ডব্লিউ বি এ এফ’র সিনেটর হলেন মোহাম্মদ নূরুজ্জামান

ড্যাফোডিল পরিবারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নূরুজ্জামান সম্প্রতি ওয়ার্ল্ড বিজনেস অ্যাঞ্জেলস ইনভেস্টমেন্ট ফোরামের (ডব্লিউবিএএফ) সিনেটর নির্বাচিত হয়েছেন। আগামী ১৪ ও ১৫ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য ডব্লিউবিএএফ-এর গ্র্যান্ড অ্যাসেম্বলিতে তিনি বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করবেন।
মোহাম্মদ নূরুজ্জামানের এই পদ প্রাপ্তির মাধ্যমে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে বাংলাদেশের স্টার্টআপ, ও ব্যবসা বাণিজ্য প্রসারের পথ প্রশস্ত হলো। বাংলাদেশের তরুণ উদ্যোক্তারা এখন থেকে বৈশ্বিক পরিমন্ডলে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের বিনিয়োগ বাজার আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ বাজারের সঙ্গে সংযুক্ত হলো। ফলে বাংলাদেশের স্থানীয় বিনিয়োগকারী, ইনকিউবেশন সেন্টার, প্রাইভেট ইকুইটি ফার্ম, কো-ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড, টেকনোলজি পার্ক, কর্পোরেট ভেঞ্চার ও সম্ভাবনাময় উদ্যোক্তারা বিশ্বের নেতৃস্থানীয় ব্যবসায়িক নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন।
মিঃ নুরুজ্জামান ড্যাফোডিল পরিবারে ৪১ প্রতিষ্ঠানের নের্তৃত্বদানের পাশপাশি “ড্যাফোডিল এডেিকশন নেটওয়ার্ক” এর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এরামনিদের উদ্যোক্তা হয়ে ওঠার পিছনে নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছেন। পাশাপাশি তিনি বেশ কিছু সফল স্টার্টআপের অ্যাঞ্জেল ইনভেস্টর হিসেবে নিজেকে সম্পৃক্ত করেছেন।
এ সম্পর্কে ওয়ার্ল্ড বিজন্সে অ্যাঞ্জেলস ইনভেস্টমেন্ট ফোরামের চেয়ারম্যান বেবার্স আলতুনতাস বলেন, অর্থনৈতিক উন্নয়নের দিক থেকে বাংলাদেশ খুব দ্রæতই উন্নতির শিখরে পৌঁছে যাবে বলে আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি। কারণ দেশটির পরিবশে খুবই উদ্যোক্তাবান্ধব।
উল্লেখ্য, ডবিøউবিএএফ হচ্ছে স্টার্টআপ, উদ্যোক্তা উন্নয়ন ও অ্যাঞ্জেল ইনভেস্টমিন্ট নিয়ে কাজ করা বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফোরাম। বিশ্বের ৭৯টি দেশের ১৩৮জন হাইকমিশনার ও সিনেটর এই ফোরামের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। ডব্লিউবিএএফ বিজনেস স্কুলের অধীনে বিশ্বের ৩২টি দেশে ৫০জন শিক্ষক রয়েছেন এবং ৫টি ইন্টারন্যাশনাল ওয়ার্কিং কমিটি রয়েছে। প্রতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে ডব্লিউবিএএফ ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস অনুষ্ঠিত হয়।