জিপিহাউজে গ্রামীনফোন এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন সম্মেলনে মাইকেল ফলে

‘সংকটে, সংগ্রামে, সম্ভাবনায়, একসাথে আমরা সবসময়’ শ্লোগানকে সামনে রেখে গ্রামীনফোন এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন (জিপিইইউ) এর প্রথম জিপিহাউস সম্মেলন গতকাল (২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯) জিপিহাউস ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়। জিপিইইউ, জিপিহাউস এর আহবায়ক কমিটির সভাপতি ফারাবির  সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গ্রামীনফোনের সিইও মাইকেল ফলে এবং অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গ্রামীনফোনের ডেপুটি সিইও এবং সিএমও ইয়াসির আজমান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে গ্রামীনফোনের সিইও মাইকেল ফলে বলেন, যেকোনো সমস্যা দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করেই আমরা সমানের দিকে এগিয়ে যেতে পারবো বলে আমি বিশ্বাস করি গ্রামীনফোনের ডেপুটি সিইও এবং সিএমও ইয়াসির আজমান বলেন,জিপিইইউ প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে গ্রামীনফোন আরো শক্তিশালি হয়েছে।জিপিইইউ এর কর্মীদের যে স্পিরিট, কর্মস্পৃহা এবং ইউনিটি তা প্রসংশা করার মত। আমরা গ্রামীণফোনের কর্মীদের এবং কোম্পানির উত্তরোত্তর সাফল্যের জন্য একসাথে কাজ করে করবো।


জিপিইইউ এর সাধারণ সম্পাদক মিয়া মাসুদ বলেন, বিরুপ পরিস্থিতিতে জন্ম নেয়া জিপিইইউ অনেক চড়াই-উতরাই, আলোচনা -সমালোচনা, জবাবদিহিতা,মান-অভিমান এবং অনেকের বিনিদ্র রাতের আত্তত্যাগ বিনিময়ে গড়া এই জিপিইইউ কে আমরা একতাবদ্ধ থেকে জিপি কর্মীদের প্রতি কোনরুপ অন্যায়ের বিরুদ্ধে যেমন সোচ্চার থাকবো, তেমনি প্রতিষ্ঠানের প্রতি যাতে কোন অন্যায় না হয় সেদিক্টাতেও সচেতন থাকবো।

সম্মেলনে জিপিইইউ এর সভাপতি ফজলুল হক তাঁর বক্তব্যে সকলকে ধন্যবাদ জানান এবং বলেন, আমারা আমাদের সংকটের সময়ে যেমন একত্রিত থেকে সকল সমস্যার সমাধান করতে পেরেছি, তেমনি আগামী দিনগুলোতেও যুথবদ্ধভাবে আমাদের সম্ভাবনাকে বাস্তবে রূপ দিতে সক্ষম হবো।

আজকের প্রথম জিপিহাউস, জিপিইইউ সম্মেলনে সকল কর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে ২৯ সদস্যবিশিষ্ট জিপিহাউস কমিটি এবং ১৫ সদস্য বিশিষ্ট জিপিইইউ মহিলা কমিটি গঠিত হয়েছে।

ইউনিয়নটির রূপরেখা তৈরী, বাস্তবায়ন ও দীর্ঘ সাত বছর আইনি লড়াইয়ের পর জিপিইইউ এর নিবন্ধন পাওয়ার ক্ষেত্রে অনবদ্য অবদান রাখার জন্য উক্ত সম্মেলন থেকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফজলুল হক এবং সাধারন সম্পাদক মিয়া মোহাম্মদ সফিকুর রহমান মাসুদ কে সম্মাননা পদক প্রদান করা হয়।

 

-সিনিউজভয়েস/ডেক্স/২৯সেপ্টে./১৯

Please Share This Post.