জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরীর ইন্তেকালে শোক প্রকাশ

প্রফেসর জামিলুর রেজা চৌধুরী আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন এটা বিশ্বাস করা কষ্টকর। দেশের অবকাঠামো উন্নয়নে তিনি অসামান্য অবদান রেখেছেন। শত ব্যস্ততার মাঝেও তিনি গ্রামীণ গ্রুপের সকল অবকাঠামো উন্নয়ন কাজে সবসময় সহযোগিতা করে এসেছেন। বর্তমানে গ্রামীণ টেলিকমের বৃহৎ প্রকল্প ‘‘সামাজিক হাসপাতাল কমপ্লেক্স” নির্মাণ প্রকল্পের নির্মাণ উপদেষ্টা কমিটির চেয়ারম্যান হিসাবে গত ২০১৫ সাল থেকে জামিলুর রেজা চৌধুরী স্যার গ্রামীণ গ্রুপের সকল অবকাঠামো উন্নয়ন কাজে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। অদ্য ২৮/৪/২০২০ ইং তারিখ বেলা ১২:০০ টায় নির্মান উপদেষ্টা কমিটির একটি টেলিকনফারেন্স অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

সকালে এই মৃত্যু সংবাদ শোনার পর কমিটির সকল সদস্যের মতামত নিয়ে আমরা টেলিকনফারেন্স শুরু করি। সকল সদস্য জানান যে তাঁরা প্রফেসর জামিলুর রেজা চৌধুরীর পরলোক গমনে শোকাহত। তাঁরা নির্ধারিত সভাকে শোক সভায় রূপান্তরিত করার অভিমত প্রকাশ করেন এবং মূল সভা স্থগিত করেন। এই সভায় প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস সভাপতিত্ব করেন। তিনি প্রফেসর জামিলুর রেজা চৌধুরীর সঙ্গে দীর্ঘ বন্ধুত্বের বর্ণনা দেন। তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে এবং স্থাপত্য বিদ্যায় তাঁর অনবদ্য অবদানের কথা স্মরণ করেন। বাংলাদেশী প্রকৌশলীদের জন্য দেশে বিদেশে তাঁর নেতৃত্বের কথা তুলে ধরেন।

তাঁর স্মরণে সভায় এক মিনিট নিরবতা পালনের মাধ্যমে তাঁর আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। এরপর সভার সকল সদস্য তাঁদের সঙ্গে প্রফেসর জামিলুর রেজা চৌধুরীর ব্যক্তিগত সম্পর্ক এবং তাঁর ব্যাপারে স্মরণীয় বিষয়গুলো তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। উপস্থিত সদস্যরা ছিলেন প্রফেসর ডঃ এ,এস,এম সফিউল্লাহ, স্থপতি ডঃ আবু সাঈদ এম আহমেদ, অধ্যাপক রাকিব আহসান, স্থপতি দেওয়ান শামছুল আরিফ, ডাঃ সিমীন মজিদ আক্তার, ডাঃ এ জেড এম আহসান উল্লাহ, মোঃ শাহজাহান, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল হাসান, এ,কে, এম মইনুদ্দিন চৌধুরী, কিশওয়ার ইমদাদ ও ইঞ্জিনিয়ার জহিরুল ইসলাম খান।

আমরা একজন অসামান্য ব্যক্তিত্বকে হারালাম। গ্রামীণ টেলিকমের পক্ষ থেকে তাঁর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি ও তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।

 

-সিনিউজভয়েস/ডেক্স/২৮এপি./২০

Please Share This Post.