কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও গুগল


কৃত্রিম বুুদ্ধিমত্তা নিয়ে নিজেদের আগ্রহের কথা গুগল নতুনভাবে জানান দিয়েছে ইউরোপের মাটিতে নতুন একটি গবেষণাগার স্থাপনের মাধ্যমে। জুরিখে অবস্থিত এই গবেষণাগারটি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ক্ষেত্রে নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবনেই মূলত ব্যবহৃত হবে।

জুরিখের এই ল্যাবের ওপর ভিত্তি করে আপাতত তিনটি ক্ষেত্রে বেশি করে জোর দেবে গুগল- মেশিন লারনিং, ন্যাচারাল ল্যাংগুয়েজ আন্ডাস্ট্যান্ডিং এবং কম্পিউটার পারসেপশন।

এই ল্যাবের প্রধান বিজ্ঞানী ইমানুয়েল মগেনেট জানিয়েছেন , যন্ত্রকে সাধারণ জ্ঞান তথা কমন সেন্স শেখানোর ওপরই আপাতত বেশি জোর দেবেন তারা।

তিনি বলেন, ‘এই গবেষণাগারকে আরো অনেক সম্প্রসারিত করার ইচ্ছে আছে আমাদের, একইভাবে আমাদের গবেষকদের দলটির কলেবরও ক্রমশই বাড়বে।’

উল্লেখ্য, মেশিন লারনিংয়ের ব্যাপারে নিজেদের ক্রমবর্ধমান আগ্রহের কথা জানান দিতে কখনোই ভুল করেনি গুগল। বিশেষ করে সার্চ, স্প্যাম ফিল্টার, ট্রান্সলেশন ও কন্টেন্ট রিমোভাল-এর ক্ষেত্রে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি প্রয়োগের ব্যাপারে এরই মধ্যে নানা উদ্ভাবন ঘটিয়েছে তারা।

কম্পিউটিংয়ের ক্ষেত্রে মানবজাতি সম্পূর্ণ নতুন একটি যুগে পা দিতে যাচ্ছে জানিয়ে মি. মগেনেট বলেন, ‘গুগলের উদ্দেশ্য হচ্ছে, মানুষের জন্য খুবই স্বাভাবিক এমন কিছু জিনিস কম্পিউটারকে শিখিয়ে একটি কমন সেন্স ডাটাবেস তৈরি করা।’

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক