এবার গুগলের টার্গেট বাংলাদেশ

গুগলের এশিয়া প্যাসেফিকের ইন্ডাস্ট্রি হেড গোলাম কিবরিয়া বলেছেন, গুগল তাদের সাতটি পণ্যের সেবা দিয়ে ১ বিলিয়ন মানুষকে সন্তুষ্ট করেছে। গুগল এবার আরও ১ বিলিয়ন গ্রাহক তৈরি করার পরিকল্পনা নিয়েছে। এজন্য বাংলাদেশকে টার্গেট করা হয়েছে। কেননা, গুগল আশা করছে ২০২০ সালের এদেশে ৯ কোটি ইন্টারনেট গ্রাহক গুগলের সঙ্গে যুক্ত হবে।’

আজ রাজধানীর একটি হোটেলে গুগলের নতুন পণ্য ডাটা সেভি অ্যাপ ডাটালি অনুষ্ঠানিকভাবে অবমুক্ত করার সময় তিনি এসব কথা বলেন।

গোলাম কিবরিয়া বলেন, ‘গুগল চাইছে বাংলাদেশের মত উন্নয়নশীল দেশগুলোতে ইন্টারনেট ব্যবহার বাড়াতে। এজন্য বিভিন্ন ধরণের সেবামূলক কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশে গুগল বাস, গুগল অ্যাডসেন্স এবং গুগল স্ট্রিট ভিউ চালু করেছে।’

গোলাম কিবরিয়া আরও বলেন, ‘গুগল বাংলাদেশে আইসিটি ইকোসিস্টেম ডেভেলপমেন্টে কাজ করছে। এজন্য ইন্টারনেট ব্যবহাকারীদের ডাটা কন্ট্রোল এবং সেভিংয়ের জন্য ডাটালি নামের একটি অ্যাপ অবমুক্ত করেছে।

প্রতিবেশি দেশগুলোতে গুগলের অফিস থাকলেও বাংলাদেশে গুগলের কোনো অফিস নেই। ভবিষ্যতে বাংলাদেশে গুগল অফিস চালু করবে কী না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে গোলাম কিবরিয়া বলেন, ‘গুগল বাংলাদেশকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে। বিশেষ করে এদেশে যেভাবে প্রযুক্তি সমৃদ্ধ হচ্ছে তাতে করে ভবিষ্যতে গুগল বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য নিজস্ব অফিস চালু করবে।’

গোলাম কিবরিয়া জানান, বাংলাদেশের মত উন্নয়নশীল দেশগুলোর ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা হিসেব করে ইন্টারনেট ডাটা ব্যবহার করেন। বিশেষ করে মোবাইল কোন অ্যাপ কত ডাটা খরচ করছে কিংবা ব্যাকগ্রাইন্ডে কোনো অ্যাপ ডাটা খরচ করছে কী না তা জানেন না অনেকেই। এজন্য গুগল আজ থেকে বাংলাদেশে অবমুক্ত করলো ডাটা কন্ট্রোল ও সেভিং অ্যাপ ‘ডাটালি’। এতে করে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর ডাটা খরচ কমবে ৩০ শতাংশ।

বর্তমানে গুগল তাদের সাতটি পণ্য সেবা বিশ্বব্যাপী চালু রয়েছে। এগুলো হলো গুগল ব্রাউজার, ক্রোম ব্রাউজার, অ্যানড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম, প্লে স্টোর, গুগল ম্যাপ, স্ট্রিট ভিউ এবং  ইউটিউব। বিশ্বব্যাপী এই সেবার গ্রহীতার সংখ্যা ১ বিলিয়ন ছাড়িয়েছে।

সিনিউজভয়েস//ডেস্ক/

Please Share This Post.