিয়ার  আদার ইত্যাদির মাধ্যমে ফিডব্যাক পদ্ধতিকে সমৃদ্ধ করা হয়েছে।
সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ব্যবহারকারী কর্তৃক কাস্টম ফিডব্যক প্রদান। এর মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা তাদের সমস্যা বা অভিযোগ আরও কার্যকরী ভাবে জানাতে পারবেন।

Please Share This Post.