ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির সঙ্গে ওয়ালটন ডিজিটেকের করপোরেট চুক্তি

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (ডাব্লিউইউবি)-এর সঙ্গে করপোরেট চুক্তি করেছে ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। এরফলে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা ওয়ালটন কম্পিউটার, ল্যাপটপ ও অন্যান্য এক্সেসরিজ ক্রয়ে ১৪ শতাংশ পর্যন্ত মূল্যছাড় পাবেন। থাকছে ডিসকাউন্টসহ ইএমআই সুবিধা।

বিশ্ববিদ্যালয়টির ধানমন্ডি ক্যাম্পাসে ওই চুক্তি সম্পাদিত হয়। ওয়ালটন কম্পিউটার প্রোডাক্টের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বা সিইও ইঞ্জিনিয়ার লিয়াকত আলী এবং ডাব্লিউইউবি-এর ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. আব্দুল মান্নান চৌধুরী নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের সিনিয়র অপারেটিভ ডিরেক্টর মীর ওয়াহিদুন নবী এবং ডাব্লিউইউবি-এর রেজিস্ট্রারার প্রফেসর আব্দুস সালাম মোল্লাসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ড্রাস্ট্রিজ লিমিটেডের অধীনে গাজীপুরের চন্দ্রায় বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তির মেশিনারিজ সমৃদ্ধ কারখানায় ওয়ালটন কম্পিউটার ও ল্যাপটপ তৈরি হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা যাতে প্রযুক্তিগত শিক্ষা লাভ করে প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে নিজেদের যোগ্য করে গড়ে তুলতে পারেন, সেজন্য ওয়ালটন কম্পিউটার, ল্যাপটপ ও বিভিন্ন এক্সেসরিজ ক্রয়ে তাদের বিশেষ সুবিধা দেয়া হচ্ছে। এছাড়া, ডাব্লিউইউবি-এর শিক্ষার্থীরা ওয়ালটনে ইন্টার্নশিপ করতে পারবেন বলেও জানানো হয়।

চুক্তির শর্ত থেকে জানা যায়, ডাব্লিউইউবির শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা দেশের যে কোনো ওয়ালটন প্লাজা থেকে ল্যাপটপ, ডেক্সটপ এবং মনিটর নগদ মূল্যে ক্রয়ের ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ, র‌্যাম এবং এএসডি কার্ড ও রাউটারে ১২ শতাংশ এবং কিবোর্ড, মাউস, পেনড্রাইভ, এসডি কার্ড, ইয়ারফোন ইত্যাদিতে ১৪ শতাংশ মূল্যছাড় পাবেন। উক্ত পণ্যগুলো ৩ মাসের ইএমআই (ইক্যুয়াল মান্থলি ইনস্টলমেন্ট) সুবিধায় কিনলে মূল্যছাড়ের পরিমাণ যথাক্রমে ৮, ১০ এবং ১২ শতাংশ এবং ৬ মাসের ইএমআই-এর ক্ষেত্রে ৬, ৮ এবং ১০ শতাংশ।

ওয়ালটন কম্পিউটার বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে বাজারে রয়েছে প্রিলুড, প্যাশন, ট্যামারিন্ড, কেরোন্ডা ও ওয়াক্সজ্যাম্বু সিরিজের ২৩ মডেলের ল্যাপটপ, ১৩ মডেলের ডেক্সটপ এবং ৪ মডেলের মনিটর। ওয়ালটনের কম্পিউটার এক্সেসরিজে রয়েছে বিভিন্ন মডেলের গেমিং এবং স্ট্যান্ডার্ড কিবোর্ড ও মাউস, পেন ড্রাইভ, এসএসডি ও মেমোরি কার্ড, ইয়ারফোন, র‌্যাম ও ওয়াইফাই রাউটার।

সব মডেলের ওয়ালটন ল্যাপটপে থাকছে সর্বোচ্চ ২ বছরের এবং ডেস্কটপ পিসিতে সর্বোচ্চ ৩ বছরের ফ্রি বিক্রয়োত্তর সেবা।

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/২৪জুলাই/১৯

Please Share This Post.