ডিজিটাল নিরাপত্তায় আপস নয়-মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, নতুন প্রজন্মের জন্য নিরাপদ ইন্টারনেট নিশ্চিত করতে সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে। প্রাতিষ্ঠানিক নিরাপত্তা কেবলমাত্র ডিজিটাল যুগেরই নিরাপত্তা না, ব্যক্তিগত ডিজিটাল নিরাপত্তা অপরিহার্য। তিনি বলেন, ডিজিটাল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের ব্যাপ্তি অভাবনীয়ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে কিন্তু সেটি একটি পাসওয়ার্ডে সীমাবদ্ধ থাকে, বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখতে হবে।

তিনি এই লক্ষ্যে ডিজিটাল যুগের উপযোগী মানব সম্পদ তৈরি করতে ইনস্টিটিউট অব কস্ট ম্যানেজমেন্ট একাউন্ট বাংলাদেশ (আইসিএমএ,বি) কে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণের আহবান জানান। তিনি বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তার জায়গায় আপস করার কোন সুযোগ নেই। বাংলাদেশ যতো ডিজিটাল হচ্ছে, ডিজিটাল নিরাপত্তার ঝুকি ততো বাড়ছে। আমাদেরকে এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে।

মন্ত্রী মঙ্গলবার রাতে ঢাকায় আইসিএমএ,বি মিলনায়তনে আইসিএমএ,বি আয়োজিত সিপিডি প্রোগ্রাম অন ম্যানেজিং দি সাইবার সিকিউরিটি রিস্কস দি রোল অব ম্যানেজমেন্ট একাউন্টস’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী, ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় গত দশ বছরের অগ্রগতির তুলনামূলক চিত্র এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরেন। তিনি বলেন বৈশ্বিক  ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবের ফলে বিশ্ব যত বেশী ডিজিটাল হচ্ছে বিশ্ব  তত বেশী ডিজিটাল অনিরাপদ হচ্ছে।

আমরা বর্ডারহীন অপরাধের জগতে প্রবেশ করছি। ইন্টারনেট নিরাপদ রাখতে ২৪ হাজার পর্নো সাইট এবং বিপদজনক লিংক সরকার বন্ধ করেছে। ব্যক্তিগত গুজব ছড়ানোকারী এবং উস্কানীমূলক স্টেটাস মুছে ফেলার প্রযুক্তি আগামী তিন মাসের মধ্যে চালু করা সম্ভব হবে বলে জানান টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী।

ঢাক স্টক এক্সচেঞ্জের সিটিও মো. জিয়াউল করিম অনুষ্ঠানে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।অনুষ্ঠানে রবি আজিয়াটা লিমিটেড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ এবং আইসিএমএবি সভাপতি এম আবুল কালাম মজুমদার বক্তৃতা করেন।

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/জুলাই২৪/১৯

Please Share This Post.