দক্ষ জনবল তৈরিতে অ্যাকাডেমি এবং ইন্ড্রাস্ট্রির একযোগে কাজ করতে হবে

গতকাল শনিবার ১১ নভেম্বর, ২০১৭ ‘নেক্সট জেনারেশন এডুকেশন অ্যান্ড সিকিউরিটি’ শিরোনামে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশ আইসিটি জার্নালিস্ট ফোরামের (বিআইজেএফ) সভাকক্ষে।

ডিজিটাল বিনির্মাণ এবং তথ্যপ্রযুক্তির সার্বিক সুফল নিশ্চিত করতে সাইবার নিরাপত্তা এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। এ পরিস্থিতি সামাল দিতে প্রয়োজন সুদক্ষ আইসিটি জনবল। আর দক্ষ জনবল তৈরির মূলমন্ত্র হচ্ছে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় সাইবার নিরাপত্তার বিষয়টি অন্তর্ভূক্ত করা। এ জন্য অ্যাকাডেমি এবং ইন্ড্রাস্ট্রির একযোগে কাজ করার কোনো বিকল্প নেই। তথ্য এখন সবচেয়ে বড় সম্পদ। সরকারি ও বেসরকারি খাতে আর্থিক এবং ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষা নিশ্চিতে ব্যর্থ হলে বড় ধরণের আর্থিক ক্ষতির মুখোমুখি হতে হয়। বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশই এ নিরাপত্তাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে আসছে। বাংলাদেশের সামনেও এ কঠিন পরিস্থিতি দৃশ্যমান।

এ বিষয়ে করণিক নির্ধারণে সিটিও ফোরাম বাংলাদেশের উদ্যোগে ‘নেক্সট জেনারেশন এডুকেশন অ্যান্ড সিকিউরিটি’ শিরোনামে আলোচনা সভার প্রধান অতিথি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের (আইসিটিডি) অতিরিক্ত সচিব জনাব মো. হারুনুর রশিদ।

সভায় মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন ডেফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের হেড অব ডিপার্টমেন্ট ড. তৌহিদ ভূঁইয়া এবং সিটিও ফোরাম বাংলাদেশের সভাপতি জনাব তপন কান্তি সরকার। স্বাগত বক্তব্যে রাখেন বাংলাদেশ আইসিটি জার্নালিস্ট ফোরামের (বিআইজেএফ) সভাপতি জনাব আরাফাত সিদ্দিকী।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে সাইবার সিকিউরিটি। এ জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে শিক্ষা ব্যবস্থার মধ্যে দিয়েই। এখন থেকে সার্বিক প্রস্তুতি না নিলে বড় ধরণের সাইবার হামলার মুখোমুখি হতে হবে। যা ডিজিটাল বাংলাদেশের বিনির্মাণের জন্য মোটেও সুখকর নয়।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিটিও ফোরাম বাংলাদেশের সহ-সভাপতি দেবদুলাল রায়, মহাসচিব ড. এজাজুল হক, এবং এডিএন এডুসার্ভিসেস লিমিটেড এর হেড অব বিজুনেস নুরুল আলম সোহেলসহ আরো অনেকে।

এডিএন এডুসার্ভিসেস লিমিটেড এই আয়োজনটি অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশ আইসিটি জার্নালিস্ট ফোরাম (বিআইজেএফ) সভাকক্ষে। অনুষ্ঠানে সিটিও ফোরাম বিআইজেএফ এর নতুন ইসিকে ক্রেস্ট দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

-সিনিউজভয়েস ডেক্স

Please Share This Post.