কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করে কোভিড-১৯ সনাক্তকরণ পদ্ধতি উদ্ভাবন

করোনাভাইরাস ‘কোভিড-১৯’ এর সম্ভাব্য ভয়াবহতার প্রক্ষেতিে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি ব্যাবহার করে কোভিড-১৯ সনাক্তকরণের নতুন পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির পাবলিক হেলথ বিভাগ, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ইউনিট ও কার্ডিওকেয়ার জেনারেল ও স্পেশালাইজড হাসপাতালের একদল গবেষকবৃন্দ।

তাঁরা হলেন, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অ্যালাইড হেলথ সায়েন্স অনুষদের সহযোগী ডিন অধ্যাপক ডাঃ আবু নাসের জাফর উল্লাহ, পাবলিক হেলথ বিভাগের প্রধান ড.  আলাউদ্দিন চৌধুরী, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ইউনিটের মো. লিয়াকত আলী, শেখ মোঃ ফয়সাল, মো. হাবিবুর রহমান, কার্ডিওকেয়ার জেনারেল ও স্পেশালাইজড হাসপাতালের ইন-চার্জ মো. নাসির উদ্দীন ও মো. মেহেদী হাসান। গকেষকরা জানান, ফুসফুস্ের বিভিন্ন জটিল রোগ নির্ণয়ে রেডিওলোজি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। কোভিড-১৯ নির্ণয়েও রেডিওলোজি তথা ‘চেস্ট রেডিওলোজি’ মডেল এবং কৃত্রিম বৃদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি ব্যবহার করা সম্ভব।

অধ্যাপক ডাঃ আবু নাসের জাফর উল্লাহ এর নের্তৃত্বে গবেষক দল রবিবার (২২ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিজিটাল ক্লাসরুম থেকে অন লাইনে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক এর সামনে এ উদ্ভাবনের উপর প্রেজেন্টেশন তুলে ধরেন। এসময় অন লাইনে যোগ দেন ড্যাফোডিল ইন্টারনাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মোঃ সবুর খান, ড্যাফোডিল ফ্যামিলির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুরুজ্জামান, ড্যাফোডিল ইন্টারনাশনাল ইউনিভার্সিটির পরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইমরান হোসেন প্রমুখ।

এ বিষয়ে ড্যাফোডিল ফ্যামিলির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুরুজ্জামান জানান, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের অন্যতম প্রযুক্তি আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এ আই), যা বিভিন্ন সেক্টরে বিশেষ করে স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে বহুল ব্যবহৃত হয়। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স প্রযুক্তিগত এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনে দিয়েছে। মেশিনকে তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে বুদ্ধিমান করে তোলার ক্ষেত্রে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স এর জুড়ি নেই। বিশ্বের ফরচুন ৫০০ কোম্পানিসহ উন্নত দেশের সরকারি অনেক প্রতিষ্ঠান এ খাতে বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশেও এ প্রযুক্তির গবেষণা ও ব্যবহার ছোট পরিসরে শুরু হয়েছে। এরই ধারাবাহিতায় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি কার্ডিও কেয়ার হসপিটালের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে করোনা ভাইরাস শনাক্তে আর্টিফিশিয়াল প্রযুক্তি ব্যবহার করে একটি সল্যুশন আবিষ্কার করেছে।

গবেষকরা আরও জানান, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি ব্যবহার করে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এমন একটি সফটওয়্যার তৈরি করেছেন যে সফটওয়্যারটি রোগীর বুকের এক্সরে এবং ফুসফুসের সিটি স্ক্যানের ছবি বিশ্লেষণের মাধ্যমে ‘কোভিড-১৯’ সনাক্ত করতে সাহায্য করব । গবেষণায় জানা যায় যে, এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে ৯৬ ভাগ সঠিকভাবে ‘কোভিড-১৯’ রোগ নির্ণয় করা যাব।

গবেষকরা সফটওয়্যার তৈরির পাশাপাশি একটি ওয়েবসাইটও নির্মাণ করছেন । যথাযথ র্কতৃপক্ষরে অনুমোদন সাপক্ষেে এই ওয়েবসাইটে রোগীর এক্সরে ছবি আপলোড করার মাধ্যমে কোভিড-১৯ সহ যকেোনো ফুসফুস জনতি রোগ সনাক্ত করা সম্ভব হবে।

বিস্তারিত জানতে যোগাযোগঃ প্রফেসর ডাঃ. আবু নাসের জাফর উল্লাহ, সহযোগী ডীন, ডির্পাটমেন্ট অব পাবলিক হেলথ, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, মোবাইলঃ ০১৭৭৫৩২৫০৬১ অথবা  ভিজিট করুনঃ

https://helpus.ai/  https://daffodilvarsity.edu.bd/article/corona

http://coronabd.xyz/  https://forum.daffodilvarsity.edu.bd/index.php/board,1780.0.html

 

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/২৩মা./২০

Please Share This Post.