ঢাকায় ফ্রিল্যান্সার সম্মেলন অনুষ্ঠিত

 

৮ ডিসেম্বর ২০১৫ ইং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল একাডেমির উদ্যোগে কেআইবি (কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট) মিলনায়তনে ফ্রিল্যান্সার্স মিট-২০১৫ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি, মাননীয় প্রতিমন্ত্রী, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রনালয়। মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ওয়ার্ল্ড ইনফরমেশন টেকনোলজি সার্ভিসেস এলায়েন্স (WITSA) প্রেসিডেন্ট সান্তিয়াগো গোতিয়ারেজ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ক্লাইড উনো, সাবেক প্রেসিডেন্ট, অ্যাকসেঞ্চার জাপান, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) সভাপতি এএইচএম মাহফুজুল আরিফ, বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব কলসেন্টার এন্ড আউটসোর্সিং (BACCO) সভাপতি আহমেদুল হক ববি। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল একাডেমির নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ নূরুজ্জামান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ড্যাফোডিল গ্রুপের চেয়ারম্যান মো: সবুর খান। অনুষ্ঠানে সফটওয়্যার, ফিমেল, মোবাইল এপস, অনলাইন ব্লগিং ও কন্টেন্ট, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ওয়েব এপ্লিকেশন, এসইও ও অনলাইন মার্কেটিং, ফিমেল আউটসোর্সিং প্রফেশনাল, ইন্ডিভিজুয়েল আউটসোর্সিং প্রফেশনাল, স্টার্টআপ কোম্পানি, আউটসোর্সিং প্রতিষ্ঠান, ওয়েব এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট, ওয়েব ডিজাইন, মোবাইল এপ্লিকেশন, এন্টাপ্রেনার সহ বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে মোট ৭৭ জন ফ্রিল্যান্সার কে অ্যাওয়ার্ড দিয়ে সম্মানিত করা হয়। দ্বিতীয় পর্বে টেকনিক্যাল সেশন অনুষ্ঠিত হয়। এতে দেশের শীর্ষস্থানীয় তথ্য-প্রযক্তিবিদ ও ফ্রিল্যান্সারগণ বিভিন্ন বিষয়ে বক্তব্য উপস্থাপন করেন। উক্ত অনুষ্ঠানে সহশ্রাধিক ফ্রিল্যান্সার সহ তথ্য-প্রযুক্তিপ্রেমি তরুন/তরুনী অংশ নেন। FM_AR

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ফ্রি ল্যান্সারদের জন্য স্বল্প মূল্যে উচ্চগতির ইন্টারনেট সুবিধা দিতে বিশেষ কার্ড দেওয়া হবে যাতে তারা নিরবিচ্ছিন্নভাবে স্বল্প সময়ে কাজ সম্পন্ন করতে পারে। এ বিষয়ে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারদের সাথে চুক্তি করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, বর্তমানে পুরুষের তুলনায় নারী ফ্রিল্যান্সাররা বেশী আয় করছে, তাই আউটসোর্সিং এ অধিক সংখ্যক নারী ফ্রিল্যান্সারের অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে। তিনি বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি খাতে নতুন উদ্যোক্তা বাড়াতে সরকার ”আর্ন এন্ড পে ” নামে একটি নতুন কর্মসূচী হাতে নিয়েছে যাতে নতুন উদ্যোক্তাদের সিঙ্গেল ডিজিটের ঋণ সুবিধা দেওয়া হবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উইটসা প্রেসিডেন্ট সান্তিয়াগো গোতিয়ারেজ বলেন, আগামী ২০২১ সালের উইটসা সম্মেরনের আয়োজক হবে বাংলাদেশ। ফ্রিল্যান্সারদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমি নিজেও একজন ফ্রি ল্যন্সার হিসেবে জীবনের অনেকটা সময় কাজ করেছে। তাই সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করলে ফ্যিল্যান্সার হিসেবেও সফলতা লাভ সম্ভব।
সভাপতির বক্তব্যে মোঃ সবুর খান বলেন, ফ্রিল্যান্সারদের জন্য ফ্রিল্যান্সারদের জন্য বিপুল সংখ্যক ভেনচার ক্যাপিটাল গড়ে তোলার আহ্বান জানান। ফ্যিল্যান্সারদেও উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ফ্রিল্যানসারদের একে অপরের প্রতি সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে তাহলেই সামগ্রীকভাবে দেশ ও সমাজ উপকৃত হবে।

-সি ‍নিউজভয়েস

Please Share This Post.