উন্নত দেশের জন্য চাই নতুন উদ্যোক্তা

দেশকে উন্নত দেশ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য চাই নতুন উদ্যোক্তা। এ জন্য তরুণদের নতুন নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। গতকাল ৭ ডিসেম্বর শুক্রবার রাজধানীর গ্রীণ রোডে অবস্থিত এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে দুই দিনের উদ্যোক্তা সামিটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা এ কথা বলেন। তরুণ ও নবীন উদ্যোক্তাদের সঙ্গে প্রাজ্ঞ উদ্যোক্তাদের জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময়, উদ্যোক্তার পথ চলার চ্যালেঞ্জ উত্তরণ এবং দেশের উদ্যোক্তা বান্ধব পরিবেশ গড়ে তোলার উদ্দেশ্যে ‘উদ্যোগে উগ্রগামী, উচ্ছ্বাসে একত্রে’ স্লোগানে দুই দিনের উদ্যোক্তা সামিট শুরু হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী। এ সময় তিনি বলেন, উন্নত বাংলাদেশের জন্য তাই নতুন উদ্যোক্ত। তাহলেই দেশ উন্নত বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে পারবে। উদ্যোক্তারা নতুন কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করলে সাফল্য-ব্যর্থতা আসতেই পারে। এ জন্য নতুন পথে পথ চলা বন্ধ করে দিলে হবে না। আমাদের দেশে আইসিটি সেক্টরে প্রচুর কাজের সুযোগ রয়েছ। এ সেক্টরে তরুণদের বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে। একই সঙ্গে আমাদের জ্ঞান ভিত্তিক সমাজ গড়ে তুলতে হবে। দেশে প্রতিবছর ২২ লাখ ছেলে-মেয়ে কর্মবাজারে প্রবেশ করছে। সবার চাকরির পিছনে না দৌড়ে উদ্যোক্তা হতে হবে। তাহলে দেশ এগিয়ে যাবে বলে জানান জামিলুর রেজা চৌধুরী।IPDC--Uddodta-Summit-2018

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশকে আরও অনেক দুর এগিয়ে নিতে হবে। উন্নত দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে গড়ে তোলার জন্যে দেশের জনগণকে কাজে লাগাতে হবে। প্রযুক্তির কারণে বিশ্ব আজ ছোট হয়ে গেছে। গ্রামের একজন উদ্যোক্তা প্রযুক্তি ব্যবহার করে জানতে পারছে শহরের বাজারে পণ্যের দাম কতো। আমাদের তরুণ উদ্যোক্তাদের আরও ভালো ভাবে প্রযুক্তি ব্যবহার শিখতে হবে। এবং প্রযুক্তি ব্যবহার করে উদ্যোগকে বিশ্বময় ছড়িয়ে দিতে হবে। দেশ বদলে মূল হাতিয়ার হলো প্রযুক্তি বলে জানান তিনি।IPDC--Uddodta-Summit-2018

উদ্যোক্তা সামিটের টাইটেল স্পন্সর আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোমিনুল ইসলাম নবীন তার বক্তব্যে তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্য তাদের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধার কথা বলে জানান, এটি শিক্ষিত ছেলে চাকরি না খুঁজে নিজে উদ্যোক্তা হওয়ার চেষ্টা করা উচিত। দেশকে এগিয়ে নিতে হলে নতুন নতুন উদ্যোক্তা তৈরি করতে হবে। উদ্যোক্তা তৈরি করার জন্য সরকারি-বেসরকারি ভাবে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। আমাদের দেশে তরুণদের অনেক ভালো আইডিয়া আছে। সে আইডিয়াগুলো কাজে লাগাতে হবে। আইপিডিসি ২০২০ সালের মধ্যে দুই হাজার উদ্যোক্তা তৈরি করবে বলে জানান তিনি।

একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রকল্প পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে নতুন উদ্যোক্তা তৈরি করার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। বাংলাদেশ ২০২১ সালের মধ্যে উন্নয়নশীল দেশে হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চায়। সে জন্য সবার সহযোগিতা করতে হবে।

দুই দিনের উদ্যোক্তা সামিটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র কল্যাণ পরিচালক এয়ার কমোডর (অব.) ইশফাক ইলাহী চৌধুরী । অনুষ্ঠানের সঞ্চলনা করেন বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের (বিডিওএসএন) সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান।

এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয় ও বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের উদ্যোক্তা কার্যক্রম ‘চাকরি খুঁজবো না, চাকরি দেব’, এর যৌথভাবে এ আয়োজন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ সামিটে মোট ১১ সেশন, ৪ কর্মশালায় সাজানো হয়েছে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্লাজায় ৩০ জন নবীন ও তরুণ উদ্যোক্তা তাদের পণ্য সেবা প্রদর্শন চলছে।

এ আয়োজনের টাইটেল স্পন্সর আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড। পৃষ্ঠপোষক হিসেবে রয়েছে ক্রিয়েটিভ আইটি, ইগলু আইসক্রিম, ওয়ালেটমিক্স, বারকোড রেস্তোরা গ্রুপ ও আম্বার আইটি। সহযোগিতা করেছে প্রথম আলো ও ডেইলি স্টার। মিডিয়া পার্টনার হিসেবে আছে নাগরিক টিভি, ঢাকা এফএম, টেকশহর ডটকম ও সি-নিউজ এবং আলোকচিত্র সহযোগী ল’ফতো। এ ছাড়া রয়েছে বাক্য, আইএসপিএবি, বিওয়াইএলসি, জিরো ডিগ্রি কমিউনিকেশন, ডন সামদানী ফ্যাসিলিটেশন অ্যান্ড কনসালটেন্সি, ভার্চুয়ানিক ও ব্র্যান্ড গিয়ার।

বিস্তারিত জানতে

-সিনিউজভয়েস

 

Please Share This Post.