জোবাইক এখন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষামূলকভাবে কার্যক্রম শুরু করেছে দেশের প্রথম বাইসাইকেল শেয়ারিং সেবা জোবাইক। ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে বিদ্যমান পরিবহন সংকট নিরসনে কাজ করছে জোবাইক।

প্রতিষ্ঠানটি বলছে, প্রাথমিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়র শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা এবং কর্মচারীরা শুধুমাত্র ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরেই এ সেবা গ্রহন করতে পারবেন। জোবাইক ব্যবহার করার জন্য ব্যবহারকারীর মোবাইল ফোনে থাকতে হবে জোবাইক এর অ্যাপ।

অ্যাপ ইনষ্টল করে, নিজের ফোন নম্বর আর বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্র দিয়ে এ্যাকাউন্ট খুলে ভেরিফাই করে উপভোগ করা যাবে এ সেবা। সেবা ব্যবহারে প্রতি ৫ মিনিট ৩ টাকা হারে ভাড়া পরিশোধ করতে হবে ব্যবহারকারীদের।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জিরো পয়েন্ট, সোহরাওয়ার্দী মোড়, ২নং গেইট, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, প্রশাসনিক ভবন, কলা ও মানববিদ্যা অনুষদ, জীব বিজ্ঞান অনুষদ, এনভায়রনমেন্টাল ইনিষ্টিটিউট, দোলা স্মরণী, প্রীতিলতা হল ও শামসুন্নাহার হল সংলগ্ন স্থানে জোবাইক এর পার্কিংজোন তৈরি করার জন্য কাজ করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সেবা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে ভিজিটি করতে পারেন জোবাইক এর ওয়েবসাইট। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবহারকারীরা যেকোন প্রয়োজনে ক্যাম্পাসে শহীদ মিনার সংলগ্ন (লেডিস ঝুপড়ি) জোবাইক আউটলেটে যোগাযোগ করতে পারেন। জোবাইক সম্পর্কিত যেকোন তথ্য, অভিযোগ জানাতে পারেন সেখানে। জোবাইক অ্যাপে ব্যালেন্স রিচার্জ করার সুবিধাও রয়েছে সেখানে ।

প্রাথমিক ভাবে শুধু মাত্র জোবাইক আউটলেট থেকে রিচার্জ করা গেলেও খুব শীঘ্রই ক্যম্পাসে রিচার্জ পয়েন্ট বাড়ানো হবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। এছাড়াও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবহারকারীদের জন্য ফেইসবুকে খোলা হয়েছে “ জোবাইক সিইউ কমিউনিটি” নামে একটি গ্রুপ। সেবা সম্পর্কে যেকোন ধরনের তথ্য কিংবা সমস্যার কথা জানানো যাবে এই অনলাইন গ্রুপে। পাশাপাশি ০৯৬৭৮১৮১৮১৮ নম্বরে ফোন করেও জোবাইক সম্পর্কে যেকোন তথ্য জানা যাবে।

এই মুহূর্তে শুধুমাত্র অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জন্য উন্মুক্ত আছে জোবাইক এর অ্যাপ তবে শীঘ্রই আইওএস ব্যবহারকারীদের জন্য  উন্মুক্ত হবে এ সেবা বলে জানান প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেদী রেজা।

মেহেদী রেজা বলেন বাইসাইকেলে ইন্টারনেট অব থিংস প্রযুক্তি ব্যবহার করে একই বাইসাইকেল একাধিক ব্যবহারকারীকে ব্যবহারের সুযোগ করে দিচ্ছে জোবাইক এবং একই সাথে স্বল্প দূরত্বে যাতায়াতের জন্য জোবাইক বাংলাদেশে এমন একটি পরিবহন ব্যবস্থার সূচনা করেছে যা কিনা পরিবশে বান্ধব ও স্বল্প খরচে এবং সহজে ব্যবহারযোগ্য বলে মনে করেন তিনি।

জোবাইক এর প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সহযোগিতায় মুগ্ধ এই উদ্যোক্তা ভবিষ্যতেও তাঁদের সহযোগিতার ধারাবাহিকতা অক্ষুন্ন থাকবে বলে প্রত্যাশা করেন।

দেশের প্রথম বাইসাইকেল শেয়ারিং এর এ উদ্যোগ গত ১৮ই জুন কক্সবাজারে এবং ১১ই জুলাই জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে। জোবাইক সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে টেকনাফে নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরত সরকারি ও বেসরকারি কর্মীদের ক্যাম্পের অভ্যন্তরে যাতায়াতের জন্য বাইসাইকেল প্রদান করেছে।

সেখানে কর্মীরা বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পারছেন জোবাইক এর সেবা। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পরে সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে সেবা শুরু করার পরিকল্পনা রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির।

-সিনিউজভয়েস