চাকরি খোঁজা যাবে ফেসবুকে

মানুষকে ধরে রাখতে নানা সুবিধা চালু করছে ফেসবুক। এর ধারাবাহিকতায় চাকরিদাতাদের জন্য ফেসবুকে চাকরির পোস্ট করার ও চাকরিপ্রার্থীদের জন্য চাকরি খোঁজার সুবিধা এনেছে ফেসবুক। এখন থেকে ৪০টি দেশে ফেসবুকের জবস ফিচারটির মাধ্যমে চাকরি খোঁজা যাবে। ফেসবুকের জব অ্যাপ্লিকেশন ফিচারটি গত বছর শুধু যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় চালু করা হয়।

ফেসবুকের তথ্য অনুযায়ী, প্রতি চারজনে একজন ব্যক্তি এখন ফেসবুকে চাকরি খোঁজেন। চাকরিপ্রার্থীদের পোস্ট করা তথ্যগুলো দিয়েই স্বয়ংক্রিয়ভাবে আবেদনপত্র সাজাবে ফেসবুক। এই আবেদনপত্রে আগের চাকরির অভিজ্ঞতা ও শিক্ষাগত যোগ্যতা দিতে হবে। ‘জব’ সেকশনে গেলেই চাকরি প্রার্থীরা নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেখতে পারবেন। জব নোটিফিকেশন পেতে অ্যালার্ট অপশনের জন্যও সাবস্ক্রাইবও করা যাবে। কেউ আবেদন করলে কোম্পানিগুলোর নিয়োগদাতারাও চাকরিপ্রার্থীর সঙ্গে সরাসরি ইনবক্সে যোগাযোগ করতে পারবেন।

মূলত, মাইক্রোসফট মালিকানাধীন লিঙ্কডইনকে টেক্কা দিতেই জব অ্যাপ্লিকেশন ফিচারটি ব্যবহারের পরিধি বাড়াতে মনোযোগ দিয়েছে ফেসবুক। গতকাল বুধবার ফেসবুক এ ঘোষণা দেয়। ফেসবুকের ভাইস প্রেসিডেন্ট অ্যালেক্স হিমেল জানান, ৪০টির বেশি দেশে চাকরির সুবিধা চালু করার মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমটিকে ভিন্ন দিকে নেওয়া হলো। এখন থেকে দরখাস্ত ব্যবস্থাপনা, সাক্ষাৎকারের সময় ঠিক করা ও বিভিন্ন বিষয়ে নোটিফিকেশন পাওয়া যাবে।

ব্যবহারকারীদের ড্যাশবোর্ডে চাকরির তালিকা দেখা বা আবেদন করা যাবে। পুরো সেবাটি বিনা মূল্যে পাওয়া যাবে। কিন্তু চাইলে অর্থের বিনিময়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের চাকরির বিজ্ঞপ্তি ফেসবুকে বুস্ট করতে বা প্রচার করতে পারবে। ফেসবুকের বিভিন্ন স্থানভেদে এগুলো দেখানো হবে। নিউজফিড, মার্কেটপ্লেস বা বিজনেস পেজে এগুলো দেখানো হবে।

ফেসবুকে এখন পর্যন্ত কতগুলো চাকরির বিজ্ঞপ্তি আছে, তা জানাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে ফেসবুক। তবে জানিয়েছে, প্রতি চারজনে একজন ফেসবুকে চাকরি খুঁজছেন। তথ্যসূত্র: এনডিটিভি অনলাইন

সিনিউজভয়েস//ডেস্ক/

Please Share This Post.