ওয়ালটনের ‘টেলিভিশন ব্র্যান্ডিং স্টারস’ অ্যাওয়ার্ড পেলো ৩১ ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান

দেশের ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটনের ‘টেলিভিশন ব্র্যান্ডিং স্টারস’ অ্যাওয়ার্ড পেলো ৩১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান। ক্রিয়েটিভ ব্র্যান্ডিং আইডিয়ার মাধ্যমে ওয়ালটন টিভির ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের প্রতি গ্রাহক পর্যায়ে ব্যাপক আগ্রহ তৈরি করায় এই পুরস্কার দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, বিক্রয়োত্তর কার্যক্রমকে অনলাইন অটোমেশনের আওতায় এনে সেবা প্রদান আরো সহজ ও দ্রুত করার লক্ষ্যে সারা দেশে ডিজিটাল ক্যাম্পেইন পরিচালনা করছে ওয়ালটন টিভি। ক্যাম্পেইনে গ্রাহকদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে ওয়ালটন টিভি ক্রয়ে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ক্যাশব্যাক সুবিধা দেয়া হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২১) রাজধানীর ওয়ালটন কর্পোরেট অফিসে ‘টেলিভিশন ব্র্যান্ডিং স্টারস অ্যাওয়ার্ড’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেন ওয়ালটন করপোরেশনের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এস এম মাহবুবুল আলম।

সে সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর নজরুল ইসলাম সরকার, ইভা রিজওয়ানা নিলু, এমদাদুল হক সরকার ও হুমায়ূন কবীর, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর মো. রায়হান, আনিসুর রহমান মল্লিক, আরিফুল আম্বিয়া, ড. সাখাওয়াৎ হোসেন, আমিন খান ও আল ইমরান, ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শাহজালাল হোসেন লিমন, ওয়ালটন টিভির প্রোডাক্ট ম্যানেজার তানভীর মাহমুদ শুভ  প্রমুখ।

কর্মকর্তারা জানান, ওয়ালটন টিভির কাস্টমার ডাটাবেজ তৈরি করতে সারা দেশে ডিজিটাল ক্যাম্পেইন চলছে। ক্যাম্পেইন চলাকালীন ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতিতে ওয়ালটন টিভির ক্রেতার নাম, মোবাইল নম্বর এবং মডেল নম্বর ডেডিকেটেড সার্ভারে সংরক্ষণ করা হচ্ছে। ফলে, ওয়ারেন্টি কার্ড হারিয়ে ফেললেও দেশের যেকোনো ওয়ালটন সার্ভিস সেন্টার থেকে দ্রুত সেবা পাচ্ছেন টেলিভিশন গ্রাহকরা। অন্যদিকে সার্ভিস সেন্টারের প্রতিনিধিরাও গ্রাহকের ফিডব্যাক জানতে পারছেন। আর এই কার্যক্রমে ক্রেতাদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে ক্যাম্পেইনের আওতায় ওয়ালটন টিভি কিনে রেজিস্ট্রেশন করলে ক্রেতাদের ৫০ শতাংশ পর্যন্ত নিশ্চিত ক্যাশব্যাক পাওয়ার সুযোগ দেয়া হচ্ছে।

‘টেলিভিশন ব্র্যান্ডিং স্টারস অ্যাওয়ার্ড’ অনুষ্ঠানে ক্রেস্ট ও সনদ প্রাপ্তরা হলেন: ওয়ালটন প্লাজা ও ডিস্ট্রিবিউটর চ্যানেল থেকে ১১ এরিয়া ম্যানেজার, ২ জন রিজিওনাল সেলস ম্যানেজার, একজন ডিভিশনাল হেড, ৪ জন ডিভিশনাল মার্কেট মনিটর, ১১ ওয়ালটন প্লাজা ও ২ ডিস্ট্রিবিউটর।

ওয়ালটন টিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) প্রকৌশলী মোস্তফা নাহিদ হোসেন বলেন, স্থানীয় বাজারে করোনাভাইরাস মহামারি প্রভাব কাটিয়ে ওয়ালটন টিভির চাহিদা ও বিক্রিতে স্বাভাবিক গতি ফিরে এসেছে। এই সাফল্যে বিশেষ অবদান রেখেছে টেলিভিশন ক্যাম্পেইনের ব্যাপক ব্র্যান্ডিং। তাই, ক্রিয়েটিভ ব্র্যান্ডিং এর মাধ্যমে গ্রাহক পর্যায়ে ওয়ালটন টিভি চাহিদা ও বিক্রয় বৃদ্ধিতে অবদান রাখায় ৩১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ‘টেলিভিশন ব্র্যান্ডিং স্টারস’ অ্যাওয়ার্ড দেয়ার এই উদ্যোগ। এই পুরস্কার সেলস টিমের জন্য বিশেষ অনুপ্রেরণা যোগাবে বলে তিনি মনে করেন।

