এমদাদ-হাকিমের নেতৃত্বাধীন টিমের নিরঙ্কুশ জয়

ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের ২০১৯-২০২১ মেয়াদের কার্য নির্বাহী কমিটিতে নিরঙ্কুশ বিজয় লাভ করেছে টিম ইউনাইটেড।

অ্যাম্বার আইটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আমিনুল হাকিমের নেতৃত্বে জেনারেল ক্যাটেগরিতে নয় সদস্যের দল নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল টিম ইউনাইটেড। সেখানে পুরো প্যানেলই জয়লাভ করেছে। ফলে আবারও ইমদাদুল হক ও আমিনুল হাকিমের নেতৃত্ব পাচ্ছে দেশে ইন্টারনেট ও প্রযুক্তি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠনটি।

নির্বাচনে সর্বোচ্চ ১০১ ভোট পেয়ে পরিচালক পর্যদের পদে নির্বাচিত হয়েছে এমদাদুল হক, আমিনুল হাকিম পেয়েছেন ৯৫ ভোট, আহমেদ জুনায়েদ ৯১, মঈন উদ্দিন আহমেদ ৮৬, নাজমুল করিম ভূঁঞা ৮৪, এফএম রাশেদ আমিন ৮১, মো. সারওয়ার সিকদার ৭৮, মো. আনোয়ারুল আজিম ৭৭ এবং মো. কামাল হোসেন ৭৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

জেনারেল ক্যাটেগরিতে সবগুলো পদ নিজেদের করে নিলেও টিম ইউনাইটেড সহযোগী সদস্য পদের জন্য কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী দেয়নি। তবে সহযোগী পদে যারা বিজয়ী হয়েছেন তারাও টিম ইউনাইটেডের সমর্থন পুষ্ট বলে জানান আমিনুল হাকিম।

অপটিম্যাক্স কমিউনিকেশন লিমিটেড এর চীফ অপারেটিং অফিসার ও পরিচালক এমদাদুল হক বলেন, সহযোগী পদে বিজয়ীরা পরিচালক হিসেবে কাজ করবেন। পাশাপাশি তাদের একজনকে সহযোগী সেক্রটারি (২) হিসেবে একটা পদ দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।

এছাড়াও নির্বাচনে সহযোগী সদস্য হিসেবে বিজয়ী চারজন যথাক্রেমে ১৮২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন রাইসুল ইসলাম তুহিন, ১৮১ ভোট পেয়ে মো. আসাদুজ্জামান সুজন, ১৭৪ ভোট পেয়ে মো. নাসির উদ্দিন, ১৫৫ ভোট পেয়ে অহিদউল্লাহ ভূঁইয়া।

নির্বাচনে আরেক প্রতিদ্বন্দ্বী ‘টিম ক্যাটালিস্ট’ জেনারেল ক্যাটেগরিতে ৮ সদস্যবিশিষ্ট প্যানেল দিলেও কেউ নির্বাচিত হয়ে আসতে পারেনি।

নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন মো: নজরুল ইসলাম বাবু, এমপি এবং সদস্য হিসেবে বাক্য এর সেক্রেটারী জেনারেল তৌহিদ হোসেন এবং এক্সেল টেকনোলজিস লিমিটেড এর নির্বাহী পরিচালক বীরেন্দ্র নাথ অধিকারী দায়িত্ব পালন করেন। নির্বাচনী আপীল বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে বাংলাদেশ ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি মো: আবদুর রাজ্জাক এবং সামিয়া ট্রেডিং এর সত্ত্বাধিকারী ও এফবিসিসিআই এর পরিচালক হাফেজ হারুন এবং ন্যাশনাল পিভিসি পাইপ প্রোডাক্ট এর সত্ত্বাধিকারী মোঃ আবুল খায়ের দায়িত্ব পালন করেন।

নির্বাচনে সাধারণ ক্যাটেগরিতে দুটি প্যানেলে ৯ পদের বিপরীতে ১৭ জন এবং সহযোগী ক্যাটেগরিতে চার পদের বিপরীতে দুটি প্যানেলে ৮ জন প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন। সাধারণ ক্যাটেগরিতে ভোটার ১১৪ এবং সহযোগী ক্যাটেগরিতে ভোটার ছিলেন ৩১৭ জন।

গোলাম দাস্তগীর তৌহিদ/২৭অক্টো./১৯

Please Share This Post.