ডিএইচএল এক্সপ্রেস ও শপআপ এর মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর

দেশের একমাত্র ফেসবুক কমার্সের স্ট্র্যাটেজিক সাপোর্ট প্রতিষ্ঠান শপআপ, আন্তর্জাতিক লজিস্টিক সাপোর্ট প্রতিষ্ঠান ডিএইচএল এক্সপ্রেস-এর সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। এই চুক্তির ফলে শপআপের নিবন্ধিত ফেসবুক উদ্যোক্তাগণ দেশের বাইরের কাস্টমারদের ডেলিভারি দিতে সক্ষম হবে।

১৮ ফেব্রুয়ারি, ডিএইচএল-এর তেজগাঁওতে অবস্থিত ফ্যাসিলিটি সেন্টারে আয়োজিত এই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও মহিলা উদ্যোক্তা, মরহুম মেয়র আনিসুল হক-এর স্ত্রী রুবানা হক, ই-ক্যাব-এর সভাপতি ও ডিএইচএল বাংলাদেশের কমার্শিয়াল ডিরেক্টর এ এস এম শাকিল সহ শপআপ ও ডিএইচএল-এর কর্মকর্তাগণ। এই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উক্ত অতিথিগণ একটি প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন। এই আলোচনায় এফ কমার্স, এর ভবিষ্যৎ এবং নারীর ক্ষমতায়নে এফ কমার্স-এর অবদান সম্পর্কিত বিষয়গুলো উঠে আসে।

শপআপ ফেসবুক উদ্যোক্তাদেরকে বুস্টিং, প্রমোশন, প্রোডাক্ট ডেলিভারি, পেজ ডিজাইন ইত্যাদি সহযোগিতা প্রদান করে থাকে। এই ফেসবুক পেজগুলো প্রায়শই বিদেশ থেকে, বিশেষ করে প্রবাসী বাংলাদেশিদের অর্ডার পেয়ে থাকেন। বিদেশে ডেলিভারি প্রদানের ব্যাপারটিতে জটিলতা থাকায় শপগুলোর বাজার শুধু বাংলাদেশেই সীমিত ছিল। বর্তমানে বাংলাদেশের ই-কমার্স সেক্টরের ৭০% অবদান ফেসবুক শপগুলোর। শপআপ এবং ডিএইচএল-এর এই চুক্তির ফলে এই সুযোগটি আরো বৃদ্ধি পাবে।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘বাংলাদেশের ই-কমার্স শিল্পের জন্য আজ একটি নতুন দিগন্ত উন্মোচন হল। ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বরূপটি সফলভাবে পরিলক্ষিত হবে একটি সাবলীল ডিজিটাল অর্থনীতি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে। বাংলাদেশের এফ-কমার্সের জন্য বৈশ্বিক বাজার উন্মোচনের মাধ্যমে শপআপ ও ডিএইচএল-এর এই উদ্যোগ দেশের ডিজিটালাইজেশনে ব্যাপক ভুমিকা রাখবে।’

এই চুক্তি সম্পর্কে শপআপ-এর সহ প্রতিষ্ঠাতা সিফাত সারোয়ার বলেন, ‘আমাদের নিবন্ধিত অনেকগুলো ফেসবুক শপই অনেকদিন যাবৎ দেশের বাইরে থেকে বিশেষ করে প্রবাসী বাংলাদেশীদের নিকট থেকে অর্ডার পেয়ে আসছিল। নীলাভ, জামদানীভিলসহ অনেকগুলো ফেসবুক শপ যারা ঐতিহ্যবাহী বাংলাদেশি পণ্যগুলো তাদের পেজের মাধ্যমে তুলে ধরে, প্রায়শই তারা দেশের বাইরের থেকে অর্ডার পেয়ে থাকেন। ডিএইচএল-এর প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ এই অগ্রযাত্রায় আমাদের অংশীদার হবার জন্য।’

ডিএইচএল বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার মিয়ারুল হক বলেন, ‘শপআপের এই উদ্যোগটিকে আমরা স্বাগত জানাই। দেশের ফেসবুক কমার্সের এই অগ্রযাত্রার অংশীদার হতে পেরে আমরা গর্বিত।’

শপআপ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট- ফেসবুক: www.facebook.com/ShopUpNow, ওয়েবসাইট: https://shopup.com.bd


– গোলাম দাস্তগীর তৌহিদ

Please Share This Post.