এসারের অত্যাধুনিক ফিচারের চার নতুন ল্যাপটপ

বাংলাদেশের বাজারে নতুন সিরিজের চার ল্যাপটপ উন্মোচন করেছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি ব্র্যান্ড এসার। অনুষ্ঠানে এন্টারপ্রাইজ এবং গেমিং সিরিজের নতুন ল্যাপটপ প্রদর্শন করে এসার। যার মধ্যে রয়েছে নতুন সুইফ ৭, কনসেপ্ট ডি, ট্রাভেলম্যাট এক্স৫ এবং নাইট্রো ৭ সিরিজের অত্যাধুনিক সব ল্যাপটপ। এসারের নতুন এসব পণ্য ক্রিয়েটিভ কাজে ব্যবহারকারীদের পূর্ণ সুবিধা এবং কম্পিউটার ডিভাইস ব্যবহারে সম্পূর্ণ নতুন অভিজ্ঞতা দেবে।

অনুষ্ঠানে এসার ইন্ডিয়ার প্রেসিডেন্ট এবং ম্যানেজিং ডিরেক্টর হরিশ কোহলি বলেন,বাংলাদেশের বাজারে আমাদের সর্বশেষ প্রযুক্তির ল্যাপটপ নিয়ে আসতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত। এসারের বাজার বাংলাদেশে ক্রমবর্ধমান ভাবে বেড়ে চলেছে, ভালো চাহিদা আমরা লক্ষ্য করেছি। তাই আমরা আত্মবিশ্বাসী যে আমাদের অত্যাধুনিক ফিচারের নতুন পণ্যগুলো এখানে ভালো সাড়া ফেলবে। এসার বাংলাদেশে অয়্যারহাউজ স্থাপন করতে যাচ্ছে যেখানে পণ্যের সরবরাহ ও ফল্টি পণ্যের সেবা দেওয়া অনেক সহজ হবে। অতীতে বাংলাদেশে তাদের অয়্যারহাউজ ছিলো না। এছাড়া, এসার প্রথমবারের মতো তাদের ১৭টা দেশ নিয়ে অনুষ্ঠিত ইন্ট্যারন্যাশনাল গেমিং কম্পিটিশনে বাংলাদেশকেও যুক্ত করতে যাচ্ছে বলে জানান হরিশ কোহলি।

কনসেপ্ট-ডি
এসারের কনসেপ্ট-ডি সিরিজ হচ্ছে হাই-এন্ড নোটবুক এবং ল্যাপটপের এক অপূর্ব সমন্বয়। অত্যাধুনিক এই নোটবুক কম্পিউটার ক্রিয়েটিভ কাজের জন্য উপযোগী। এর কিবোর্ডে অ্যাম্বার রঙের ব্যাকলাইট দেয়া হয়েছে।কনসেপ্ট-ডি৯০০ মডেলের উচ্চ পারফরম্যান্সের নোটবুকে রয়েছে ইন্টেলের ৪০ কোর ও ৮০ থ্রেডের ডুয়াল জিওন গোল্ড ৬১৪৮ প্রসেসর এবং এনভিডিয়ার কোয়াড্র আরটিএক্স ৬০০০ গ্রাফিক্স। কনসেপ্ট-ডি৫০০ মডেলের হাই-এন্ড নোটবুকে রয়েছে ৮ কোর ও ১৬ থ্রেডের ইন্টেলের নবম প্রজন্মের কোর আই-৯ ৯৯০০কে প্রসেসর, যার গতি সর্বোচ্চ ৫ গিগাহার্জ। গ্রাফিক্স হিসেবে এতে ব্যবহৃত হয়েছে এনভিডিয়ার কোয়াড্র আরটিএক্স ৪০০০ জিপিইউ।

