’ঢাকা অ্যাটাক’ দেখার আহ্বান জানালেন পলক

প্রেক্ষাগৃহে দর্শকদের উপচে পড়া ভিড়। প্রশংসায় ভাসছে আরিফিন শুভ ও মাহি অভিনীত ‘ঢাকা অ্যাটাক’। ৬ অক্টোবর ছবিটি মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই চলছে ছবিটি নিয়ে মাতামাতি। অগ্রিম টিকিটও বিক্রি হচ্ছে।

আর গতকাল ৭ অক্টোবর সিনেমাটি দেখার জন্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক সপরিবারে গিয়েছিলেন রাজধানী বসুন্ধরার স্টার সিনেপ্লেক্সে। এরপর গতকালই ‘ঢাকা অ্যাটাক’ সিনেমাটির প্রশংসা করে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যটাস দেন তিনি। সেটি সিনিউজের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হল-

“ঢাকা অ্যাটাক” অসাধারণ একটি চলচিত্র! প্রতিটি মুহুর্ত ছিল আকর্ষণীয়! গল্প, চরিত্র নির্বাচন, অভিনয়, সাউন্ড, প্রযুক্তির ব্যবহার, এনিমেশন, সবই ছিল নিখুঁত!
সবাইকে অনুরোধ করবো একবার হলেও মুভিটি হলে গিয়ে দেখে আসুন। বিশেষ করে তরুনদের দেখার জন্য অনুরোধ রইলো।
আমাদের সামনে ৫২ বা ৭১ নেই, কিন্তু নিজেকে দেশের জন্য উৎসর্গ করার অনেক পথ আছে। দেশকে, দেশের মানুষকে নিরাপদ রাখার জন্য আমাদের প্রত্যেককে যার যার যায়গা থেকে কাজ করে যেতে হবে।
ব্যক্তি স্বার্থের ঊর্ধে উঠে কিভাবে একজন তরুণ পুলিশ অফিসার নিজের জীবন বাজি রেখে দেশের মানুষের নিরাপত্তা প্রদানের জন্য দায়িত্ব পালন করে সেই উপলব্ধি আমাদের সবার থাকা উচিৎ।
ব্যক্তিগত বা পারিবারিক প্রেম ভালবাসার থেকে দেশপ্রেম যে সবার উপরে সেই উপলব্ধি আমাদের সবার থাকা উচিৎ।

‘ঢাকা অ্যাটাক’ ১২৫টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে। নানান ধরনের পন্থা অবলম্বন করে ছবিটির প্রচার করেছেন নির্মাতা দীপংকর দিপন। বাংলাদেশের প্রথম পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলারধর্মী ছবিতে মূল চরিত্রে আরিফিন শুভ ও মাহিয়া মাহি। গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক আলমগীর, হাসান ইমাম, এবিএম সুমন এবং কাজী নওশাবা আহমেদ।

এছাড়া দেখা মিলেছে প্রবাসী বাংলাদেশি তাসকিন রহমানকে, যার অভিনয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ এখন সবাই। অন্যান্য চরিত্রে আরও অনেকেই অভিনয় করেছেন। ছবিটির মূল ভাবনা ও কাহিনি রচনা করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি সানী সানোয়ার। ‘ঢাকা অ্যাটাক’ যৌথভাবে প্রযোজনা করেছে স্প্ল্যাশ মাল্টিমিডিয়া, ঢাকা পুলিশ পরিবার কল্যাণ সমিতি লি. ও থ্রি-হুইলারস লি।

সিনিউজভয়েস/ডেস্ক/

 

Please Share This Post.