এফআর টাওয়ারে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ আমরা টেকনোলোজিস

আজ দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটের দিকে ঢাকার বনানীর ১৭ নম্বর রোডের এফ আর টাওয়ারে ৯ম তলা থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের কন্ট্রোল রুমের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এনায়েত হোসেন।

আগুনের ভয়াবহ থেকে জীবন বাঁচাতে কেউ কেউ ভবন থেকে লাফিয়ে পড়েছেন, কেউ জানালা দিয়ে নামার চেষ্টা করছে, কেউ বা  রশি বেয়ে নামতে গিয়ে পড়ে গেছে । আর বাকীরা ভিতরে আটকা পরে কাঁন্নায় ভেঙ্গে পড়ছেন। ভবনটির ভেতরে এখনো অনেক মানুষ আটকে আছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ফায়ার সার্ভিসের ১৭টি ইউনিট কাজ করছে বলে জানা গেছে। উদ্ধার কাজে ফায়ার সার্ভিসের সঙ্গে যোগ দিয়েছে নৌ ও বিমান বাহিনী। এখন উদ্ধার কাজে হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হচ্ছে। তবে আগুনের সূত্রপাত কোথা থেকে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তারা আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে। বাইরে থেকে পানি ও বালি ছুড়ে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করা হচ্ছে।

এ ঘটনায় ঐ ভবনে বনানীর এফআর টাওয়ারের অগ্নিকাণ্ডে আমরা টেকনোলজিস এর কম্পিউটার সার্ভার সহ নানান সরঞ্জাম আগুনে পুড়ে গেছে বলে জানা যাচ্ছে। অফিসের ৭-৮ জন অগুনের অতিরিক্ত কলো ধোঁয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েছেন তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে আমাদের জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানের দুজন কর্মকর্তা। তারা বলেন, আমরা ভালো আছি। তবে ভবনের ভিতরে এখনো অনেকে আটকা পড়ে আছেন।

এদিকে পাশের ভবনে থাকা দুরন্ত টিভির সম্প্রচার বন্ধ রয়েছে এবং দুপুরের পর থেকে বনানী এলাকার বিভিন্ন ব্যাংক ও অফিসের কার্যক্রম বন্ধ ছিলো।

এখন পর্যন্ত ৭ জন নিহত হয়েছে এবং ৪০ জনের বেশী আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। আর আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, ইউনাইটেড হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এফ আর টাওয়ারে যেসব অফিস আছে সেগুলো- কিন্ডারড ক্যাফে অ্যান্ড বেকারি, আইএফআইসি ব্যাংক, ভিভিড হলিডে লিমিটেড, স্পেক্ট্রা, এম্পায়ার গ্রুপ, আমরা টেকনোলোজিস, ইএউআর সার্ভিস, মিকা সিকিউরিটিজ, আমরা আউটসোর্সিং, দ্য অয়েভ, হাব বনানী রেস্টুরেন্ট, ম্যাগনিটো ডিজিটাল, কাসেম ফুড প্রোডাক্টস, কাসেম ড্রাইসেল ইত্যাদি।

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/২৮এম/১৯এ

Please Share This Post.