সুইফট ৭
এসারের নতুন আল্ট্রা-স্লিম ল্যাপটপ সুইফট ৭। এটি অবিশ্বাস্য রকমের পাতলা ও হালকা ওজনের ল্যাপটপ এবং পাশাপাশি মজবুত। ল্যাপটপটির স্ক্রিনের চারপাশ জিরো-ফ্রেম ডিসপ্লে সুবিধার হওয়ার ফুল-স্ক্রিন ডিসপ্লে উপভোগ করা যাবে। ডিসপ্লেতে মাত্র ২.৫৭ মিলিমিটার পাতলা ব্যাজেল থাকায় এর স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯২ শতাংশ। ল্যাপটপটির ওজন মাত্রা ৮৯০ গ্রাম। এই উপাদানে তৈরি হওয়ায় সুইফট ৭ ল্যাপটপ সাধারণ অ্যালুমিনিয়ামের একই পুরুত্বের ল্যাপটপের তুলনায় ২ থেকে ৪ গুণ বেশি শক্তিশালী। এমনকি তুলনামূলক ২০ থেকে ৩৫ শতাংশ পাতলা হওয়ায় ওজন ১ কেজির কম। উপরন্তু, ল্যাপটপের পৃষ্ঠ সিরামিকের মতো দেখাতে এসার এতে মাইক্রো-এআরসি অক্সিডেশন ফিনিশ দিয়েছে।

নাইট্রো ৭:
গেমার জন্য এসার নিয়ে এসেছে গেমিং ল্যাপটপের নতুন সিরিজ নাইট্রো ৭। ভারী গেম খেলার উপযোগী এই ল্যাপটপ ৭ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যাটারি ব্যাকআপ সুবিধা দেবে। গেমিংয়ে সর্বোচ্চ পারফরম্যান্স নিশ্চিতে এই ল্যাপটপে রয়েছে নবম প্রজন্মের ইন্টেল কোর আই-৭ প্রসেসর এবং এনভিডিয়ার অত্যাধুনিক গ্রাফিক্স,।উচ্চ রেজ্যুলেশনের ডিসপ্লে সম্পন্ন এই ল্যাপটপের স্ক্রিন ১৫.৬ ইঞ্চি। স্মুথ ও ব্লার ফ্রি গেমিং উপভোগে ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট ১৪৪ হার্জ ও রেসপন্স টাইম ৩ মিলি সেকেন্ড। ডিসপ্লেতে মাত্র ৭.৪৮ মিলিমিটার পাতলা ব্যাজেল থাকায় এর স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৭৮ শতাংশ। স্লিক ও মেটাল ডিজাইনে তৈরি নাইট্রো -৭ গেমিং ল্যাপটপ খুবই স্লিম, পুরুত্ব মাত্র ১৯.৯ মিলিমিটার। এই ল্যাপটপগুলো ৩২ জিবি পর্যন্ত ডিডিআর৪ র‌্যাম এবং ২ টিবি পর্যন্ত এইচডিডি স্টোরেজে পাওয়া যাবে।

ট্রাভেলমেট এক্স৫:
ট্রাভেল ল্যাপটপ হিসেবে এসারের নতুন আকর্ষণ ট্রাভেলমেট এক্স৫১৪-৫১ ল্যাপটপ। এটি এখন পর্যন্ত এসারের তৈরি সবচেয়ে হালকা ওজনের ট্রাভেল ল্যাপটপ। এটির ডিজাইন এমন ভাবে করা হয়েছে যেন ভ্রমণের সঙ্গী হিসেবে স্বাচ্ছন্দ্য পাওয়া যায়। ওজন মাত্রা ৮৯০ গ্রাম এবং ০.৫৮ ইঞ্চি পুরুত্বের হওয়ায় ল্যাপটপটি ভ্রমণে স্বাচ্ছন্দ্যে বহন উপযোগী। ১০ ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাটারি ব্যাকআপ থাকায়, প্রফেশলানরা দীর্ঘ যাত্রায় নিশ্চিতে কাজ করতে পারবেন। টানা দুইদিন চার্জ দেওয়া ছাড়াই ল্যাপটপটি ব্যবহার করা যাবে।

এসার বাংলাদেশে ৫টি সার্ভিস সেন্টার চালু করছে, সেগুলো হচ্ছে ঢাকা, খুলনা, সিলেট, রংপুর এবং সৈয়দপুরে। এই সার্ভিস সেন্টার গুলো এসার সরাসরি পরিচালনা করবে বলেও অনুষ্ঠানে জানানো হয়। এগুলোতে পরিবেশকদের কোনো প্রকার ভূমিকাও থাকবে না।

এসার গ্রাহকদের জন্য ঢাকার সার্ভিস সেন্টার নাম্বার -+৮৮০১৭৭৫৫৫৭১৯৮

 

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/১৮জুলাই/১৯

Please Share This Post.