চাকরির চেয়ে ফ্রিল্যান্সিংয়ে ঝুঁকছে মানুষ!

দিন যত যাচ্ছে মানুষ ততই  ঝুঁকে পড়ছেন ফ্রিল্যান্সিং কাজের দিকে। এবং এটা ভবিষ্যতে আরো বাড়তেই থাকবে জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক চাকরির প্ল্যাটফর্ম টোটাল জবস। তারা গত ২ বছরের তথ্য বিশ্লেষণ বলছেন, আগের ছেয়ে ফ্রিল্যান্সিং কাজ খোঁজার হার ১৩২ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে।

ফ্রিল্যান্সিং কাজের প্রতি মানুষের আগ্রহের বিষয়টি জানতে গত ২ বছরের তথ্য বিশ্লেষণ করেন টোটাল জবসের বিশেষজ্ঞরা। এবং তাঁদের গবেষণায় উঠে এসেছে যে আগের চেয়ে যুক্তরাজ্যে প্রচলিত সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চাকরির প্রথা ভাঙছে বেশি। সেখানকার কর্মীরা শিথিল নিয়ম ও বেশি বেতনের কাজে আগ্রহ দেখাচ্ছেন। এ জন্য চুক্তিভিত্তিক বা ফ্রিল্যান্সিং কাজ বাড়ছে দেশটিতে।

দিন দিন ফ্রিল্যান্স কাজের আগ্রহ বাড়তে থাকায় বিভিন্ন খাতের দক্ষ কর্মীকে চুক্তিতে নিয়োগ দেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে প্রতিষ্ঠানগুলো। এতে তাদের ব্যবসায়ও লাভবান হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চাকরিদাতাদের জন্য ফ্রিল্যান্সাররা প্রয়োজনে শূন্যতা পূরণের হাতিয়ার হতে পারেন। যত বেশি ফ্রিল্যান্সার এ ধরনের কাজে আগ্রহী হবেন, তত চাকরিদাতাদের মেধাবী ফ্রিল্যান্সার আকর্ষণের সুযোগ খুঁজে নিতে হবে। পাশাপাশি দক্ষ ফ্রিল্যান্সারদের ধরে রাখতে তাদেরকে যতেষ্ঠ সুযোগ সুবিধা দিতে হবে।

তবে বাংলাদেশের তরুণেরাও ফ্রিল্যান্সিংয়ে মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে। অক্সফোর্ড ইন্টানেট ইনস্টিটিউট এর মতে বিশ্বের মধ্যে অনলাইন ফ্রিল্যান্সিংয়ে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয় ।

ফ্রিল্যান্সিং

এছাড়াও ৫ লক্ষ ফ্রিল্যান্সার নিয়মিত বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে কাজ করে বছবে প্রায় ১০০ মিলিয়ন ডলার আয় করছে।

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/৩০জুন/১৯

Please Share This Post.