ঢাকা ও চট্টগ্রামে আইওটি পণ্যের জোন চালু

গ্রামীণফোন গ্রাহকদের আইওটি (ইন্টারনেট অফ থিংস) পণ্যের সাথে পরিচয় করার লক্ষ্য নিয়ে প্রথমবারের মতো ঢাকার ধানমন্ডি ও চট্টগ্রামের জিইসি সার্কেলের গ্রামীণফোনের লাউঞ্জে “এক্সপেরিয়েন্স জোন” চালু করেছে গ্রামীণফোন।

চট্টগ্রাম জিইসি সার্কেলের জিপি লাউঞ্জে “এক্সপেরিয়েন্স জোন” উদ্বোধনী করেন চটগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাসির উদ্দিন ।

এক্সপেরিয়েন্স জোন দুটিতে স্মার্ট হোম এবং ইভিটিএসের মতো জিপি স্মার্ট পণ্য সেবার অভিজ্ঞতার সুযোগ নিতে পারবেন গ্রাহকরা। আইওটি সেবাসমুহ দৈনিন্দিন জীবনে বিভিন্ন সেবার উপর মানুষের নিয়ন্ত্রণ করার সুযোগ করে দিচ্ছে। গ্রামীণফোন এই প্রথম বাংলাদেশে আইওটি এক্সপেরিয়েন্স চালু করেছে। এটি ডিজিটাল সেবা খাতে একটি দুর্দান্ত প্রভাব ফেলবে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ অর্জনের দিকে অগ্রগতি বাড়িয়ে তুলবে।

এ সম্পর্কে গ্রামীণফোনের চিফ বিজনেস অফিসার মাহমুদ হোসেন বলেছেন, ‘গ্রামীনফোনের সবসময় লক্ষ্য থাকে গ্রাহকদের জীবনে উন্নতি এবং তাদের প্রযুক্তিগত সক্ষমতা বৃদ্ধি। আমাদের প্রযুক্তির দৃস্টিভঙ্গি বদলে যাচ্ছে, সুতরাং আইওটি পণ্য এবং পরিসেবাগুলি এই পরিবর্তনে একটি বিশাল ভূমিকা পালন করবে। এই পণ্যগুলি সম্পর্কে লোকদের সচেতন করা এবং সচেতনতা বৃদ্ধি করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, যাতে তারা তাদের জীবন ও ব্যবসা ডিজিটাল করতে পারে।”

চাটগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাসির উদ্দিন আরও বলেছেন, ‘বাংলাদেশ উন্নতি আরো গতিশীল হচ্ছে নতুন প্রযুক্তি গ্রহনের মাধ্যমে। গ্রামীণফোনের মাধ্যমে আইওটি “এক্সপেরিয়েন্স জোন” প্রথমবারের মতো চট্টগ্রামে চালু হলো। আইওটি পণ্য ও পরিসেবা সম্পর্কে সবাইকে আরও বেশি অভিজ্ঞতা দিতে এই উদ্যোগটি আরও বেশি কাজে লাগবে যা ডিজিটাল বাংলাদেশের দৃষ্টিভঙ্গির সাথে সম্পৃক্ত।”

চট্টগ্রাম এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আ জ ম নাসির উদ্দিন, মেয়র, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। গ্রামীফোনের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন মাহমুদ হোসেন, চিফ বিজনেস অফিসার; সাজ্জাদ হাসিব, হেড অব অপারেশন; রেদোয়ান হাসান খান, আইসিটি এন্ড আইওটি হেড; মোহাম্মদ শরীফ মাহমুদ খান, সার্কেল বিজনেস হেড (চট্টগ্রাম); সাইমা রহমান, রিটেইল পার্টনারশীপ হেড; ও মুক্তাদির রহমান, সার্কেল রিটেইল হেড চট্টগ্রাম ।

জিপি ইতিমধ্যে বিটুসি, বিটুবি, এবং বিটুজি এর প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী আইওটি পণ্য এবং পরিসেবা সরবরাহ করতে শুরু করেছে। গ্রাহকের জীবনকে আরও ডিজিটাল করার উদ্দেশ্যে, জিপি ভবিষ্যতে অন্যান্য জিপিসিতে আরো অভিজ্ঞতা অঞ্চল/ এক্সপেরিয়েন্স জোন চালু করার লক্ষ্য নিয়েছে।

 

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/০২ফেব্রু./২০

 

 

Please Share This Post.