কমিউনিক এশিয়ায় বাংলাদেশের রিভ সিস্টেমস-এর এক যুগ

 

আইপিভিত্তিক যোগাযোগ অন্যান্য মাধ্যমের তুলনায় সাশ্রয়ী ও ব্যবহারবান্ধব। এ খাতে সমাধানদাতাদের মাঝে রিভ সিস্টেমস অন্যতম। বাংলাদেশী এই বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান টানা এক যুগ ধরে অংশ নিচ্ছে চলমান ইন্টারন্যাশনাল কমিউনিকেশনস এন্ড ইনফরমেশন টেকনোলোজি এক্সিবিশন এন্ড কনফারেন্সে (কমিউনিকএশিয়া নামে বেশি পরিচিত)।

৩১ মে থেকে চার দিনব্যাপী সিঙ্গাপুরের মেরিনা বে স্যান্ডসে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ খাতের অন্যতম বৃহৎ এই সম্মেলনে রিভ সিস্টেমস প্রদর্শিত পণ্য ও সেবাসমূহ হচ্ছে- আইটেল আইএম অ্যাপ, আইটেল স্মার্ট কল ও ওয়েবআরটিসি-সিপ গেটওয়ে।

মঙ্গলবার উদ্বোধনের পর কমিউনিক এশিয়ায় রিভ সিস্টেমস-এর নিজস্ব প্যাভিলিয়ন পরিদর্শন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু ও সিঙ্গাপুরে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাহবুব উজ জামানসহ দেশীয় ও আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি খাতের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ। বিভিন্ন পণ্য ও সেবা পর্যবেক্ষণশেষে অতিথিবৃন্দ প্রযুক্তি শিল্পের বিকাশে রিভের ভূমিকা নিয়ে মত বিনিময় করেন রিভ সিস্টেমস-এর প্রতিষ্ঠাতা ও গ্রুপ সিইও এম রেজাউল হাসান ও সঙ্গে। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন রিভ সিস্টেমস-এর হেড অব গ্লোবাল সেলস রায়হান হোসেনসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

কমিউনিকএশিয়ায় অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে রিভ সিস্টেমসের গ্রুপ সিইও এম রেজাউল হাসান জানান, টেলিযোগাযোগ খাতের নেতৃস্থানীয়দের অংশগ্রহণে এ সম্মেলন শুধু আঞ্চলিক নয়, গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব বিস্তার করবে আন্তর্জাতিক টেলিকমিউনিকেশন সেক্টরেও।

এছাড়াও, প্রযুক্তি বিশ্বের সমান্তরালে এগিয়ে যেতে নিজেদের পণ্যে বাংলাদেশকে ব্র্যান্ডিং করার এই ধারা রিভ সিস্টেমস বরাবরের মতোই অব্যাহত রাখবে বলেও জানান রিভ গ্রুপের উদ্যোক্তা এম রেজাউল হাসান।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশী বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান রিভ সিস্টেমস-এর প্রধান কার্যালয় সিঙ্গাপুরে এবং গবেষণা ও উন্নয়ন কেন্দ্র বাংলাদেশ ও ভারতে। এছাড়াও রিভ-এর উপস্থিতি রয়েছে রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, হংকং, কেনিয়া, লেবানন ও যুক্তরাজ্যে। বর্তমানে বিশ্বের ৭৮টির বেশি দেশে রিভ সিস্টেমস উদ্ভাবিত বিভিন্ন আইপি পণ্য ও সেবা এক যুগেরও বেশি সময় ধরে ব্যবহৃত হচ্ছে।

-বিজ্ঞপ্তি

Please Share This Post.