দেশের বাজারে হুয়াওয়ের ‘কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা’ ফোন

বাংলাদেশের বাজারে আনুষ্ঠানিক উন্মোচন হয়েছে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে অভিনব ও ক্ষমতাসম্পন্ন ডিভাইস মেট টেন প্রো। গতকাল মঙ্গলবার এই ফোন দেশের বাজারে ছাড়া হয়।

গত অক্টোবর মাসে জার্মানীতে আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মোচন করা হয় মেট টেন প্রো স্মার্টফোনটি।

অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমচালিত স্মার্টফোন বিষয়ক জনপ্রিয় গবেষণাকারী ওয়েবসাইট অ্যান্ড্রয়েড অথোরিটির বিচারে ২০১৭ সালের সেরা স্মার্টফোন হুয়াওয়ে মেট টেন প্রো। সম্প্রতি নিজেদের ওয়েবসাইটে এমন ঘোষণা দিয়েছে অ্যান্ড্রয়েড অথোরিটি।

হুয়াওয়ে মেট টেন প্রো-এর আনুষ্ঠানিক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেডের ডিভাইস বিজনেসের কান্ট্রি ডিরেক্টর অ্যারন।

এছাড়া উন্মোচন প্রসঙ্গে হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেডের ডিভাইস বিজনেসের ডেপুটি কান্ট্রি ডিরেক্টর জিয়াউদ্দিন চৌধুরী বলেন, “প্রযুক্তিপ্রেমী বিশ্বে বসবাস করছি আমরা। প্রতিনিয়ত আমরা অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সন্ধানে থাকি, যাতে করে আমাদের দৈনন্দিন জীবন আরো সহজ করে নেয়া যায়। এসব দিকগুলো মাথায় রেখে আমরা প্রযুক্তিপ্রেমীদের জন্য বিশেষ করে স্মার্টফোনপ্রেমীদের জন্য আগামির প্রযুক্তি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে নিয়ে এসেছি হাতের মুঠোয়। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এখন আর ভার্চুয়াল কোনো ধারণা নয়, বরং আমাদের দৈনন্দিন জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে আংশিক ব্যবহার্য প্রযুক্তি। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহারকারীকে অভিনব অভিজ্ঞতা ও গুরুত্বপূর্ণ সেবাপ্রদান এবং পণ্যের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে সক্ষম একটি প্রযুক্তি। হুয়াওয়ে মেট টেন প্রো-তে ব্যবহার করা হয়েছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসমৃদ্ধ নিউরাল নেটওয়ার্ক প্রসেসিং ইউনিট, যা নতুন প্রজন্মের বুদ্ধিমান স্মার্টফোন। বহিরবিশ্বের মতো বাংলাদেশের ক্রেতারা ফোনটিকে ভালোবাসবে বলে আমি বিশ্বাস করি। ”

কিরিন ৯৭০ চিপসেট, যা বিশ্বের প্রথম কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসমৃদ্ধ প্রসেসর, যেটিতে ব্যবহার করা হয়েছে নিউরাল নেটওয়ার্ক প্রসেসিং ইউনিট (এনপিইউ), অক্টা-কোর এআরএম কোর্টেক্স সিপিইউ, প্রথমবারের মতো ১২ কোরের মালি-জি১২ জিপিইউ এবং এনপিইউ প্রযুক্তি যুক্ত করা হয়েছে হুয়াওয়ে মেট টেন প্রো-তে থ্রিডি গ্লাস বডি যেখানে ব্যাজেল নেই বললেই চলে।

হুয়াওয়ে মেট টেন প্রো-তে ৬ ইি ফুলভিউ ডিসপ্লে এবং এইচআরডি১০ সমর্থিত প্রযুক্তি যা অনায়াসে ভিভিড ও উজ্জ্বল কালার প্রদানে সক্ষম। হুয়াওয়ে মেট টেন প্রো-তে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাভিত্তিক ৪০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারির সঙ্গে আছে টিইউভি ফাস্ট চার্জ সেফটি সার্টিফিকেট এবং সুপার চার্জিং প্রযুক্তি।

সামিলাক্স-এইচ লেন্সের সমন্বয়ে এতে আছে নতুন লাইকা ডুয়েল ব্যাক ক্যামেরা (১২ মেগাপিক্সেল আরজিবি+ ২০ মেগাপিক্সেল মনোক্রম); ক্যামেরার অ্যাপার্চার এফ/১.৬, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তির রিয়েল টাইম সিন, অবজেক্ট সনাক্তকরণ এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তির বিশেষ বোকেহ ইফেক্ট প্রযুক্তি রয়েছে ক্যামেরায় অত্যাধুনিক ইএমইউআই ৮.০ ইউজার ইন্টারফেস ব্যবহার করা হয়েছে।

অ্যান্ড্রয়েড ৮.০ অপারেটিং সিস্টেমের উপর ভিত্তি করে হুয়াওয়ে মেট টেন প্রো আইপি৬৭ সনদপ্রাপ্ত পানি ও ধূলাবালি রোধক হুয়াওয়ে মেট টেন প্রো-তে রয়েছে ১২৮ জিবি রম বা ইন্টারনাল মেমোরি এবং ৬ জিবি র‌্যাম যা ব্যবহারকারীকে দেবে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের অভিজ্ঞতা।

আগামী জানুয়ারি ০৪, ২০১৮ পর্যন্ত মাত্র ৮,০৯০ টাকা পরিশোধ করে অগ্রিম বুকিং দিতে পারবেন আগ্রহী ক্রেতারা। অগ্রিম বুকিং দেয়া ক্রেতারা পাবেন আকর্ষণীয় গিফট বক্স।

উল্লেখ্য, আগামি ০৪ জানুয়ারি, ২০১৭ থেকে সারাদেশে হুয়াওয়ের সকল ব্র্যান্ড শপগুলো থেকে হুয়াওয়ে মেট টেন প্রো পাওয়া যাবে মাত্র ৮০,৯০০ টাকায়।

সিনিউজভয়েস//ডেস্ক/

Please Share This Post.