কৃত্রিম হার্ট ট্রান্সপ্ল্যান্ট ও গ্যাস্ট্রো রোবোটিক সার্জারি প্রযুক্তি নিয়ে আলোচনা

২০ এপ্রিল শুক্রবার, বাংলাদেশ-প্রাভা হেলথ বনানীতে প্রাভা ফ্যামিলি হেলথ সেন্টারে দুটি কন্টিনিউইং মেডিক্যাল এডুকেশন (সিএমই) ইভেন্টের আয়োজন করে। ভারতের ব্যাঙ্গালোরের নারায়না স্বাস্থ্য বিভাগের কার্ডিওথোরাসিক সার্জন এবং ড. দেবী শেঠীর পুত্র, ড. বরুণ শেঠি এবং ড. অশ্বিনকুমার কুদারি, রোবোটিক সার্জন ও গ্যাস্ট্রোটারেরোলজিস্টের উপস্থিতিতে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ডা. শেঠী কৃত্রিম হার্ট ট্রান্সপ্ল্যান্ট সম্পর্কে বলেন এবং ড. কুদারী গ্যাস্ট্রো রোবোটিক সার্জারিতে তার কাজের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন।

হার্ট ট্রান্সপ্ল্যান্ট একটি সার্জিক্যাল প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে মূমুর্ষ হার্টের রোগীদের হার্ট প্রতিস্থাপন করা হয়। আর কৃত্রিম হার্ট হল এমন এক অত্যাধুনিক যন্ত্র যা হার্ট ট্রান্সপ্ল্যান্ট এর মধ্যবর্তী সময় সেতু বন্ধক হিসাবে ব্যবহার করা হয়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে এই কৃত্রিম হার্ট সম্পূর্ণ রূপে হার্টের প্রতিস্থাপক হিসাবে ব্যবহার করা হয়।

নূন্যতম কাঁটা ছেড়া ছাড়া অত্যাধুনিক যন্ত্র ব্যবহার করে ল্যাপরোস্কপিক অপারেশন করার এক অভিনব উপায় হল গ্যাস্ট্রো রোবোটিক সার্জারি। বহুবিধ জটিল ও সময় সাপেক্ষ অপারেশনে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়। এই ধরনের অপারেশন গুলাতে একজন সুদুক্ষ সার্জনের দ্বারা অনেক গুলো রোবটিক বাহুর মাধ্যমে এই অত্যাধুনিক অপারেশনটি পরিচালনা করা হয়। এই অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে অপারেশন করার ফলে কাঁটা ছেড়া হয় অনেক কম, রক্ত ক্ষরণ হয় অনেক কম আর রোগী খুব অল্প সময়ই স্বাভাবিক জীবন যাত্রায় ফেরত আসতে পারে। রোবট দ্বারা পরিচালিত এইসব অপারেশন রিকভারি টাইম মাত্র ২-৩ সপ্তাহ, আগে যা ছিল ৩-৪ মাস।

প্রাভা হেলথ ড. শেঠী ও ড. কুদারীর বিশেষজ্ঞসুলভ জ্ঞান বাংলাদেশের মেডিক্যাল কমিউনিটির সঙ্গে ভাগ করতে পেরে উদ্দীপিত। নারায়ানা হেলথ এর সঙ্গে প্রাভা হেলথ এর এই অভিনব অংশীদারিত্ব ভিডিও কনফারেন্স এবং ডায়গনিস্টিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে রোগীদের নারায়ানা হেলথের ডাক্তারদের কাছ থেকে পরামর্শ নিতে সহায়তা করে। প্রতি বছর, বাংলাদেশ থেকে ১০০,০০০ রোগী নারায়ানা হেলথ এ চিকিৎসা লাভের জন্য ভারতে ভ্রমণ করেন।

প্রাভা হেলথ এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও সিলভানা সিনহা বলেন, ‘নারায়ানা হেলথ এর এই শ্রদ্ধেয় ডাক্তারদের জন্য আয়োজন করতে পেরে আমরা রোমাঞ্চিত এবং যাদের কাজ দ্বারা আমরা অনুপ্রাণিত এমন একটি কোম্পানির সঙ্গে আমাদের সম্পর্ককে গভীর করতে পেরে আমরা উৎসাহিত।’ তিনি আরো বলেন, ‘প্রাভা ও নারায়ানা সীমান্তের গন্ডি পেরিয়ে বাংলাদেশে রোগীদের উন্নত স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের জন্যে কাজ করছে।’

প্রাভা হেলথ এর সিনিয়র মেডিকেল ডিরেক্টর ড. সাইমন মজিদ আখতার বলেন, ‘যেসকল রোগীরা নারায়ণ হেলথ থেকে চিকিৎসা এবং ফলো আপ এ আগ্রহী তাদের যাত্রার আজ শুরু হলো এবং এই স্বনামধন্য ডাক্তারদের সঙ্গে পেয়ে আমরা আনন্দিত। আমরা বিশ্বাস করি যে এটি বাংলাদেশে রোগীদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা প্রদানে প্রাভা ও নারায়ানা হেলথের জন্য আরো সুযোগ সৃষ্টি করবে।’

