খুলনা ও বরিশালে গ্রামীণফোনের বিল-পে সেবা

বৈদ্যুতিক বিল সংগ্রহ বিষয়ে ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (ডব্লিউজেডপিডিসিএল)- এর সাথে একটি চুক্তিস্বাক্ষর করেছে গ্রামীণফোন। অতি সম্প্রতি স্পেক্ট্রা কনভেনশন সেন্টারে এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

চুক্তির অধীনে গ্রামীণফোন খুলনা ও বরিশালের ২১ জেলা ও ২০টি উপজেলায় ডব্লিউজেডপিডিসিএল- এর প্রায় ১০ লাখ গৃহস্থালি গ্রাহকের কাছে বিল-পে সেবা পৌঁছে দিবে গ্রামীণফোন। বিপিডিবি চট্টগ্রামের পর বিল-পে সেবার অধীনে এটাই সবচেয়ে বড় এলাকা।
ডব্লিউজেডপিডিসিএল-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মো. শফিক উদ্দীন, গ্রামীণফোনের প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা দিলীপ পাল এবং চিফ কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মাহমুদ হোসেন এর উপস্থিতিতে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন গ্রামীণফোনের হেড অব ফ্যাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস এরওয়ান জ্য আলেক্সান্ডার গেলবার্ট ও ডব্লিউজেডপিডিসিএল-এর কোম্পানি সেক্রেটারি আব্দুল মোতালেব।

বিল-পে বাংলাদেশের গ্রাহকদের জন্য গ্রামীণফোনের অগ্রণী মোবাইল আর্থিক সেবা (এমএফএস)। এটা দেশের ইউটিলিটি সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রথম মোবাইলভিত্তিক বৈদ্যুতিক বিল পরিশোধ সেবা। বর্তমানে, গ্রামীণফোন এ সেবার মাধ্যমে বাংলাদেশ পাওয়ার ডেভেলপমেন্ট বোর্ড, ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড, তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন ও ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিশন ও ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লিমিটেড, বখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, কর্ণফুলি গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড এবং চিটাগাং ওয়াটার সাপ্লাই ও সুয়ারেজ অথোরিটি-এর গ্রাহকদের জন্য ইউটিলিটি বিল পরিশোধ সেবা দিচ্ছে।

চুক্তিস্বাক্ষরের কথা উল্লেখ করে গ্রামীণফোনের হেড অব ফ্যাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস এরওয়ান জ্য আলেক্সান্ডার গেলবার্ট বলেন, ‘এটি একটি অভিনব উদ্যোগ পাশাপাশি এটি নির্ভরযোগ্য সেবা প্রদানের মাধ্যমে বাংলাদেশের মানুষের দৈনন্দিন জীবনে বাড়তি সুবিধা যোগ করার ক্ষেত্রে গ্রামীণফোনের বহুবিধ প্রচেষ্টারই একটি অংশ। বিশ্বাস, আস্থা ও স্বাচ্ছ্যন্দের সঙ্গে ইউলিটি বিল পরিশোধ করার মাধ্যমে বিশেষ করে বাংলাদেশে ব্যাংকিং সেবার বাইরে থাকা জনগোষ্ঠির ক্ষমতায়নের জন্য এ সেবাটি চালু করা হয়েছে। আমাদের এ সেবার সম্প্রসারণ কর্মসূচির অংশ হিসেবে দেশের পশ্চিমাঞ্চলে আমাদের লক্ষাধিক গ্রাহক এ সেবা উপভোগ করতে পারবেন।’

সময় সাপেক্ষ, কষ্টকর এবং পারতপক্ষে কঠিন প্রথাগত ব্যাংকের মাধ্যমে বিল পরিশোধ ব্যবস্থার বিপরীতে, ২০০৬ সালে চালু করা গ্রামীণফোনের বিল-পে সেবাটি একটি মোবাইলভিত্তিক বিল সংগ্রহ পদ্ধতি। লাইনে দাঁড়ানো ছাড়াই এই অভিনব পদ্ধতির মাধ্যমে গ্রাহকরা রাতে অথবা দিনে যেকোনো সময় বিল পরিশোধ করতে পারবে।

 

সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.