নাসার আমন্ত্রণে বিজয়ী টিম নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন অপু ও সানি

যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা আয়োজিত স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জে বিজয়ী হয়েছে বাংলাদেশের টিম অলিক। ১৩৯৫টি দলকে হারিয়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার খেতাব অর্জন করে বাংলাদেশ দল। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি এই ফল ঘোষণা করা হয়।

নাসায় বাংলাদেশের এই বিশ্বজয়ের পর এবার ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮’ এর আয়োজক কমিটির পক্ষ থেকে বাংলাদেশের বিজয়ী দল ‘টিম অলিক’কে নাসার কেনেডি স্পেস সেন্টার ভ্রমণের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের খেতাব অর্জন করা শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দল ‘টিম অলিক’ এর জয়েন কনভেনার হিসেবে রয়েছেন প্রযুক্তিবিদ আরিফুল হাসান অপু ও দিদারুল আলম সানি। বিজয়ী দলের প্রোগ্রাম কনভেনার হিসেবে নাসা ভ্রমণে যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন তারা।

নাসা আর্থ সায়েন্স ডিভিশন এর ভারপ্রাপ্ত উপপরিচালক পলা বনতেমপি স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বুধবার  তাদেরকে এ সংক্রান্ত একটি আমন্ত্রণ পত্র প্রেরণ করা হয়। পত্রে আগামী ২১ থেকে ২৩ জুলাই নাসা আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের ফাউন্ডার আরিফুল হাসান অপু বলেন, এটা আমাদের দীর্ঘ ৫(পাঁচ) বছর লেগে থাকার ফল। সবাই দোয়া করবেন আমরা যেন দেশের জন্য আরও ভাল কিছু করতে পারি।

তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বাণিজ্য সংগঠন বেসিস এর পরিচালক দিদারুল আলম সানি  বলেন, ব্যাপারটা যখন নাসায় বাংলাদেশ এর বিশ্ব জয়, প্রোগ্রাম কনভেনার হিসেবে থাকাটা গর্বের| শাহজালাল ইউনিভার্সিটির বিশ্বের সবচে বড় হ্যাকাথন – নাসা স্পেস অ্যাপস বিজয়ী দলকে নিয়ে এবার নাসা ভ্রমণ এর পালা| ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের প্রচেষ্টায় গ্লোবাল আইসিটি ব্র্যান্ড ইনডেস্ক এ এই অর্জন এক বিশাল ভুমিকা রাখবে|

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) পক্ষ থেকে অংশ নেওয়া দলটির সদস্যরা হলেন, সাব্বির হাসান, আবু সাবিক মাহদি, বিশ্বপ্রিয় চক্রবর্তী, কাজী মাইনুল ইসলাম ও এস. এম. রাফি আদনান।

১৮ জুন টিম অলিকের মেন্টর ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বিশ্বপ্রিয় চক্রবর্তী  বলেন, গত ২৯ মে ও ১২ জুন নাসা কর্তৃপক্ষ দুটি পৃথক মেইলের মাধ্যমে শাবিপ্রবির টিম অলিককে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। অলিককের চার সদস্য আগামী ২০ জুলাইয়ের মধ্যে নাসায় উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। তারা ২১, ২২ ও ২৩ জুলাই নাসার বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নেবেন।

নাসার তথ্য ব্যবহার করে ‘লুনার ভিআর’ তৈরি করে বেস্ট ডেটা ইউটিলাইজেশন বিভাগে বিশ্বে প্রথম স্থান অধিকার করে শাবিপ্রবির টিম অলিক।

প্রসঙ্গত, যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা আয়োজিত স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জে বেস্ট ইউজ অব ডেটা ক্যাটেগরিতে বাংলাদেশের টিম অলিক এর প্রজেক্ট ‘লুনার ভিআর’ সারা বিশ্বের ১৩৯৫টি দলের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে বিজয়ী হয়। ‘লুনার ভিআর’ প্রজেক্টটি মূলত একটি ভার্চুয়াল রিয়েলিটি অ্যাপ্লিকেশন যার মাধ্যমে ব্যবহারকারী চাঁদে ভ্রমণের অভিজ্ঞতা পাবেন।

নাসার সরবরাহ করা বিভিন্ন রিসোর্স থেকে থ্রিডি মডেল ও তথ্য সংগ্রহ করে, নাসা অ্যাপোলো ১১ মিশনের ল্যান্ডিং এরিয়া ভ্রমণ, চাঁদ থেকে সূর্যগ্রহণ দেখা এবং চাঁদকে একটি স্যাটেলাইটের মাধ্যমে আবর্তন করা এই তিনটি ভিন্ন পরিবেশকে ভার্চুয়ালভাবে তৈরি করেছে টিম অলিক।

 

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/২২জুন/১৯

Please Share This Post.