ড্যাফোডিল এডুকেশন নেটওয়ার্ক এর উদ্যোগে ৪ দিনব্যাপী ভার্চুয়াল অ্যাডমিশন ফেয়ার ‘এডুগেট’ শুরু

করোনাকালীন ও করোনাপরবর্তী ‘নিউনরমাল’ পরিস্থিতিতে শিক্ষাক্ষেত্রের নতুন নতুন ইনভেনশন এবং ইনোভেটিভ বিষয়সমূহের সাথে সমম্বয় রেখে ক্যারিয়ার প্ল্যানিং সাজাতে শিক্ষার্থীদের সঠিক দিক নির্দেশনা ও পরামর্শ দিতে ড্যাফোডিল এডুকেশন নেটওয়ার্ক (ডেন) আয়োজন করেছে চার দিনব্যাপী (৩-৬ ফেব্রুয়ারি) ভার্চুয়াল এডমিশন ফেয়ার “এডুগেট”।
আজ বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মেলার উদ্বোধন করেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ড. মো. মুরাদ হাসান, এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল গ্রুপের চেয়াম্যান ড. মো. সবুর খান, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মাহবুব উল হক মজুমদার, ড্যাফোডিল পরিবারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নূরুজ্জামান, মাল্টিমিডিয়া অ্যান্ড ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি বিভাগের প্রধান ও এডুগেট’র আহŸায়ক ড. শেখ মোহাম্মদ আল্লাইয়ার। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বিএসডিআইয়ের নির্বাহী পরিচালক কেএম হাসান রিপন।
ড্যাফোডিল পরিবারের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর সমন্বয়ে গঠিত ড্যাফোডিল এডুকেশন নেটওয়ার্কের অন্তর্ভূক্ত ২০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্রাঞ্চসহ ৩১ টি প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত এ মেলা আজ থেকে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত হবে। এ প্ল্যাটফর্মটি মালয়েশিয়ার স্পাইরাল ওয়ার্ল্ড ডট বিজ কর্তৃক উদ্ভাবিত এবং বাস্তবায়ন করছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির মাল্টমিডিয়া এবং ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি ডিপার্টমেন্ট।
এ মেলার ক্যারিয়ার পার্টনার হিসেবে স্কিল.জবস্ ও ক্যারিয়ার ডেভেলাপমেন্ট সেন্টার এবং সেমিনার পার্টনার হিসাবে থাকছে হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলাপমেন্ট ইন্সটিটিউট (এইচআরডিআই) এবং ইভেন্ট পার্টনার হল স্পাইরাল ওয়ার্ল্ড ডট বিজ, মালয়েশিয়া।
রেজিস্ট্রেশন সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য জানা যাবে এই লিংকে: http://edugate.spiralworld.biz
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ড. মো. মুরাদ হাসান, এমপি বলেন, দেশে প্রথম বারের মতো ভার্চুয়াল ভর্তিমেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশে এক নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হলো। বিশ্ববিদ্যালয় ও উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে ভর্তির ব্যাপারে শিক্ষার্থীরা এই ভার্চুয়াল মেলা থেকে সঠিক দিক নির্দেশনা লাভ করতে পারবে। তারা তাদের পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে ঘরে বসেই সবকিছু জানতে পারবে। এটা সত্যিই প্রশংসাযোগ্য একটি উদ্যোগ। এমন উদ্যোগ গ্রহণের জন্য ড্যাফোডিল এডুকেশন নেটওয়ার্ককে ধন্যবাদ জানান তিনি।
প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, শিক্ষাই জাতির মেরুদ। একটি জাতিকে উন্নত হিসেবে গড়ে তুলতে হলে মানসম্মত শিক্ষার প্রয়োজন। আর মানসম্মত শিক্ষার জন্য দরকার লাইব্রেরি, গবেষণাগার, ভালো শিক্ষক এবং আধুনিক প্রযুক্তির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া। ড্যাফোডিল পরিবার প্রযুক্তির সঙ্গে শিক্ষার্থীদের মানিয়ে নিচ্ছে এবং তাদেরকে দক্ষ করে গড়ে তুলছে। তারা নিত্য নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে শিক্ষার্থীদেরকে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে। এ করোনাকালে শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষাকে নির্বিঘ্ন করতে ইদিমধ্যে ২৫ কোটি টাকার বৃত্তি ঘোষণা করেছে ড্যাফোডিল এডুকেশন নেটওয়ার্ক। প্রযুক্তির নিত্যনতুন উদ্ভাবন ও বভ্যহারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নেও অবদান রেখে চলেছে ড্যাফোডিল এডুকেশন নেটওয়ার্ক। সেই ধারাবাহিকতায় প্রথবারের মতো ভার্চুয়াল ভর্তি মেলার আয়োজন করছে। এসব কাজের জন্য ড্যাফোডিলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন প্রতিমন্ত্রী।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ড. মো. সবুর খান বলেন, নিউ নরমাল পরিস্থিতিতে এই ভার্চুয়াল ভর্তিমেলা শিক্ষার্থীদেরকে অনেক উপকৃত করবে। আগে ভর্তির তথ্য জানার জন্য প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বশরীরে যেতে হতো। কিন্তু এই ভার্চুয়াল ভর্তিমেলার কারণে তারা ঘরে বসেই পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় তথ্য জানতে পারবে। এই মেলা শিক্ষার্থীদেরকে যানজট, অর্থ ব্যায় ও সময় ব্যয় করা থেকে বাঁচাবে।
ড. মো. সবুর খান আরও বলেন, শিক্ষাখাতে এই মেলা নিঃসন্দেহে অনেক বড় অবদান রাখবে। কারণ করোনাকালে সবকিছু যখন বন্ধ, চলাফেরা সীমিত, সেখানে এ ধরনের ভার্চুয়াল মেলার খুবই প্রয়োজন ছিল। শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার স্বপ্ন পূরণে এই মেলা সহায়ক হবে। ভবিষ্যতে এই মেলা আরও বৃহৎ পরিসরে করা হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
উল্লেখ্য, করোনাকালে দর্শনার্থীরা ঘরে বসেই ড্যাফোডিলের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বিস্তারিত জানতে পারবে এ ভর্তি মেলা থেকে। স্বশরীরে উপস্থিত থেকে একজন দর্শনার্থী যে ধরনের সুযোগ-সুবিধা এবং স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করতেন তার পুরোটাই থাকছে এ ‘ভার্চুয়াল এডুগেট অ্যাডমিশন ফেয়ার’ এ। অপরদিকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ভার্চুয়াল স্টল স্থাপনের মাধ্যমে তাদের গুনগত মান ও সেবার সবোর্চ্চ চিত্র আগ্রহী শিক্ষার্থীদের কাছে তুলে ধরার পাশপাশি, তাদের সাথে মিথস্ক্রিয়তার মাধ্যমে তথ্য সরবরাহ করবে। আর ভার্চুয়ালি আয়োজন করবে উচ্চশিক্ষা বিষয়ক পরামর্শ ভিত্তিক বিভিন্ন সেমিনার, সিম্পোজিয়াম, ওয়ার্কশপ ও প্ল্যানারী সেশান ।
এ মেলার ক্যারিয়ার পার্টনার হিসেবে স্কিল ডট জবস, ক্যারিয়ার ডেভেলাপমেন্ট সেন্টার এবং সেমিনার পার্টনার হিসাবে থাকছে হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলাপমেন্ট ইন্সটিটিউট এবং ইভেন্ট পার্টনার হল স্পাইরাল ওয়ার্ল্ড ডট বিজ।

Please Share This Post.