নারীদের চোখ হুয়াওয়ের নোভা থ্রিআই’য়ে

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা-২০১৯। মেলার প্রথম দিন থেকে দর্শক-ক্রেতাদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। বিশেষ করে মেয়েদের স্মার্টফোন কেনার প্রতি আগ্রহ ছিল চোখে পড়ার মতো। মেলা প্রাঙ্গণে প্রবেশ করতে পুরুষের পাশাপাশি মেয়েদের উপস্থিত ছিলো লক্ষণীয়। স্মার্টফোন ক্রেতাদের মধ্যে মেয়েদের সংখ্যা যে বাড়ছে এ উপস্থিতি এমনটাই জানান দিচ্ছে।

সর্বশেষ প্রযুক্তির পণ্য থেকেই যাচাই-বাছাই করে নারী ক্রেতারা কিনতে পারছেন তাদের পছন্দের প্রযুক্তি পণ্যটি। নারীরা মূলত উন্নত ক্যামেরা এবং হাই রেজ্যুলেশনের ডিসপ্লের প্রতি অনেক বেশি আগ্রহ দেখাচ্ছেন। আর এই দিক থেকে অনেক এগিয়ে আছে চীনের বিখ্যাত প্রযুক্তি পণ্য এবং স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। তাদের মধ্যম বাজেটের নোভা থ্রিআই এর আইরিশ পারপল কালারের স্মার্টপেনাটি মেয়েদের নজর কেড়েছে।

হুয়াওয়ে প্যাভিলিয়ানে সদ্য বিবাহিত তামান্না রহমান এসেছেন স্মার্টফোন কিনতে। তিনি জানান, যে ফোনে সবচেয়ে ভালো সেলফি তোলা যায় সেটাই আমার পছন্দ। মেলায় অনেক ঘুরে হুয়াওয়ের নোভা থ্রিআই মডেলটি আমার পছন্দ হয়েছে। কারণ এর ফ্রন্টে দুটি ২৪ ও ২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা রয়েছে যা দিয়ে দারুণ সব সেলফি তোলা যায়। রয়েছে আকর্ষণ ডিজাইন ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি। এখন আমরা আমাদের প্রিয় মুহূর্তগুলো একসাথে ধরে রাখতে পারবো এর ক্যামেরার মাধ্যমে।।

আবার অনেকে নারীই পরিবার নিয়ে এসেছেন স্মার্টফোন মেলায়। মেলায় ঘুরে ঘুরে তারা বিভিন্ন স্টলে তাদের পছন্দের মোবাইল ফোনটি খুঁজে নিচ্ছেন। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী জাহানারা জেনি বলেন, বর্তমান যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে গেলে ক্যামেরার দিকে তাকিয়েই স্মার্টফোন কেনা উচিত বলে আমি মনে করি। কারণ, সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু আপলোড করলে সেখানে রেজ্যুলেশনেরও একটা বিষয় থাকে।

মেলার প্লাটিনাম স্পন্সর হিসেবে রয়েছে হুয়াওয়ে। মেলার সব আপডেট ও খবর স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপোর অফিসিয়াল ফেইসবুক পেইজ । মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। মেলায় প্রবেশ ফি ২০ টাকা। তবে প্রতিবন্ধী এবং শিক্ষার্থীরা আইডি কার্ড দেখিয়ে বিনামূল্যে প্রবেশ করতে পারবেন।

সিনিউজভয়েস/