এফএএ সামিটে ওয়্যারলেস ব্রডব্যান্ড চুক্তিতে হুয়াওয়ে-জিপি

এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের দেশগুলোতে ডিজিটাল হোম নিশ্চিত করতে তারবিহীন ব্রডব্যান্ড প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। এই প্রযুক্তি একটি টেকসই শিল্প পরিবেশ তৈরিতে সহায়তা করবে। সম্প্রতি শ্রীলংকায় জিটিআই, ইনফর্মা ও হুয়াওয়ের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়েছে এশিয়া-প্যাসিফিক ডব্লিউটিটিএক্স (ফিক্সড ওয়্যারলেস এ্যাক্সেস) সামিট। ওই সামিটের মূল প্রতিপাদ্য ছিল ‘ব্রিং অ্যাফরডেবল অ্যান্ড ফাস্ট ফিক্সড ওয়্যারলেস ব্রডব্যান্ড টু এভরি হাউজহোল্ড’। সামিটে হুয়াওয়ে, এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের আইসিটি রেগুলেটর, শীর্ষস্থানীয় নেটওয়ার্ক অপারেটর এবং বিভিন্ন শিল্প সংগঠন যৌথভাবে ‘ব্রিজ দ্য ডিজিটাল ড্রাইভ, অ্যাকসেলারেট ব্রডব্যান্ড টু হাউজহোল্ড’ শীর্ষক একটি ঘোষণা দেয়।

এই সম্মেলনে ডব্লিউটিটিএক্স ব্যবসাকে পরবর্তী স্তরে নিয়ে যেতে গ্রামীণফোনের সাথে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করে হুয়াওয়ে। গ্রামীণফোনের সিইও মাইকেল প্যাট্রিক ফোলি বলেন, “বাংলাদেশে হোম ব্রডব্যান্ডের জন্য একটি পরিপূরক প্রযুক্তি হবে ডব্লিউটিটিএক্স। বাংলাদেশের নেতৃস্থানীয় অপারেটর হিসেবে এদেশে মোবাইল ব্রডব্যান্ডের মানোন্নয়নে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এবং আমাদের সম্মানিত গ্রাহকদের মানসম্পন্ন সেবা নিশ্চিত করতে ক্রমাগত বিনিয়োগ করে যাচ্ছি।

হুয়াওয়ের ওয়্যারলেস প্রোডাক্ট লাইনের চিফ স্ট্র্যাটেজি অফিসার টাইড ঝু বলেন, একটি উন্নততর, সংযুক্ত ও বুদ্ধিবৃত্তিক এশিয়া-প্যাসিফিক গড়তে হুয়াওয়ে সব সময়ই গ্রাহকবান্ধব থাকবে। গ্রাহকদের উন্নত অভিজ্ঞতা দিতে আমরা নিত্যনতুন এবং স্বল্প খরচের সেরা উদ্ভাবনসমূহ অব্যাহত রাখবো।

২০১৭ সালের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী ডব্লিউটিটিএক্স প্রযুক্তি ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৫০ মিলিয়নে দাঁড়িয়েছে। যেসব বাড়িতে ব্রডব্যান্ড সুবিধা নেই সেখানে ৭৫ শতাংশ কম খরচে ও ৯০ শতাংশ দ্রুত গতিতে ডব্লিউটিটিএক্স ওয়্যারলেস ব্রডব্যান্ড প্রযুক্তি সরবরাহ করা সম্ভব হচ্ছে। ফলে অপারেটররা তিন বছরেরও কম সময়ের মধ্যেই তাদের বিনিয়োগ তুলে নিতে পারছে।

-প্রেস বিজ্ঞপ্তি অবলম্বনে/জিডিটি
Please Share This Post.