কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

আগামী দিনগুলোতে মানুষের সঙ্গে কম্পিউটারের মিথষ্ক্রিয়া, মেশিন লার্নিং-এর মতো কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সংক্রান্ত গবেষণা ও এর প্রয়োগ অনেক বেশি বৃদ্ধি পাবে। সেই সঙ্গে বিশ্বজুড়ে বাড়বে এই বিষয়ে দক্ষ গবেষক ও কর্মীর চাহিদা। ২২ অক্টোবর শনিবার, ‘কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায় হাতেখড়ি’ শীর্ষক এক কর্মশালায় এ তথ্য জানিয়েছেন আমেরিকার রচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারি অধ্যাপক ও গবেষক এহসান হক। এহসান হক তার কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার কাজের জন্য সম্প্রতি এমআইটির ‘৩৫ এর নীচে ৩৫’ তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন।

ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক এই কর্মশালার আয়োজন করে। সকালে অংশগ্রহণকারীদের স্বাগত জানান বিডিওএসএনের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান। এরপর বিবিন্ন শ্রেণী পেশার প্রায় ৬০ জন অংশগ্রহণকারী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে কর্মশালায় অংশ নেন।

অংশগ্রহণকারী ইউআইইউ-এর প্রভাষক সামিয়া জানান সবাই এই আনন্দময় কর্মশালায় অংশ হতে পেরেছে। বিশেষ করে, বিভিন্ন ব্যাকগ্রাউন্ডের শিক্ষার্থীদের একই সুরে গ্রন্থিত করতে পারাটা এই কর্মশালার সবচেয়ে বড় সাফল্য। এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আশিক জামান ভবিষ্যতে এমন আরো আয়োজনের প্রত্যাশী কারণ এই বিষয়গুলোর চাহিদা বর্তমানে দ্রুত বেড়ে চলেছে।

কর্মশালা শেষে এহসান হকের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মফিজুর রহমান। বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার ক্লাব ও ছাত্র কল্যান দপ্তর কর্মশালা আয়োজনে সহায়তা করে।

 

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.