দেশের প্রথম আইক্যান সদস্য ইনোভেডিয়াস

বঙ্গবন্ধু-১ স্যটেলাইট উৎক্ষেপণের রেশ কাটতে না কাটতে বাংলাদেশের নাম আরেকটি এলিট ক্লাবের তালিকায়।

২০১৩ রেজিস্ট্রার অ্যাক্রেডিটেশন এগ্রিমেন্ট (আরএএ) স্বাক্ষরের মধ্যে দিয়ে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের নাম ‘দ্য ইন্টারনেট করপোরেশন অব অ্যাসাইনড নেমস অ্যান্ড নাম্বারস (আইসিএএনএন বা আইক্যান)’-এর এলিট ক্লাবে যুক্ত হলো দেশি আইটি কোম্পানি ইনোভেডিয়াস প্রাইভেট লিমিটেডের মাধ্যমে। প্রথম কোনো দেশি কোম্পানি হিসেবে প্রতিষ্ঠানটি অ্যাক্রেডিটেড রেজিস্ট্রার স্বীকৃতি পেলো। এখন থেকে দেশের ক্রেতারা সরাসরি এই কোম্পানি থেকেই ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন এবং বাংলা টাকাতে পরিশোধ করতে পারবেন।

বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহার শুরুর পর থেকে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে হচ্ছে বিদেশি কোম্পানির মাধ্যমে। লাখ লাখ ডোমেইন ব্যবহারকারী এত বছর দেশীয় কোম্পানির মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে না পেরে ইন্টারন্যাশনাল ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে পরিশোধ করেন। কিন্তু এখন থেকে সরাসরি টাকাতেই পরিশোধ করা যাবে। দেশের ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে একই সঙ্গে দেশের টাকা দেশেই রাখা সম্ভব হবে।

ডিজিটাল বাংলাদেশের উন্নয়নের সময়ে এখন প্রতিদিন ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের সংখ্যা বাড়ছে, যা আগামী ২০২১ সালে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছাবে। এই সময়ে দেশি একটি কোম্পানি এই রেজিস্ট্রার অ্যাক্রেডিটেশনভুক্ত হওয়াটা দেশের সুখবর। এখন থেকে যে কোনো ব্যবহারকারী www.rezistro.com এ গিয়ে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে।

প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মেহেদী হাসান জানান, রেজিস্ট্রার প্রক্রিয়াটি শেষ করার রাস্তা সহজ ছিল না। এক বছরেরও বেশি সময় ধরে হাজার রকম প্রশ্নের উত্তর, টেকনিক্যাল টিমের ইন্টারভিউ, নানা রকম কন্ট্রাক্ট সাইন ও পরিচালনার পারদর্শিতার পরীক্ষা দেয়ার পর কোম্পানির সামগ্রীক আর্থিক অবস্থান পরিষ্কার করতে হয়েছে। এছাড়া পূর্বের অভিজ্ঞতা, ২৪ ঘন্টা কাস্টমার সার্ভিস দেয়ার পরিকল্পনাসহ বিবিধ বিষয়কে নিশ্চিত করতে হয়েছে।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে মো. মেহেদী হাসান বলেন, আমরা দ্রুত প্যানেলসহ যাবতীয় টেকনিক্যাল ও মার্কেটিং প্ল্যানের শেষ করবো। জুনের শুরুতেই আমরা বাংলাদেশি রিসেলার ব্যবসায়ীদের নিয়ে বসবো এবং একে একে রিসেলার প্রদান করব। তখন সাধারণ ব্যবহারকারীদেরও আমরা উৎসাহিত করব আমাদের রিসেলারদের থেকে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের। এছাড়া রিসেলাররা এখন সহজেই ব্যাংকিং কিংবা বিভিন্ন দেশীয় পেমেন্ট গেটওয়ের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন। আমরা ক্যাশ ও ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা দেয়ার ব্যবস্থাও উন্মুক্ত রাখব।

এ প্রসঙ্গে তিনি আরো জানান, বাংলাদেশি ব্যবহারকারীদের জন্যে প্রতিষ্ঠানটি প্রথমে ৮০টিরও বেশি জিটিএলডি নিয়ে শুরু করবে এবং পর্যায়ক্রমে ৮০০ জিটিএলডি অন্তর্ভুক্ত করবে যেন কোনো বাংলাদেশি ব্যবহারকারীকে বিদেশী প্রতিষ্ঠানের শরণাপন্ন হতে না হয়। আইক্যান এলিট লিস্টে ইনভেডিয়াস প্রাইভেট লিমিটেড কিংবা বাংলাদেশের নাম দেখা যাবে এই লিংকে: www.icann.org/registrar-reports/accreditation-qualified-list.html

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক