‘ঢাকা জেলা ডিজিটাল ইনোভেশন ফেয়ার ২০১৬’

বুধবার  দুদিন ব্যাপি ঢাকা জেলা  ডিজিটাল ইনোভেশন ফেয়ার ২০১৬ এর সমাপণী ঘোষণা করা হয়।  সমাপণী অনুষ্ঠানে ঢাকা জেলার জেলা প্রশাসক মোঃ তোফাজ্জল হোসেন মিয়া  বিভিন্ন ক্যাটেগরিতে আইসিটিতে  জেলার  শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান ও ব্যাক্তিবর্গকে পুরষ্কার প্রদান করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি)  আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন,  এবং আজিমপুর  গার্লস স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নাসিমা বানু।
আইসিটি ও উদ্ভাবণী সেবার জন্য ঢাকা জেলার  শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে পুরষ্কার গ্রহণ করেন কেরাণীগঞ্জ এর  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, আবুল বাশার মোঃ ফখরুজ্জামান । শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে পুরষ্কার লাভ করে  সামছুল হক খান স্কুল এন্ড কলেজ, মাতুয়াইল, ঢাকা, চুনকুটিয়া বালিকা উচচ বিদ্যালয়, কেরাণীগঞ্জ, ঢাকা এবং বিয়াম ল্যাবরেটরি স্কুল, নবাবগঞ্জ, ঢাকা।শ্রেষ্ঠ ডিজিটাল সেন্টার হিসেব মনোনীত হয় কোন্ডা ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার, কেরাণীগঞ্জ, ঢাকাএবং ধামরাই পৌর ডিজিটাল সেন্টার, ধামারাই। শ্রেষ্ঠ জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তার পুরষ্কার লাভ করেন শফিকুজ্জামান ভুইয়া, সহকারী পরিচালক, বি আর টি এবং জনাব মোঃ আরাফাত হোসেন সরকার, সহকারী পরিচালক, বিএসটিআই, ঢাকা। শ্রেষ্ঠ ই-সেবা প্রদানকারী দপ্তর এর খ্যাতি অর্জন করে মোঃ জুবায়ের , সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয়, সাভার, ঢাকা।  মেলার শ্রেষ্ঠ স্টল হিসেবে মনোনীত হয় ঢাকা জেলা পুলিশের দৃষ্টিনন্দন স্টলটি। সিভিল সার্জনের কার্যালয়ের ওয়েবপোর্টালটি  জেলার সেরা হিসেবে নির্বাচিত হয়।
ঢাকা জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ( আইসিটি ) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদ এলাহী জানান, দেশের সেরা প্রায় ৩০ টি  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মেধাবী উদ্ভাবক ও তরুণ বিজ্ঞানীদের আবিষ্কৃত বিভিন্ন উদ্ভাবণী প্রযুক্তির প্রদর্শনে মেলায় শ্রেষ্ঠ তরূণ উদ্ভাবক হিসেবে মনোনীত হয়  নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের  টিম হোপ। ফাতিন হাসনাথ চৌধুরী , হাসিবুল হক ও মুক্তাদির বায়েজিদ শুভর উদ্ভাবিত এন্ড্রয়েড নিয়ন্ত্রিত  স্মার্ট হুইল চেয়ার এর জন্য সেরা তরূন বিজ্ঞাণীর পুরষ্কার গ্রহণ করেন। শ্রেষ্ঠ তরূণ উদ্ভাবক প্রতিযোগীতার প্রথম রানার আপ হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিম কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের প্রকল্প ‘দৃষ্টি’ । অত্যন্ত কার্যকর সিকিউরিটি সিস্টেম আবিষ্কারের জন্য  পুরষ্কার গ্রহণ করে সাদ-এ-আকাশ এর দলটি। প্রতি্যোগীতায় দ্বীতিয় রানার আপ হবার গৌরব অর্জন করে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের সৌভিক কুন্ডুর দল এইজিস। 
নগরীর সেরা স্কুল ও কলেজগুলোর অংশগ্রহণে ডিজিটাল ও আইসিটি বিষয়ক বিতর্ক প্রতি্যোগীতায়  চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে গভঃ ল্যাবরেটরি হাই স্কুল।  ধানমন্ডি গভঃ বয়েজ স্কুলের ফখরুল আলম সেরা বিতার্কিক হিসেবে মনোণিত হয়। আইসিটি ও ইনোভেশন বিষয়ক কুইজের সেরা নির্বাচিত হয় গভঃল্যাবরেটরি স্কুলের আশিকুল হক, সিফাত মাহবুব ও সাজিদ করিম।  আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সামাঊয়াত ঊল্লাহ সাইবার সিকিউরিটি বিষয়ক সেমিনারে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।
দুদিন ব্যাপি এ মেলায় শুরু থেকেই হাজার হাজার ছাত্রছাত্রী এবং সাধারণ মানুষের স্বতঃস্ফুর্ত  উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই ) প্রোগ্রামের  সহায়তায় এবং জেলা প্রশাসন ঢাকার উদ্যোগে প্রতিবারের ন্যায় এবারো উদযাপিত হয়েছে ‘ডিজিটাল ইনোভেশন ফেয়ার ২০১৬’। আজিমপুর গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ, আজিমপুর, ঢাকায় মেলার দুইদিনে   ৮০ টি সরকারী বেসরকারি প্রতিষ্ঠান অংশ গ্রহণ করে। মেলার শুরু থেকেই প্রত্যেকটি স্টলে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ করা গেছে। মাল্টিমিডিয়ায় ক্লাসরুম এর মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের পাঠদান , মুক্তপাঠ, বৈজ্ঞানিক সরঞ্জাম , শিক্ষক বাতায়ন, সহজ গণিতের উপকরণে নিয়ে মেলায় স্টল সাজায় ভিকারুন্নেসা স্কুল এন্ড কলেজ, গভঃ ল্যবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজ, বিসিএসআইআর স্কুল, ধানমন্ডি গভঃ বয়েজ, ঢাকা রেসিডেনসিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ, অগ্রণী স্কুল এন্ড কলেজ সহ রাজধানীর স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো।  কৃষি, মৎস্য, স্বাস্থ্য, আইনশৃংখলা, প্রাথমিক শিক্ষা, মহিলা বিষয়ক  সহ নানাবিধ  ডিজিটাল ইনোভেটিভ সেবা নিয়ে হাজির হয় জেলার সংশ্লিষ্ঠ দপ্তরগুলো। পরিবেশ বিষয়ক সংগঠন গ্রিন সেভার্স নগর কৃষি নিয়ে সেমিনারে প্রবন্ধ উপস্থাপন করে। পাশাপাশি ছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন।
সিনিউজ/এসিডিটি
Please Share This Post.