‘গ্লোমো অ্যাওয়ার্ডস’ পেল রবি-টেন মিনিট স্কুল

শিক্ষা বিস্তারে সেরা উদ্ভাবনী মোবাইল সেবা বিবেচিত হওয়ায় মোবাইল টেলিযোগাযোগ শিল্পের সবচেয়ে বড় আসর মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০১৭’এ (এমডব্লিওসি) জিএসএমএ গ্লোমো অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে রবি-টেন মিনিট স্কুল।

সম্প্রতি বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত ওই আসরে ‘কানেক্টেট লাইফ অ্যাওয়ার্ডস’ ক্যাটাগরিতে পুরস্কারটি দেয়া হয়েছে। রবি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ অ্যাওয়ার্ডটি গ্রহণ করেন।

বিচারকদের মতে, ব্যাপ্তি ও গ্রাহকদের সেবা গ্রহণের মাত্রার বিচারে এই এমএডুকেশন সেবাটি প্রতিদ্বন্দ্বী অন্যান্য সেবা থেকে এগিয়ে ছিল। এই ক্যাটাগরির অন্যান্য প্রতিযোগিরা ছিল ওরিডো স্মার্ট ক্যাম্পাসের জন্য ওরিডো মালদ্বীপ, রিন ক্যারিয়ার রেডি অ্যাকাডেমির জন্য পিএইচডি মিডিয়া, বাটিবোট অ্যাপের জন্য স্মার্ট কমিউনিকেশন্স ও তুর্কসেল অ্যাকাডেমি কর্পোরেট এলএমএসের জন্য তুর্কসেল।

সর্বাধুনিক ও সেরা মেবাইল পণ্য, অ্যাপস, ডিভাইস, সেবা বা কর্মসূচি গ্রহণের জন্য মোবাইল ফোন অপারেটরদের জিএসএম’র গ্লোবাল মোবাইল অ্যাওয়ার্ডস প্রদান করা হয়। উদ্ভাবনী পণ্য বা সেবার মাধ্যমে মোবাইল ও শিক্ষার মধ্যে যে সমন্বয় ঘটছে ‘কানেক্টেড লাইফ’ পুরস্কারটি এরই প্রতিফলন।

রবির ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, “মানসম্মত শিক্ষার প্রসারে ‘এম এডুকেশন সেবা’ গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে আমাদের বিশ্বাস। বাংলাদেশী তরুণরা বেশ আগ্রহ নিয়ে এই ডিজিটাল শিক্ষা প্লাটফর্মে যোগ দিচ্ছেন। গ্লোমো অ্যাওয়ার্ডটি এই ডিজিটাল প্লাটফর্মটির মাধ্যমে তরুণদের প্রয়োজন অনুযায়ী মানসম্মত শিক্ষা প্রদানে আমাদের প্রেরণা হয়ে থাকবে।’

প্রথমবারের মতো গ্লোমো অ্যাওয়ার্ড অর্জন করল রবি, যে পুরস্কারটিকে এ শিল্প-সংশ্লিষ্ট অনেকে টেলিযোগাযোগ শিল্পের অস্কার হিসেবে অভিহিত করেন।

রবি-টেন মিনিট স্কুল সম্পর্কে:

৩০ হাজার ১২৬ জন সরাসরি এবং ৩ লাখ ১৩ হাজার ৬৪১ জন ফেসবুক শিক্ষার্থীসহ রবি-১০ মিনিটের স্কুলটি হচ্ছে (www.10minuteschool.com) দেশের বৃহত্তম অনলাইন স্কুল। কর্পোরেট দায়বদ্ধতা থেকে এই অনলাইন এডুকেশন প্লাটফর্মটির পাশে দাঁড়িয়েছে রবি। জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি), মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি), উচ্চমাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এইচএসসি), বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছু ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সবার জন্য একটি সমন্বিত শিক্ষা সহায়ক হিসেবে কাজ করছে প্লাটফর্মটি।

২০১৬ সালের জুন থেকে ‘ফেসবুক লাইভ ফর এভরিওয়ান’ চালু করে অনলাইন সাইটের গন্ডী ছাড়িয়ে আরো বেশিসংখ্যক শিক্ষার্থীদের কাছে পৌঁছে গেছে ‘রবি-টেন মিনিট স্কুল’। এছাড়া ফেসবুকের মাধ্যমে সারা দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য লাইভ কোচিং ক্লাসের আয়োজন করেছে প্লাটফর্মটি। প্রতিদিন আয়োজিত ‘রবি-১০ মিনিট স্কুল লাইভ কোচিং ক্লাসে এ পর্যন্ত ২ লাখ ১৪ হাজার ৭৪৪ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছে। ফেসবুকের এই লাইভ ক্লাসে গড়ে ১০ হাজার শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে থাকে। এছাড়া ইউটিউবে প্লাটফর্মটির ৮৮ হাজার ৬৮২ জন সাবসক্রাইবার রয়েছেন যারা তাদের সুবিধামতো সময়ে ‘রবি-১০ মিনিট স্কুল’র শিক্ষামূলক ভিডিও দেখেন।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক