গুগল ম্যাপে নতুন ফিচার, সরকার গুগলের সাথে কাজ করতে আগ্রহী : পলক

বাংলাদেশে রাইডারদের জন্য গুগল ম্যাপে বেশ কয়েকটি নতুন ফিচার চালু করেছে বিশ্বখ্যাত প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গুগল। আজ রাজধানীর গুলশানের লেকশোর হোটেলে এক অনুষ্ঠানে নতুন এ ফিচারগুলো উন্মোচন করা হয়।

উন্মোচন অনুষ্ঠানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি ডিভিশনের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি বলেন, বাংলাদেশের মানচিত্রায়নে গুগলের নিরলস প্রচেষ্টাকে আমি সাধুবাদ জানাই। আমাদের মাতৃভাষা বাংলায় ভয়েস নেভিগেশন সেবা, নিরাপত্তা ব্যবস্থা সংযুক্ত করা এবং দেশের রাইড শেয়ারিং খাতের উন্নয়নে গুগল ম্যাপে বিশেষ মোটরসাইকেল মোড সংযুক্ত করার ফলে প্রযুক্তিগত উৎকর্ষতার সুফল পৌঁছে যাচ্ছে আর্থসামাজিক অবস্থান ভেদে সকলের হাতে হাতে।

বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় নতুন মাত্রা যোগ করতে সক্ষম বিভিন্ন পরিষেবা উদ্ভাবনে সরকার ও গুগল একত্রে কাজ করবে বলে আমি আশাবাদী।

এ বিষয়ে গুগল ম্যাপস-এর ডিরেক্টর প্রডাক্ট ম্যানেজমেন্ট ক্রিশ ভিতালদেভারা বলেন, চাহিদা অনুযায়ী আমরা স্থানীয় জনসাধারণকে সর্বোৎকৃষ্ট অভিজ্ঞতা প্রদানে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। আর তাই বাংলা ভয়েস নেভিগেশন এবং উপযুক্ত পথ দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছানো ও তা শেয়ার করার ফিচার কমিউটার সেফটির মতো সংশ্লিষ্ট সুবিধা যুক্ত করা হয়েছে। এতে করে বাংলাদেশের সর্বত্র যাত্রীদের পথ যাত্রা হবে আরও সহজতর।

 

মোটরসাইকেল রাইডারদের জন্য গুগল ম্যাপস-এ বাড়তি সুবিধা : মোটরসাইকেল রাইডারদের জন্য নতুন নেভিগেশন মোড বা পথনির্দেশনামূলক ফিচার নিয়ে এসেছে গুগল ম্যাপস। যানজট এড়ানোর পাশাপাশি সময় বাঁচাতে বাংলাদেশে অর্ধেকেরও বেশি বাসা-বাড়ির কেউ না কেউ মোটরসাইকেল ব্যবহার করে। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)-এর তথ্য মতে, গত আট বছরে ঢাকায় নিবন্ধকৃত মোটরসাইকেলের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে দ্বিগুণ।

মোটরসাইকেল রাইডারদেরও রয়েছে কিছু নির্দিষ্ট চাহিদা। গাড়ি যেসব পথ দিয়ে চলাচল করতে পারে না, গুগল ম্যাপসের নতুন ফিচারের মাধ্যমে সেসব সরু পথ দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারবেন মোটরসাইকেল রাইডাররা। এছাড়া এমন অনেক রাস্তা বা হাইওয়ে আছে যেগুলোতে দুই চাকা বিশিষ্ট যানবাহন চলাচল নিষেধ, কারণ সেসব রাস্তায় গাড়ি ও মোটরসাইকেলের গতির পার্থক্য অনেক।

টার্ন-বাই-টার্ন ভয়েস ডিরেকশনস: নতুন ফিচারের মধ্যে রয়েছে গুগল ম্যাপস-এর বাংলায় ভয়েস নেভিগেশন বা পথের নির্দেশনা প্রদান। ‘ইন ১০০ মিটারস, টার্ন রাইট অন টু বীর উত্তম রফিকুল ইসলাম এভিনিউ’-এর মতো ভয়েস নেভিগেশন এখন শোনা যাবে বাংলায়।

উল্লেখ্য, নতুন ফিচারের মাধ্যমে গুগল ম্যাপসে বাংলা ভাষায় নেভিগেশন বা দিক-নির্দেশনা শোনা যাবে এবং একই সাথে গুগল ম্যাপস অ্যাপ ব্যবহারের ক্ষেত্রে ইংরেজী ভাষায় ব্যবহার করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। এছাড়া, গুগল ম্যাপসে বাংলায় ভয়েস নেভিগেশন সুবিধা নিতে চাইলে অ্যাপের ল্যাঙ্গুয়েজ সেটিং অপশনে গিয়ে বাংলা (বাংলাদেশ) ভাষায় পরিবর্তন করে নিতে হবে।

নিরাপদ যাত্রা: গুগল ম্যাপস নিয়ে এসেছে নতুন সেফটি ফিচার। অ্যাপসে নিজের গন্তব্যে এবং সেখানে কোনো রুট বা কোন পথ দিয়ে যাবেন তা নির্ধারণ করার পর ‘স্টে সেফার’এবং ‘সেট অব-রুট অ্যালার্টস’-এর মাধ্যমে নিজের নিরাপদ যাত্রার বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারবেন ব্যবহারকারী।

এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বলেন, গুগলের বর্তমানের সহযোগিতায় আমরা সন্তুষ্ট। আশা করছি ভবিষ্যতে আরো ভালোভাবে আমাদের দেশের স্বার্থ- সংশ্লিষ্ট বিষয়েও আরো বেশী কাজ করতে সক্ষম হবো। দেশ এবং ব্যক্তি বিরোধী যেকোনো বিষয়ে গুগল এবং ইউটিউবে যাতে কোনো অপ-প্রচারনা মূলক কন্টেন্ট রোধে আমরা একসাথে কাজ করছি। পাশাপাশি গুগলের সহযোগিতার কারণে আমাদের উদ্যোক্তারা, বিভিন্ন অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট, বিভিন্ন ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান এবং আমাদের হাজার হাজার তরুণ-তরুণীদের ব্যবসায়িক আয়ে ব্যাপক সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বাংলাদেশের জন্য গুগল ম্যাপ সমৃদ্ধকরণ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাস থেকে পুরো বাংলাদেশের ৫০,০০০ কিলোমিটারেরও বেশি রাস্তা, ৮০ লাখের বেশি বিল্ডিং বা দালানকোঠা এবং ৬০০,০০০-এর বেশি চাহিদাসম্পন্ন স্থান ম্যাপে যুক্ত করেছে গুগল।

অনুষ্ঠানে গুগল ম্যাপসের ডিরেক্টর প্রোডাক্ট ম্যানেজমেন্ট ক্রিস ভিতালদেভারা, সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার (দক্ষিণ এশিয়া) অনল ঘোষ, গুগল বিজনেস অ্যান্ড অপারেশন লিড বিকি রাসেল, গুগলের বিজনেস ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড অপারেশন্স জেসিকা বায়ার্ন ও গুগল লোকাল গাইড সুমাইয়া জাফরিন চৌধুরী সহ লোকাল গাইডসের অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/১৬জুলাই/১৯

Please Share This Post.