টনিকের ‘লেট’স মুভ বাংলাদেশ!’ চ্যালেঞ্জ

টনিকের ফেসবুক পেজ (www.facebook.com/tonicbd) ও ওয়েবসাইটের (www.mytonic.com) মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু হচ্ছে মাসব্যাপী শারীরিক অনুশীলনের চ্যালেঞ্জ ‘লেট’স মুভ বাংলাদেশ!’- এর।

সুস্থ জীবনে অঙ্গীকার গ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশের যেকোনো প্রান্তে যে কেউ ‘লেট’স মুভ বাংলাদেশ!’- এর চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে তারা #LetsMoveBD এ হ্যাশট্যাগ দিয়ে নিজেদের ছবি পোস্ট করবেন এবং অন্যদের এ চ্যালেঞ্জ নিতে উৎসাহিত করবেন। সমাজের জন্য কিছু করার পাশাপাশি এ চ্যালেঞ্জে অংশগ্রহণকারীরা আকর্ষনীয় পুরস্কার জিতে নিয়ে ব্যক্তিগত অর্জনকে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিবেন।

এক্ষেত্রে নভেম্বর মাসজুড়েই নানা কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। এ প্রচারণা থেকে সর্বোচ্চ সুবিধা পেতে নির্দিষ্ট উদ্দেশ্যে নভেম্বরের প্রতি সপ্তাহে নির্দিষ্ট প্রতিপাদ্যের ওপরে কর্মসূচিগুলো অনুষ্ঠিত হবে।

প্রথম সপ্তাহের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘মুভ ফর ফ্যামিলি’। শারীরিক অনুশীলন যেনো আমাদের প্রতিদিনকার রুটিনের অংশ হয়ে যায় এজন্য এ প্রচারণার মাধ্যমে টনিক সুস্বাস্থ্য বিষয়ে পরিবারের সদস্যদের সাথে যোগাযোগ করবে। দ্বিতীয় সপ্তাহের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে ‘মুভ ফর হেলথ’। যেখানে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসে (১৪ নভেম্বর) টনিক শারীরিক অনুশীলনের মাধ্যমে কিভাবে ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করা যায় এর ওপর সরাসরি প্রশ্নোত্তর পর্বের আয়োজন করবে। এ প্রশ্নোত্তর পর্বে একজন বিশেষজ্ঞ অংশ নিবেন।

তৃতীয় সপ্তাহের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘মুভ টু লুক গুড, স্ট্যান্ড আউট’। এ প্রতিপাদ্য নিয়ে টনিক ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট ও রাজশাহীর মোট ৮টি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে শারীরিক অনুশীলনের সচেতনতা ছড়িয়ে দিতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে যাবে। চতুর্থ সপ্তাহের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে ‘মুভ টু সাকসিড’। এ প্রতিপাদ্য নিয়ে টনিক আনুষ্ঠানিকভাবে ঢাকা হাফ ম্যারাথনে সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে অংশগ্রহণ করবে। পঞ্চম সপ্তাহের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘মুভ ফর কমিউনিটি’। এ সপ্তাহে টনিক শারীরিক অনুশীলনের অভ্যাসকে উৎসাহিত করতে বিভিন্ন বিদ্যালয় ও পার্কে বিভিন্ন শারীরিক অনুশীলন বিষয়ক কর্মসূচিতে নিজেদের সম্পৃক্ত করবে।

‘লেটস মুভ বাংলাদেশ!’- চ্যালেঞ্জের লক্ষ্য অর্জনে এবং স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণে সবাইকে সহায়তা করতে টনিক বিনামূল্যে বিস্তৃত পরিসীমায় সেবা দিচ্ছে। আমাদের প্রতিদিনকার জীবনে শারীরিক অনুশীলনের অভ্যাস তৈরিতে এবং এ লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে সবাইকে উৎসাহিত করতে নভেম্বর মাসজুড়ে ফেসবুক পেজ ও মাই টনিক ডটকম ওয়েবসাইটের মাধ্যমে টনিক নানা ধরনের তথ্যসেবা দিবে। এছাড়াও, গ্রামীণফোন গ্রাহকরা টনিক ডাক্তার সেবা ৭৮৯ –এ কল করার মাধ্যমে শারীরিক অনুশীলন ও নানা স্বাস্থ্য সুবিধা নিয়ে একজন মেডিসিন বিশেষজ্ঞের সাথে কথা বলতে পারবেন।

শুধুমাত্র অনলাইনে বা ফোনের মাধ্যমে শারীরিক অনুশীলনের প্রচারণা চালানো সম্ভব নয়। এজন্য টনিক এ কর্মসূচিকে আরও জোরদার করতে সহযোগী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্র্যান্ডকে একসাথে নিয়ে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বিষয়ে আকর্ষণীয় সব সুবিধা দিবে।

