খুচরা বিক্রেতাদের জন্য রবি চালু করল রিটেইলার লিকুইডিটি মানেজমেন্ট সেবা

খুচরা বিক্রেতাদের জন্য আরো একটি ডিজিটাল উদ্ভাবনী সেবা রিটেইলার লিকুইডিটি ম্যানেজমেন্ট চালু করল রবি। সেবাটির মাধ্যমে খুচরা বিক্রেতারা যে কোন সময় শুধু ইউএসএসডি কোড ডায়াল করে অগ্রিম ইজিলোড লোড রিচার্জ করার সুযোগ পাবেন। এর ফলে তাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রম আরো সহজতর ও স্বাচ্ছন্দ্যময় হয়ে উঠবে। সেবাটি চালু করতে রবি’র সহযোগী হিসেবে রয়েছে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক (এমটিবি) ও ফিনটেক কোম্পানি ওয়াইএবিএক্স ।

লিকুইডিটি সেবা চালুর ফলে যে কোন জায়গা থেকে যে কোন সময় খুচরা ব্যবসায়ীরা তাৎক্ষণিকভাবে ইজিলোড টপ-আপ করতে এবং ‘লো ব্যালেন্স’ পরিস্থিতি এড়াতে পারবেন। পাশাপাশি ব্যবসা ও গ্রাহক সেবা উন্নয়নের সুযোগ আরো প্রসারিত হবে। রবির খুচরা বিক্রেতারা তাদের ব্যবসায়িক প্রয়োজন অনুসারে এক দিন, তিন দিন অথবা পাঁচ দিনের জন্য লোনটি নিতে পারবেন।

রবি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ এই উদ্যোগকে কোম্পানির নেটওয়ার্ক ডিস্ট্রিবিউশনকে সম্পূর্ণ ডিজিটালাইজেশনের পথে এক মাইলফলক বলে উল্লেখ করেন।

উদ্ভাবনী এবং গ্রাহক কেন্দ্রিক কোম্পানি হিসেবে রবি’র পথ চলাকে উপলক্ষ্য করে এমটিবির সিইও সৈয়দ মাহবুবুর রহমান বলেন, এই সেবা খুচরা বিক্রেতাদের আর্থিক স্বাধীনতা অর্জনে সহায়তা করার পাশাপাশি সামগ্রিক অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

ওআইএবিএক্স’র অত্যাধুনিক মেশিন লার্নিং টুলের সহায়তায় রিটেইলারদের অগ্রীম লিমিট প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। ব্যবসায়ীদের অন্তর্ভূক্তিকরণ, অর্থ বিতরণ ও সংগ্রহ- পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হবে ওআইএবিএক্স’র প্ল্যাটফর্মটির মাধ্যমে।

সেবাটি সম্পর্কে ওআইএবিএক্স’র প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও রজত দয়াল বলেন, “সাধারণত খুচরা বিক্রেতারা তাদের অ্যাকাউন্টটি রিচার্জের জন্য নগদ টাকার উপর নির্ভর করেন। অনেক সময় নগদ টাকায় ঘাটতি পড়ে, ডিস্ট্রিবিউটর সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভরা (ডিএসআর) সবসময় সময়মতো খুচরা বিক্রেতাদের অ্যাকাউন্ট রিচার্জ করতে পারেন না, নগদ টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে নিরাপত্তা ঝুঁকি থাকে; সবমিলিয়ে ব্যবসায়িক প্রক্রিয়াটি বাধাগ্রস্থ হয়। তাই খুচরা বিক্রেতাদের সহজ ও সাশ্রয়ী মূল্যে ইজিলোড রিচার্জের সুবিধা প্রদানের পাশাপাশি তাদের ব্যবসাকে আরো সংগঠিত ও পরিকল্পিতভাবে পরিচালনা করতে সহায়তা করাই ওয়াইবিএক্স’র লক্ষ্য।”

বৈশ্বিক মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস কোম্পানি কমভিভার তত্ত্বাবধানে পরিচালিত ওআইএবিএক্স ২১ বিলিয়ন ডলার বাজার মূল্যের মাহিন্দ্র গ্রুপের একটি অঙ্গপ্রতিষ্ঠান। বর্তমানে তারা দি হেগ, নয়াদিল্লি, বোগোতা ও নাইরোবিতে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছে। ওআইএবিএক্স’র মূল লক্ষ্য হচ্ছে ব্যাংকিং সেবার বাইরে থাকা দুই বিলিয়নের বেশি গ্রাহককে আনুষ্ঠানিক আর্থিক কার্যক্রমে যুক্ত করা।

দীর্ঘমেয়াদে রিটেইল ফিন্যান্সিংয়ের ফলে খুচরা বিক্রেতারা কোন অতিরিক্ত মূলধন ছাড়াই তাদের ব্যবসা পরিচলনা করতে পারবেন। বর্তমান মহামারী পরিস্থিতিতে খুচরা ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তাদের উপার্জন কমে গেছে। কিন্তু অনন্য এই সুবিধার মাধ্যমে খুচরা ব্যবসায়ীদের নগদ টাকার ওপর আর নির্ভরশীল থাকতে হবেনা।

Please Share This Post.