ডিআইইউতে বাংলা কম্পিউটিং নিয়ে জিডিজি বাংলার সেমিনার

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশানল ইউনিভার্সিটিতে ডিআইইউ সিপিসির আয়োজনে হয়ে গেল বাংলা কম্পিউটিং বিষয়ক সেমিনার। উক্ত ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সৈয়দ আখতার হোসেনের শুভেচ্ছা বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হওয়া সেমিনারে বাংলা কম্পিউটিং এর প্রতিকূলটা এবং সম্ভাবনা নিয়ে বিভিন্ন বিষয়ে আলোকপাত করেন ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান কাজী হাসান রবিন। তার আলোচনায় উঠে আসে, মুখ্যভাষা হিসেবে বাংলা পৃথিবীর ৭ম বৃহৎ ভাষা হলেও কম্পিউটিং জগতে বাংলার অবস্থান খুব বেশি সন্তোষজনক নয়। বাংলা কম্পিউটিংকে এগিয়ে নিতে সুযোগ রয়েছে ন্যাচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং থেকে শুরু করে অপটিক্যাল ক্যারেক্টার রিকগনিশন, টেক্সট টু স্পিচ অথবা স্পিচ টু টেক্সট নিয়ে কাজ করার সুযোগ। আর বাংলা কম্পিউটিংকে এগিয়ে নিতে খুব দ্রুত কাজ শুরু করার বিকল্প নেই।

এরপরে শুরু হয় ব্রেইনস্টর্মিং সেশন যেখানে উপস্থিত অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা আইডিয়া জমা দেন। বাংলা কম্পিউটিং নিয়ে সেরা তিন আইডিয়া দাতা টিমকে পুরস্কৃত করা হবে। এই সেশন পরিচালনা করেন জিডিজি বাংলার ক্যাম্পাস এম্বাসেডর তিতাস আহমেদ।

বাংলা কম্পিউটিংকে এগিয়ে নিতে গুগল ডেভেলপার গ্রুপ বাংলা প্রতিনিয়তই কাজ করে যাচ্ছে। যার ধারাবাহিকতায় শুরু হয়েছে বাংলা লার্নিং প্লাটফর্ম ডেভেলপের কাজ। প্লাটফর্মটি ডেভেলপের কাজ শেষ হলে বাংলা ভাষাভাষী শিক্ষার্থীরা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ শিখতে পারবে সহজেই। লার্নিং প্লাটফর্মের ফিচার নিয়ে আলোচনার সময় জিডিজি বাংলা ক্যাম্পাস এম্বাসেডর মতিউর রহমান বলেন স্বেচ্ছাসেবীযেকোনো ডেভেলপার যুক্ত হতে পারবেন তাদের সাথে।

উল্লেখ্য যে, গত বছরে জিডিজি বাংলা আয়োজন করেছিল এন্ড্রয়েড স্টাডি জ্যাম। সফলভাবে কোর্স সমাপ্ত করা প্রায় ২০জন শিক্ষার্থীকে প্রদান করা হয় সনদ। আগামী মাসেও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আয়োজন করা হবে এন্ড্রয়েড স্টাডি জ্যাম, সেইসাথে আগ্রহী স্বেচ্ছাসেবীদের নিয়ে বাংলা কম্পিউটিংকে এগিয়ে নিতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে খোলা হবে চ্যাপ্টার এবং নির্বাচন করা হবে ক্যাম্পাস এম্বাসেডর। বাংলা কম্পিউটিং নিয়ে আগ্রহী সকলেই যুক্ত হতে পারবেন এই কমিউনিটির সাথে।

সিনিউজভয়েসে/ডেক্স

Please Share This Post.