‘পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের তুলনায় বাংলাদেশি এবং ভারতীয়রা হৃদরোগে বেশি আক্রান্ত। ৪০ বছর উর্ধ্ব সকলকেই আমি পরামর্শ দিব হৃদরোগের ঝুঁকি প্রতিরোধে তারা যেন বিস্তারিত চেক আপ করান’, ড. বরুণ শেঠী। ‘প্রাভা হেলথের সহযোগিতার মাধ্যমে, বাংলাদেশের রোগীরা নারায়ণে যাওয়ার আগে এবং পরে প্রাভা থেকেই তাদের চেক আপ করাতে এবং টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে আমাদের ডাক্তারদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন।’

‘রোবোটিক সার্জারি হল সর্বশেষ প্রযুক্তি যেখানে ল্যাপারোস্কোপিক সার্জারির তুলনায় আরো সঠিক এবং নির্ভুলভাবে সার্জারি সঞ্চালিত করা হয়’, ড. অশ্বিনকুমার কুদারী বলেন। তিনি আরো বলেন, ‘প্রাভা হেলথ বাংলাদেশে স্বাস্থ্যসেবার একটি বিস্ময়কর নতুন ধারণার সূচনা করেছে, যেখানে শিল্প সুবিধা এবং সর্বশেষ প্রযুক্তির ব্যবহার রয়েছে। আমি প্রাভা’র উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ উপলব্ধি করি যা বাংলাদেশের সকল মানুষের গুরুতর সহায়তা করবে।’

নারায়ানা হেলথ
নারায়ানা হেলথ সদর দপ্তর ভারতের বেঙ্গলুরুতে এবং এটি সারা ভারতের হাসপাতালগুলোর মধ্যে একটি নেটওয়ার্ক পরিচালনা করে, বিশেষ করে দক্ষিণ রাজ্যের কর্ণাটক ও পূর্ব ভারতে এর শক্তিশালী উপস্থিতি এবং পশ্চিম ও কেন্দ্রীয় ভারতে এর উদীয়মান উপস্থিতি বিদ্যমান। বেঙ্গালুরুতে প্রায় ২২৫ টি অপারেশন বেড প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে প্রথম সুবিধাকেন্দ্রটি প্রতিষ্ঠিত হয় এবং সেখান থেকে ২৩টি হাসপাতাল, ৭টি হৃদরোগ পর্যালোচনা কেন্দ্র এবং ভারত জুড়ে প্রাথমিক যত্ন কেন্দ্রের একটি নেটওয়ার্কে এবং কেম্যান দ্বীপপুঞ্জে একটি আন্তর্জাতিক হাসপাতাল গঠনের মাধ্যমে বিকশিত হয়েছে। গ্রীনফিল্ড প্রকল্প এবং অধিগ্রহণের সমন্বয়ে গঠিত এই গ্রুপটি বর্তমানে প্রায় ৫,৯০০ কর্মক্ষম শয্যা বিশিষ্ট। নারায়ণ হেলথ কেন্দ্রটি কার্ডিওলজি এবং কার্ডিয়াক সার্জারি, ক্যান্সার পরিষেবা, নিউরোলজি এবং নিউরোসার্জারি, অস্থিবিদ্যা, নেফ্রোলজি এবং মূত্রবিদ্যা এবং গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি সঙ্গে ৩০টিরও বেশি ক্ষেত্রে সেবা প্রদান করে।

প্রাভা হেলথ
বাংলাদেশে ‘প্রাভা হেলথ’ পারিবারিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের একটি নেটওয়ার্কস্বরূপ যেখানে ‘রোগীরাই সর্বপ্রথম’। প্রযুক্তির সহায়তায় রোগীকে উত্তম সেবার অভিজ্ঞতা প্রদানে এগিয়ে চলেছে প্রাভা হেলথ। প্রতিষ্ঠানটি দিচ্ছে পারিবারিক ডাক্তার দ্বারা পরামর্শ প্রদান এবং ল্যাবরেটরি ও ইমেজিংসহ একটি সম্পূর্ণ পরিসরের ডায়াগনস্টিক সেবা । প্রাভা হেলথের পরিসেবার মধ্যে রয়েছে-

* পারিবারিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় বিশেষজ্ঞ ডাক্তার
* ভিজিটিং স্পেশালিস্টস
* প্রাথমিক ও উন্নত প্যাথলজি সেবা (স্তন, সার্ভিকাল, ফুসফুস এবং কলোরেক্টাল ক্যান্সারের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এর প্রথম আণবিক ক্যান্সার ডায়াগনস্টিক ল্যাব (পিসিআর – পলিমারেজ চেইন রিলিজ)
* ইমেজিং এবং টেলিরেডিওলজির সুবিধা
* ইএইচআর (ইলেকট্রনিক হেলথ রেকর্ডস) সহ বাংলাদেশের প্রথম সম্পূর্ণরূপে সমন্বিত এইচআইএস (হসপিটাল ইনফরমেশন সিস্টেম) সিস্টেম এবং ফোন অ্যাপ্লিকেশন ও ইন্টারনেটে সহজলভ্য প্রথম পেশেন্ট পোর্টাল সিস্টেম
* ইন-হাউস ফার্মেসি

 

– গোলাম দাস্তগীর তৌহিদ

Please Share This Post.