ডিজিটাল মার্কেটিং সামিট ও অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠিত

১৪ অক্টোবর শনিবার, বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম চতুর্থবারের মতো ডিজিটাল মার্কেটিং সামিট সম্পন্ন করল এবং এর সঙ্গে ডিজিটাল মার্কেটিং অ্যাওয়ার্ড প্রথমবারের মতো সম্পন্ন হল। মেঘনা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের পরিবেশনায় ডিজিটাল মার্কেটিং সামিট ২০১৭-এর থিম ছিল, ‘কার্যক্রমের মধ্যে কৌশল’। এ আয়োজনে পৃষ্ঠপোষকতা করেছে উইজার্ড অ্যাড নেটওয়ার্কস, সঙ্গে রয়েছে দ্য ডেইলি স্টার। লা মেরিডিয়ান ঢাকার গ্র্যান্ড বল রুমে দিনব্যাপী এ সামিট অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২০১৪ সালে শুরু হওয়া ডিজিটাল মার্কেটিং সামিট, মার্কেটিং ও বিজ্ঞাপন বিশেষজ্ঞ এবং সৃজনশীল পেশাদারদের জন্য একটি কেন্দ্রীয় প্লাটফর্মে পরিণত হয়েছে। এখানে তারা ডিজিটাল মার্কেটিং-এর বিষয়ে নতুন নতুন জ্ঞান অর্জন করে এবং নিজেদের সর্বশেষ ডিজিটাল মার্কেটিং-এর চর্চা অন্যদের সঙ্গে ভাগাভাগি করে নেয়।

চলতি বছর সামিটে চারটি কিনোট সেশন, তিনটি প্যানেল ডিসকাশন, পাঁচটি ব্রেকআউট সেশন, দুইটি কেস স্টাডি প্রেজেন্টেশন এবং দুইটি ইনসাইট সেশন সম্পন্ন হয়েছে। পাশাপাশি, সামিটে আনুষ্ঠানিক আত্মপ্রকাশ করেছে উইজার্ডস অ্যাড নেটওয়ার্কস।

এ বছরের সামিটে সম্মানিত কিনোট বক্তারা ছিলেন- সাউথ এশিয়া ইউনিলিভারের মার্কেটিং ট্রান্সফর্মেশনের ডিরেক্টর জাভেদ আখতার, গুগলের সাউথ এশিয়ান ফ্রন্ট্রিয়ার মার্কেটের হেড ফারহান কুরেশী, বাংলালিংক ডিজিটাল কমিউনিকেশন লিমিটেডের চিফ ডিজিটাল অফিসার সঞ্জয় ভাগাসিয়া, এবং ডিসরাপ্টিয়েন্টের সিইও ও ফাউন্ডার ড্যান ক্লার্ক।

তিনটি প্যানেল ডিসকাশনের প্যানেলিস্ট ছিলেন দেশীয় ১৫ জন ডিজিটাল মার্কেটিং বিশেষজ্ঞ। প্যানেল ডিসকাশনের আলোচ্য বিষয়গুলো ছিল- পরবর্তী ডিজিটাল মার্কেটিং ক্যাম্পেইন তৈরির নির্ভুল উপায়, আমরা কি সঠিক ভাবে মোবাইল অ্যাডভারটাইজিং ব্যবহার করছি?, এবং ফলাফল পাওয়া যায় এমন কনটেন্ট তৈরি। উইজার্ডস অ্যাড নেটওয়ার্ক ও পিকাবু ডট কম দুইটি কেস স্টাডিজ উপস্থাপন করে।

ইনসাইট সেশন দুটি নিয়েছেন মেঘনা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর অব মার্কেটিং আসিফ ইকবাল এবং ১০ মিনিট স্কুল এর ফাউন্ডার আয়মান সাদিক। এই ইনসাইট সেশনগুলোর আলোচ্য বিষয় ছিল যথাক্রমে ‘কেন সংগীত ব্র্যান্ডগুলোর জন্য পরবর্তী প্ল্যাটফর্ম হতে পারে?’ এবং ‘টেকনিকালিটি ও বুস্টিং ছাড়া ডিজিটাল মার্কেটিং হ্যাকস।’

এছাড়াও পাঁচটি ব্রেকআঊট সেশনে অংশগ্রহণকারীদের আরো ছোট গ্রুপে ভাগ করে নেওয়া হয় আরো ভালোভাবে জানা ও আলোচনার সুবিধার জন্য।

ব্রেকআঊট সেশনগুলোর পরিবেশনায় ছিল- ওমেন ইন লিডারশিপ, বাংলাদেশ ক্রিয়েটিভ ফোরাম, উইজার্ডস অ্যাড নেটওয়ার্ক, এটুআই এবং দ্য ডেইলি স্টার।
ওমেন ইন লিডারশিপের ব্রেকআউট সেশন ‘ওয়ান্ডার অব টেকনোলজি ফর ওমেন লিডারশিপ’ এর মূল বিষয় ছিল ডিজিটাল মিডিয়া ও অনলাইন প্ল্যাটর্ফমের মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়ন। বাংলাদেশ ক্রিয়েটিভ ফোরামের ব্রেকআউট সেশন ‘লেভারেজিং ক্রিয়েটিভিটি থ্রু টেকনোলজি’ এর মূল বিষয় ছিল সৃজনশীল পেশাদার ব্যাক্তিরা ডিজিটাল প্ল্যাটর্ফম ব্যবহার করে কিভাবে তাদের দক্ষতা ও কাজকে প্রচার করতে পারেন। দ্য ডেইলি স্টারের ব্রেকআউট সেশনের মূল বিষয় ছিল পরবর্তী মিডিয়া ডিস্ট্রিবিউশন এর প্লাটফর্ম হিসেবে ম্যাসেঞ্জার বট ব্যবহার। এটুআই-এর ব্রেকাউট সেশনের মূল বিষয় ছিল, দেশের ৬৪টি জেলার গল্প দেশবাসীর কাছে নিয়ে যাওয়া।

লা মেরিডিয়ান ঢাকার গ্র্যান্ড বলরুমে দিনব্যাপী সামিটের পর অ্যাওয়ার্ড গালা অনুষ্ঠিত হয়। এই অনুষ্ঠানে বিশেষ সহযোগিতায় ছিল- র‌্যাংগস তোশিবা এবং অ্যাডপ্লে, আরো ছিল ইভেন্ট পার্টনার লা মেরিডিয়ান ঢাকা, আইটি পার্টনার আমরা টেকনোলজিস, নোলেজ পার্টনার মার্কেটিং সোসাইটি অব বাংলাদেশ (এমএসবি), টিভি পার্টনার একাত্তর টিভি, রেডিও পার্টনার রেডিও টুডে, পিআর পার্টনার মাস্টহেড, লাইফস্টাইল পার্টনার অ্যাডভান্সড ডেভেলপমেন্ট টেকনোলজিস, ডিজিটাল পার্টনার মেলোনেডস এবং অনলাইন মিডিয়া পার্টনার বিডি নিউজ টুয়েনটি ফোর।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.