চলছে এলজির ভিআরএফ ও প্রযুক্তি পণ্যের প্রদর্শনী 

কোরীয় পণ্য ও প্রযুক্তি প্রদর্শনের লক্ষ্যে শুরু হয়েছে দুই দিনব্যাপী কোরিয়া মেলা (শোকেস কোরিয়া)। এ মেলায় বড় শিল্প ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রয়োজনীয় আধুনিক ইলেক্ট্রনিক পণ্য প্রদর্শন করছে দক্ষিণ কোরীয় বহুজাতিক কোম্পানি এলজি। এর মধ্যে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির এয়ার কন্ডিশনিং সিস্টেম ভ্যারিয়েবল রেফ্রিজারেন্ট ফ্লো (ভিআরএফ) এবং ডিজিটাল সাইনেজ ব্যবসায়ী ও দর্শনার্থীদের মধ্যে সাড়া ফেলেছে।

শুক্রবার (১৯ অক্টোবর, ২০১৮) রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটিতে শুরু হওয়া এ মেলা আজ সন্ধ্যায় শেষ হবে। প্রধান অতিথি হিসেবে মেলা উদ্বোধন করেন বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত শোকেস কোরিয়ার প্রধান স্পন্সর এলজি ইলেক্ট্রনিক্স বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডি কে সন। কোরিয়া-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এ প্রদর্শণীর আয়োজন করেছে।

LG-VRF

ক্যাপশন: রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটিতে শুক্রবার সকালে ফিতা কেটে কোরিয়া মেলার উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি এলজির প্যাভিলিয়নও ঘুরে দেখেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত হু ক্যাং-ইল, এফবিসিসিআই-এর সভাপতি মো. সফিউল ইসলাম (মহিউদ্দীন), এলজি ইলেক্ট্রনিক্স বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডি কে সন।

এলজির অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ভ্যারিয়েবল রেফ্রিজারেন্ট ফ্লো (ভিআরএফ) একটি নির্দিষ্ট স্থাপনার পুরোটা কেন্দ্রীয়ভাবে সমান মাত্রায় শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। এই সিস্টেমে অন্তর্ভুক্ত কমফোর্ট কুলিং এবং ডুয়াল সেন্সিং সিস্টেম ভবনের তাপমাত্রা এবং আদ্রতা স্বয়ংক্রিয়ভাবে পরিমাপ করে আরামদায়ক শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ করে। সহজে ব্যবহারযোগ্য এই ভিআরএফ সিস্টেম বড় মার্কেট, শিল্প কারখানা, হাসপাতাল, গার্মেন্টস এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের মত বড় স্থাপনার জন্য খুবই উপকারী ও সাশ্রয়ী। ইতিমধ্যে এশিয়া প্যাসফিক ইউনিভার্সিটি, গ্রামীণফোন, বেঙ্গল গ্রুপসহ বেশকিছু বড় স্থাপনা-কার্যালয়ে এলজির ভিআরএফ সিস্টেম ব্যবহৃত হচ্ছে।

ওয়েবওসভিত্তিক অ্যাপ্লিকেশনস এবং সুপারসাইন সফটওয়্যার সল্যুশনস সমৃদ্ধ এলজির ডিজিটাল সাইনেজ এ পণ্য প্রযুক্তিতে অগ্রদূত। দোকানপাট, রেস্টুরেন্ট, হোটেল, এয়াপোর্ট, স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের মত স্থাপনাগুলোতে এগুলোর দারুণ ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।

ডি কে সন বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি দ্রুত বড় হচ্ছে। এর ফলে বাণিজ্যিক স্থাপনায় আধুনিক ইলেক্ট্রনিক ও প্রযুক্তি পণ্য ব্যবহারের সুযোগ বেড়েছে। এলজির পণ্য দীর্ঘস্থায়ী এবং জ্বালানি সাশ্রয়ী। তাই খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে আমরা সব ধরণের চেষ্টা করছি।

 

-সিনিউজভয়েস
Please Share This Post.