ঢাকায় ২৮ ডিসেম্বর তৃতীয় এফ-কমার্স সামিট

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়, আইসিটি ডিভিশনের একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম, বেসিস ও ই-ক্যাবকে সাথে নিয়ে স্পেশালাইজড ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সী গীকি সোশ্যাল লিমিটেড আগামী ২৮ ডিসেম্বর রাজধানীর কেআইবি কমপ্লেক্সে আয়োজন করতে যাচ্ছে ন্যাশনাল এফ কমার্স সামিট ২০১৯।  দিনব্যাপী এই আয়োজনে প্রোডাক্ট এক্সিবিশন, এফ-কমার্স উদ্যোক্তাদের জন্য এঞ্জেল ইনভেস্টরদের সামনে ব্যবসায় উদ্যোগ উপস্থাপনের সুযোগ এবং নলেজ সেশন মিলে ২০০০ দর্শনার্থী এবং ১০০০ উদ্যোক্তার মিলনমেলা হবে বলে আয়োজকরা আশা করছে।

বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় তিন লক্ষ এফ-কমার্স (ফেসবুক কমার্স) উদ্যোক্তা রয়েছে এবং এর ৫০% এর বেশী নারী উদ্যোক্তা। এফ-কমার্স শিল্পের ক্রম বর্ধমান মানোন্নয়ন, কারিগরি দক্ষতা বৃদ্ধি ও সচেতনতা সৃষ্টের লক্ষ্যে এফ-কমার্স সামিটে রাখা হয়েছে ৪টি নলেজ সেশন। ইউটিউবারদের মত কিভাবে ফেইসবুকে ভিডিও শেয়ার করে আর্নিং করা যায় এ ব্যাপারে দিক নর্দেশনা দেয়ার জন্য রয়েছে একটি সেশন। কন্টেন্ট ক্রিয়েটর এবং মেসেঞ্জার বট নিয়েও রয়েছে আলাদা আলাদা সেশন। এছাড়াও ফেইসবুক উদ্যোক্তাদের বিক্রয় বৃদ্ধির কৌশল বিষয়ক নলেজ সেশন রয়েছে অনুষ্ঠানে। সম্মেলনে এফ-কমার্স শিল্পকে উৎসাহিত করতে ৫ জন এফ-কমার্স উদ্যোক্তা এবং ৫ জন পৃষ্টপোষককে পুরস্কৃত করা হবে।

সামিট আয়োজন বিষয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলে, প্রচলিত ব্যবসা বাণিজ্যের যে ডিজিটাল রূপান্তর ঘটছে তা আরো বৃদ্ধি করতে এবং সচেতনতা সৃষ্টি করতে এ সম্মেলন বিরাট ভূমিকা পালন করবে আমি আশা করি।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, এফ-কমার্স সামিটের এই প্রচেষ্ঠা নতুন দশ লক্ষ ডিজাটাল উদ্যোক্তা তৈরীর জাতীয় কর্ম পরিকল্পনা বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

সামিটের প্রধান পৃষ্টপোষক এসএমই ভাই এর চীফ অপারেশন অফিসার সদরুল হাসান বলেন, বেকার সমস্যা সমাধানের মাধ্যমে আর্থসামাজিক অবস্থানের পরিবর্তনের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশের তারুন্য এফ-কমার্সের যে বড় বাজার সৃষ্টি করেছে তার মান উন্নয়নের মাধ্যমে বিক্রি বৃদ্ধির জন্য এসএমই ভাই সবসময় উদ্যোক্তাদের পাশে রয়েছে এবং থাকবে।

আয়োজক প্রতিষ্ঠান গীকি সোশ্যাল লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেদী হাসান সাগর বলেন, আমরা লক্ষ্য করেছি আজকের তারুন্য বেশ বড় একটা সময় সোশ্যাল মিডিয়াতে কাটায় এবং সেটি নিছক বিনোদন ছাড়া আর কিছু দেয় না। সেই জায়গা থেকে আমরা তারুণ্যের সামনে তুলে ধরতে চাই কিভাবে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে ক্যারিয়ার গড়া যায় এবং এন্ট্রিপ্রিনিয়রশিপ গড়ে তুলা যায়।

সামিটে রেজিস্ট্রেশনের জন্য www.smevai.com/f-commercesummit ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন।

উল্লেখ্য, এবারের আয়োজন ন্যাশনাল এফ-কমার্স সামিটের তৃতীয় আয়োজন। এর আগে ২০১৫ এবং ২০১৬ সালে যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/১৫ডিসে./১৯

 

Please Share This Post.