ঢাকায় আরকন ফিউচার সিকিউরিটি সামিট অনুষ্ঠিত

ফিউচার অব ইনফোরমেশন সিকিউরিটি এবং প্রিভিলেজড অ্যাক্সেস ম্যানেজমেন্ট বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে রাজধানীর ঢাকা ক্লাব লিমিটেডের স্যামসন এইচ চৌধুরী সেন্টারে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হলো ‘ফিউচার অব ইনফোরমেশন সিকিউরিটি সামিট ২০১৯

সামিটে বক্তব্য রাখেন স্মার্টডাটা টেকনোলজিসের ম্যানেজিং ডিরেক্টর একেএম ফজলুর রহমান, আরকানেক্টের সিকিউরিটি এক্সপার্ট রোহান গাইকাওয়াদ, সিকিউরিটি এক্সপার্ট ইয়াহিয়া খান, অভিষেক সিং, আদিত্য মুন্দ্রাসহ অনেকে।

আরকানেক্টের সিকিউরিটি এক্সপার্ট ইয়াহিয়া খান বলেন, তথ্য যে কোনো ইন্ডাস্ট্রিতে সবচেয়ে বড় সম্পদ। সে কারণেই প্রতিটি প্রতিষ্ঠান তাদের তথ্য সুরক্ষিত করার জন্য উচ্চ বাজেট বরাদ্দ করছে। তারপরও বিশ্বের শতকরা ৮০ ভাগের বেশি তথ্য পাচার হয় আনমনিটরড প্রিভিলেজড অ্যাকাউন্টগুলোর কারণে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের শিল্পায়ন ভিন্ন উচ্চতায় পৌঁছেছে। একইসঙ্গে, ডিজিটাইজেশন এই প্রতিষ্ঠানগুলোকে তাদের ম্যানুয়াল ক্রিয়াকলাপগুলোকে ডিজিটাল রূপে রূপান্তরিত করতে উৎসাহিত করছে। এই পরিবর্তনকালীন সময়ে, প্রতিষ্ঠানগুলো তথ্য সুরক্ষা বিষয়কে উপেক্ষা করে; যা শেষ পর্যন্ত আর্থিক হুমকি এবং লোকসানের মুখে পরতে হয়।

বিশ্বখ্যাত আইটি প্রতিষ্ঠান আরকন আয়োজিত ‘ফিউচার অব ইনফোরমেশন সিকিউরিটি সামিট’ এ ইভেন্ট পার্টনার ছিল বিশেষ সহযোগী ও অংশীদার প্রতিষ্ঠান স্মার্টডাটা টেকনোলজিস।

সেমিনারে বক্তারা আধুনিক তথ্য সুরক্ষা ও প্রিভিলেজড অ্যাক্সেস ম্যানেজমেন্ট বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেন। সামিটে বক্তারা বাংলাদেশের মত উন্নয়নশীল দেশের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রায় সর্বোচ্চ সাইবার সিকিউরিটি নিশ্চিত করা জরুরি বলে মন্তব্য করেন।

অনুষ্ঠানে দেশি-বিদেশি আইটি এক্সপার্ট ছাড়াও দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শীর্ষকর্মকর্তা, ব্যাংকাররা উপস্থিত ছিলেন।

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/২৪এম/১৯