গোয়েন্দাদের নজরদারিতে ভারতের সব কম্পিউটার

 

ভারত সরকার নতুন একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে সে দেশের প্রতিটি কম্পিউটারে নজরদারি চালানোর ক্ষমতা দিয়েছে ১০টি গোয়েন্দা ও তদন্ত এজেন্সিকে। এতে জানানো হয়েছে, কম্পিউটারে সংরক্ষিত বা কম্পিউটার থেকে আদান প্রদান করা  সব ধারনের  তথ্যের ওপরে নজর রাখতে পারবে এজেন্সিগুলো।

কম্পিউটারে থাকা সব তথ্য, বা সেটি থেকে আদান-প্রদান করা তথ্যগুলির ওপরে যেমন নজর রাখতে পারবে  এজেন্সিগুলো, তেমনই ইন্টারসেপ্ট করা অর্থাৎ মাঝপথেই আটকানো এবং ডিক্রিপ্ট করা বা গোপন তথ্য উদ্ধার করারও ক্ষমতাও তাদের দেওয়া হয়েছে। বলা হচ্ছে যে তথ্য প্রযুক্তি আইনের কয়েকটি ধারা অনুযায়ীই এজেন্সিগুলিকে ক্ষমতা দেওয়া হল।

যে ১০টি এজেন্সিকে এই ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে বৈদেশিক গোয়েন্দা সংস্থা আর এ ডব্লিউ (র’), সিবিআই, সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ডিরেক্ট ট্যাক্সেস, সন্ত্রাসদমন এজেন্সি এনআইএ, ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো,নার্কোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো,  রেভেনিউ ইন্টেলিজেন্স এবং জম্মু-কাশ্মীর এবং উত্তরপূর্বাঞ্চলের জন্য ডিরেক্টরেট অফ সিগন্যাল ইন্টেলিজেন্স।

নতুন এই প্রজ্ঞাপন জারির পরেই বিতর্ক তৈরি হয়েছে ফলে অনেকেই ভাবছেন, তাহলে কি দেশের প্রতিটি কম্পিউটারের ওপরে সর্বক্ষণ নজর রাখতে চাইছে সরকার? এবং কংগ্রেস, সিপিআইএম এবং তৃণমূল কংগ্রেস, নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকারের দিকে আঙ্গুল তুলে বলছে, এই নিয়ম জারি করে দেশের সব মানুষের ওপরই নজর রাখতে চাইছে সরকার। সূত্র- বিবিসি।

-সিনিউজভয়েস

Please Share This Post.