তিনি আরো বলেন, স্থানীয় বাজারের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বাজারেও ওয়ালটন টিভি ব্যাপক সাফল্য অর্জন করে চলেছে। কোভিড-১৯ এর ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যেও ২০২০ সালে ইউরোপের উন্নত দেশ ডেনমার্ক, জার্মানি, পোল্যান্ড, গ্রীস, স্পেন, ক্রোয়েশিয়ায়  টিভি রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণ হয়েছে। ফলে, ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২০ সালে ওয়ালটন টিভি রপ্তানি হয়েছে ১০ গুণ বেশি। এরই প্রেক্ষিতে চলতি বছর আমেরিকা, অস্ট্রলিয়া ও ইউরোপের ২০ টির বেশি দেশে টেলিভিশন রপ্তানির টার্গেট নিয়েছি।

সূত্রমতে, বর্তমানে ৩৫ টিরও বেশি দেশে, শতাধিক বিজনেস পার্টনারের মাধ্যমে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ লেবেলযুক্ত টিভি রপ্তানি করছে ওয়ালটন।

উল্লেখ্য, গাজীপুরের চন্দ্রায় নিজস্ব কারখানায় টিভির মাদারবোর্ড, এলজিপি, এলডিপি, সফটওয়্যার ও হার্ডওয়্যার তৈরি করছে ওয়ালটন। উন্নত বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ওয়ালটন সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও যুগোপযোগি ডিজাইনের এলইডি, এলইডি স্মার্ট ও ভয়েস কন্ট্রোল স্মার্ট টিভি উৎপাদন করছে। এসব টিভি ইউরোপিয়ান স্ট্যান্ডার্ডে তৈরি হচ্ছে। আর তাই সর্বাধুনিক টেকনোলজির ডলবি এবং গুগল লিস্টেড ‘লাইসেন্সড টিভি ম্যানুফ্যাকাচারার’ স্বীকৃতি পেয়েছে ওয়ালটন। বাংলাদেশে একমাত্র ওয়ালটনই ডলবি’র অফিশিয়াল সাউন্ড কোয়ালিটির টিভি উৎপাদন করছে। এসব টিভির দাম যেমন সাশ্রয়ী, তেমনি মানেও সেরা। ফলে স্থানীয় বাজারে মার্কেট শেয়ার বিবেচনায় একক প্রতিষ্ঠান শীর্ষে এখন ওয়ালটন টিভি।

কারখানায় রয়েছে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি সমৃদ্ধ গবেষণা ও উন্নয়ন (আরএন্ডডি) সেন্টার। ইউরোপিয়ান স্ট্যান্ডার্ড অনুসরণ করে উৎপাদিত ওয়ালটনের টেলিভিশন সুইজ্যারল্যান্ডভিত্তিক এসজিএস SGS) এর আন্তর্জাতিক টেস্টিং ল্যাব থেকে সিই (CE), আরওএইচএস (ROHS), ইএমসি (EMC) সনদ অর্জন করেছে। ইউরোপে ইলেকট্রনিক্স পণ্য রপ্তানিতে অত্যাবশকীয় এসব সনদ অর্জন করে ওয়ালটনের তৈরি টেলিভিশন রপ্তানি হচ্ছে ইউরোপের জার্মানি, পোল্যান্ড, গ্রিস, ডেনমার্ক, স্পেন, ক্রোয়েশিয়ার মতো উন্নত বিশ্বের দেশগুলোতে।

কর্তৃপক্ষ জানায়, ওয়ালটনের এলইডি ও স্মার্ট টিভির প্যানেলে ৪ বছর পর্যন্ত রিপ্লেসমেন্ট ওয়ারেন্টির পাশাপাশি দেয়া হচ্ছে ৫ বছরের সার্ভিস ওয়ারেন্টি। আইএসও সনদপ্রাপ্ত ওয়ালটন সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের আওতায় সারা দেশে বিস্তৃত ৭৬ টি সার্ভিস সেন্টারের মাধ্যমে গ্রাহকদের দ্রুত বিক্রয়োত্তর সেবা প্রদান করা হচ্ছে। এই কার্যক্রমে নিয়োজিত আছেন আড়াই হাজারেরও বেশি সার্ভিস এক্সপার্টস।

Please Share This Post.