দিনাজপুরে অনলাইন স্কুলের যাত্রা শুরু

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান আজ আনুষ্ঠানিকভাবে দিনাজপুর অনলাইন স্কুল উদ্বোধন করেন।

অনলাইন স্কুলে শিক্ষকগণ দূরবর্তী স্থান থেকে ভিডিও কনফারেন্স প্রযুক্তির মাধ্যমে এবং মূল ক্লাসে অবস্থানকারী মডারেটরদের সহায়তায় শিক্ষা প্রদান করেন। গ্রামীণফোন এবং জাগো ফাউন্ডেশন সারাদেশে ১০টি অনলাইন স্কুল পরিচালনা করছে, যেখানে ইন্টারনেট সংযোগ প্রদান করছে অগ্নি সিস্টেমস লিমিটেড।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন গ্রামীণফোনের হেড অফ এক্সর্টানাল কমিউনিকেশনস সৈয়দ তালাত কামাল, বগুড়া অঞ্চল প্রধান পার্থ প্রতিম ভট্টাচার্য এবং জাগো ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা করভী রাকশান্দ।

এই উপলক্ষে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তালাত কামাল বলেন,  গ্রামীণফোন তার ইন্টারনেট ফর অল লক্ষ্যের অধীনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশের শিক্ষা খাতের উন্নয়ন করতে সচেষ্ট। বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে মান সম্পন্ন শিক্ষার প্রসারে ইন্টারনেটের সম্ভাবনা অনলাইন স্কুলের মাধ্যমে মূর্ত হয়ে উঠেছে।

করভী রাকশান্দ বলেন, শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড। জাগো ফাউন্ডেশন সবার জন্য মান সম্পন্ন শিক্ষা পৌছে দেয়ার লক্ষ্য স্থির করেছে। বাংলাদেশের বাস্তবতায় মানুষের দোরগোড়ায় মানসম্পন্ন শিক্ষা পৌছে দিতে প্রযুক্তির কোন বিকল্প নেই। অনলাইন স্কুল বাংলাদেশের পল্লী অঞ্চলে মানসম্পন্ন শিক্ষা পৌছে দেয়ার একটি পথ সৃষ্টি করেছে।” তার বিশ্বাস সবাই একত্রে কাজ করলে দারিদ্রের দুষ্টচক্র ভেঙ্গে দেশের পূণঃগঠন সম্ভব হবে।

প্রথম অনলাইন স্কুল গাজীপুরে ২০১১ এর আগস্টে ৮০ জন শিক্ষার্থী নিয়ে চালু হয়। বর্তমানে গাজীপুর, গাইবান্ধা, রাজশাহী,মাদারীপুর, বান্দারবান, টেকনাফ, রংপুর, দিনাজপুর, হবিগঞ্জ এবং লক্ষীপুরে অবস্থিত ১০টি স্কুলে ৬৯৩ জন শিক্ষার্থী শিক্ষা গ্রহণ করছে। এই স্কুলে জাতীয় কারিকুলামের ইংরেজি ভার্সন অনুসরণ করা হয়।

গ্রামীণফোন এবং জাগো ফাউন্ডেশন অনলাইন স্কুলকে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে বাংলাদেশে মানসম্পন্ন শিক্ষা প্রদানের একটি মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছে।

Please Share This Post.