টনিক সদস্যরা ঢাকা রিজেন্সি হোটেলে জিমের ওপর পাবেন ২৫ শতাংশ ছাড়, অ্যাপোলো হাসপাতালে হৃদরোগে চেক-আপে পাবেন ৩৩ শতাংশ ছাড়, সেলফোনিতে বিশেষ দামে পাবেন এমআই ব্যান্ড ২, সাইকেল হাবে সব অ্যাকসেসরিজের ওপর পাবেন ৫০ শতাংশ ছাড়, ঢাকা সিটি ফিজিওথেরাপি ও রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টারে পাবেন প্রতি সপ্তাহে একবার বিনামূল্যে স্ক্যানিং সুবিধা, সাইকেল জাংশনে পাবেন সাইকেলের ওপর ১০ শতাংশ ও মেরামতের ওপর ৫০ শতাংশ ছাড়, স্পোর্টস ওয়ার্ল্ডের ৫টি আউটলেটে নির্দিষ্ট পণ্যে পাবেন ৫০ শতাংশ ছাড় এবং ঠিক একইভাবে মাল্টি স্পোর্টসে পাবেন ২৫ শতাংশ ছাড়। এছাড়াও, নভেম্বর মাসের প্রথম ও তৃতীয় শুক্রবার ঢাকা পেইন রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টারে টনিক সদস্যরা বিনামূল্যে নিতে পারবেন পরামর্শ সেবা। ৫০ শতাংশ ছাড় পাবেন সকল প্যাথলজি টেস্টে, ৪০ শতাংশ ছাড় পাবেন ইনডোর রোগীরা এবং ৪০ শতাংশ ছাড় পাবেন আউটডোর ফিজিওথেরাপি সেশনে।

‘লেট’স মুভ বাংলাদেশ!’ চ্যালেঞ্জের মাধ্যমে টনিক সুস্বাস্থ্য ও শারীরিক অনুশীলনের বিষয়ে জোর দিতে চায়। সম্প্রতি টেলিনর হেলথ ও নিয়েলসন বাংলাদেশের পরিচালিত একটি স্বাস্থ্য জরিপের ফলাফলের তথ্যমতে, শারীরিক অনুশীলন নিয়ে বাংলাদেশিদের মধ্যে জ্ঞানের স্বল্পতা রয়েছে। জীবনযাত্রার পরিবর্তনে জ্ঞানের স্বল্পতা শারীরিক অনুশীলন শুরু করার ব্যাপারে প্রধান প্রতিবন্ধকতা হিসেবে কাজ করে। এর মানে দাঁড়ায় বাংলাদেশিদের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটানোর ইচ্ছা রয়েছে কিন্তু কিভাবে এটা করবে এ নিয়ে তাদের কাছে কোনো নির্দেশনা নেই। এজন্যই টনিক চাচ্ছে সুস্থ থাকার পথ ও নির্দেশনা খুঁজে পেতে সবাইকে সহায়তা করার মাধ্যমে এ দূরত্ব ঘোচাতে।

এ নিয়ে টেলিনর হেলথের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিদ রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বনামধন্য স্বাস্থ্যসেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ও ব্র্যান্ড সমূহের সাথে একসাথে কাজ করে এবং ‘লেট’স মুভ বাংলাদেশ!’ চ্যালেঞ্জের মাধ্যমে এদেশের মানুষের সুস্থ ও সক্রিয় জীবনযাপনে সহায়তা করতে পেরে আমরা রোমাঞ্চিত।’ তিনি আরও বলেন, ‘সুস্থ জীবনযাপনে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণে এবং অভ্যাস পরিবর্তনে বাংলাদেশিদের ক্ষমতায়ন করার ক্ষেত্রে এটি একটি তাৎপর্যপূর্ণ পদক্ষেপ।’

টনিকের প্রয়াস প্রত্যেক বাংলাদেশির জন্য ভালো থাকার মাস্টারপ্ল্যানের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ ‘লেট’স মুভ বাংলাদেশ!’ চ্যালেঞ্জ। প্রযুক্তির ব্যবহার ও উদ্ভাবনী সমাধান নিয়ে আসার মাধ্যমে স্বাস্থ্যগত প্রয়োজন চিহ্নিত করার ক্ষেত্রে এটা টেলিনরের প্রথম পদক্ষেপ। পাশাপাশি, টনিক সাশ্রয়ী খরচে স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্যসেবা দিবে। গ্রামীণফোনের সক্রিয় গ্রাহকরা *৭৮৯# ডায়াল করার মাধ্যমে অথবা ৭৮৯-এ কল করার মাধ্যমে কিংবা টনিকের ওয়েবসাইট www.mytonic.com –এ গিয়ে বিনা মূল্যে টনিক সদস্য হতে পারবেন।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.