দেশের অর্থনীতিকে আরো এগিয়ে নিতে ই-কমার্সে তরুণ উদ্যোক্তা প্রয়োজন

সম্ভাবনাময় ই-কমার্স খাতের উদ্যোক্তা তৈরি এবং ক্যারিয়ার গড়ার সম্ভাবনার নানান দিক নিয়ে ই ক্যাব ইয়ুথ ফোরামের উদ্যোগে রাজধানীতে অনুষ্ঠিত হলো দিনব্যাপী ই কমার্স সামিট।
গত শুক্রবার (৫ জুলাই) রাজধানীর বনানীস্থ ইনোটেল বিজনেস হোটেলে অনুষ্ঠিত ‘ই-কমার্স সামিট অন ক্যারিয়ার অ্যান্ড এন্টারপ্রেনারশিপ পাওয়ার্ড বাই ইভ্যালি’ শীর্ষক সম্মেলন শুরু হয় ফিউচার অব ই-কমার্সের ওপর প্যানেল আলোচনার মধ্য দিয়ে। একে একে অনুষ্ঠিত হয় উদ্যোক্তাদের আলোচনা এবং কর্মশালাসহ পাঁচটি বিষয় ভিত্তিক সেশন।
এসব সেশনে পরিকল্পনা নিয়ে গৃহীত উদ্যোগের সঙ্গে লেগে থেকে এগিয়ে যেতে নতুন উদ্যোক্তাদের পরামর্শ দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রায় ১৮ জন আলোচক এবং দেড়শ এর অধিক অংশগ্রহণকারী এবং অনলাইনে প্রায় ২৫ হাজার শ্রোতা ফেসবুক লাইভে অংশগ্রহণ করেন ই-ক্যাব ইয়ুথ সামিটে অংশগ্রহণ করেন।
আয়োজন এর প্রথম সেশনে দেশীয় ই কমার্স উদ্যোক্তাদের ভবিষ্যত নিয়ে ই-ক্যাব ইয়ুথ ফোরামের সভাপতি আসিফ আহনাফ এর সঞ্চালনায় আলোচনায় অংশ নেন চালডাল.কম সিওও জিয়া আশরাফ, বাগডুম.কম সিইও মিরাজুল হক, ইভালি প্রতিষ্ঠাতা সিইও মোহাম্মদ রাসেল, দিনরাত্রি.কম প্রতিষ্ঠাতা সিইও সাহাব উদ্দিন শিপন।
দ্বিতীয় সেশনে ‘বিজনেস প্ল্যান এবং ফাইনান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট’এর উপর একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রেজওয়ানুল হক জামি, হেড অব ই-কমার্স, এটুআই এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট ই ক্যাব।
মধ্যাহ্ন বিরতির পর বাংলাদেশের ই-কমার্সে ফেসবুকের জনপ্রিয়তাকে বিবেচনায় নারী উদ্যোক্তাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় ‘এফ কমার্স দ্য হিডেন মার্কেট’ সেশন। এই সেশনে তিনজন নারী তাদের উদ্যোক্তা হওয়ার গল্প উপস্থাপন করেন। এই সেশনে উপস্থিত ছিলেন পপ অফ কালার এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর টিংকার জান্নাত মিম, টিআরএস ক্লোজেট এর উদ্যোক্তা ফারহা মাহমুদ তৃণা এবং উইমেন এন্টারপ্রেনার্স এর প্রতিষ্ঠাতা শারমিন আক্তার।
ই-কমার্সে চাকুরীর অমিত সম্ভাবনা নিয়ে প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন দেশ সেরা ই-কমার্স কোম্পানির মানব সম্পদ বিভাগের প্রধান ব্যক্তিরা। এই সেশনে পিকাবু এর সিইও মরিন তালুকদার, বিদ্যুৎ লিমিটেডের হেড অফ বিজনেস মোঃ সাজ্জাদুল ইসলাম এবং সহজ লিমিটেডের মানবসম্পদ বিভাগের প্রধান আফলাতুন কায়সার উপস্থিত তরুণদের ক্যারিয়ার বিষয়ক নানা পরামর্শ প্রদান করেন। উঠে আসে ই কমার্স এ ক্যারিয়ার দ্রুত এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার নানা দিক নির্দেশনা।
সম্মেলনের সর্বশেষ সেশনে ইক্যাব সভাপতি শমী কায়সারের সভাপতিত্বে ‘ডাইভারসিফাইড ই কমার্স মার্কেট’ এর উপর পলিসি ডায়ালগ অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতির বক্তব্যে শমী কায়সার ই কমার্স এর ডাইভারসিফিকেশন অর্থাৎ অন্যান্য ফিজিক্যাল বিজনেস গুলো কিভাবে ই-কমার্স এর মাধ্যমে আরও সম্প্রসারিত হতে পারে তা নিয়ে আলোচনা করেন এবং ই-কমার্সকে গ্রামীণ পর্যায়ে পৌঁছে দিতে ই ক্যাব এর নেওয়া নানা পদক্ষেপ গুলো সম্পর্কে সবাইকে অভিহিত করেন। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন প্রীয়সপ এর সিইও আশিকুল আলম খান এবং ইনোভেডিয়াস প্রাইভেট লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোহাম্মদ মেহেদী হাসান।
ই-ক্যাব ইয়ুথ সামিটের দিনব্যাপী এই আয়োজনে বিভিন্ন সেশনে উপস্থিত ছিলেন দারাজ, ই ভ্যালি, বাগডুম, প্রিয়শপ, চালডাল, আপনজোন, দিনরাত্রি, এক শপ, সহজ, এসএসএল ওয়ারলেস, বিদ্যুৎ, রেজিস্ট্র সহ বিভিন্ন ই কমার্স কোম্পানির শীর্ষ কর্মকর্তারা।
অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয় অংশগ্রহণকারীদের মাঝে সার্টিফিকেট প্রদান করে।
-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/এস/০৭জুলাই /২০১৯
Please Share This Post.