ই-কমার্স পেমেন্টস ও লজিস্টিকস বিষয়ক সেমিনার

১৩ জুলাই, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার ও ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) ও মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স ও ইন্ডাস্ট্রি (এমসিসিআই) এর সঙ্গে যৌথভাবে মাস্টারকার্ড, এসএসএল ওয়্যারলেস এবং টেকনোহ্যাভেন এর পৃষ্ঠপোষকতায় ই-কমার্স পেমেন্টস ও লজিস্টিকসের উপর সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। ই-কমার্সের প্রসারে মূল প্রতিবন্ধকতাগুলো, ই-কমার্স ইকোসিস্টেমে বিনিয়োগের উপায় এবং প্রাসঙ্গিক বিষয়ে প্রণীত আইনের উপরে এই সেমিনারে গুরুত্ব দেয়া হয়।

বাংলাদেশে ৬৬ মিলিয়ন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের মধ্যে ২২% ব্যবহারকারী অনলাইন শপিং করছে। প্রতিমাসে ডাবল-ডিজিট বৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশে এই ই-কমার্স মার্কেটে একটি বিশাল অগ্রগতির সম্ভাবনা রয়েছে। আমাদের দেশে প্রয়োজনীয় ই-পেমেন্ট ও লজিস্টিক ফ্রেমওয়ার্ক না থাকার কারনে এই বিকাশমান বাজারের উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ হচ্ছে।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি।

সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস এম মনিরুজ্জামান। বক্তব্য রাখেন বেসিসের সভাপতি মোস্তাফা জব্বার এবং এমসিসিআই এর সহ-সভাপতি গোলাম মাইনুদ্দিন। টেকনোহ্যাভেন কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং বেসিসের সাবেক সভাপতি হাবিবুল্লাহ এন করিম অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন। বেসিস পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল এবং এমসিসিআই এর কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য রুবাইয়াত জামিল ২টি সেশনে এই সেমিনার সঞ্চালনা করেন। ই-পেমেন্টস ও লজিস্টিকসে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন ডাচ্ বাংলা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী আবুল কাসেম এমডি শিরিন এবং বেসিসের সাবেক সভাপতি ও আজকেরডিল ডটকমের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহিম মাশরুর। এছাড়া বেসিস কার্যনির্বাহী পরিষদের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিআরটিএ’র পরিচালক (অপারেশনস) শিতাংশু শেখর বিশ্বাস, ডাব্লিউটিও সেল এর মহাপরিচালক মুনির চৌধুরী, বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেম ডিপার্টমেন্টের জেনারেল ম্যানেজার লীলা রশীদ, মাস্টারকার্ড বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল, বেসিসের ডিজিটাল কমার্স স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ও বাগডুম ডটকমের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও অংশীদার সৈয়দা কামরুন আহমেদ, এসএসএল ওয়্যারলেসের সিওও আশিস চক্রবর্তী, বিদ্যুৎ লিমিটেডের সিওও মাসুদ মল্লিক, ই-ক্যাবের সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াহেদ তমাল দুটি সেশনে আলোচক হিসেবে অংশগ্রহণ করেন।

বেসিসের সভাপতি মোস্তাফা জব্বার অনুষ্ঠানে সম্পর্কে বলেন, ‘বাংলাদেশ ই-কমার্সের দিকে সম্পূর্ণভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। আমরা বিশ্বাস করি, বেসিস মাস্টারকার্ডের মতো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কাজ করে এই অগ্রগতিতে ব্যাপক সহযোগিতা পাবে। আমাদের ইন্ডাস্ট্রিকে সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে রাখার জন্য এই ধরনের সেমিনার আরো গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দেখা দেবে।’

এমসিসিআই এর সহ-সভাপতি গোলাম মাইনুদ্দিন বলেন, ‘সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশের লক্ষ্য অর্জন করার উদ্দেশ্যে দি মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স সব ধরনের সহযোগিতা করবে। ভবিষ্যতে এই লক্ষ্য অর্জনের জন্য ই-পেমেন্টস ও লজিস্টিকস একটি অত্যন্ত প্রয়োজনীয় এবং অবিচ্ছেদ্য অংশ। মাস্টারকার্ড ও বেসিসের সাথে এমসিসিআই এই ধরনের সেমিনার আয়োজন করতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত।’

মাস্টারকার্ড বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল বলেন, ‘মাস্টারকার্ড সবসময়ই অনলাইন পেমেন্টের ব্যবহার প্রচার ও উৎসাহিত করেছে। এজন্য আমরা সহজে ব্যবহারযোগ্য গ্রাহকপ্রিয় পেমেন্টস লজিস্টিকস এবং প্রোডাক্টের বিশাল পোর্টফোলিও ব্যবহার করেছি যার মাধ্যমে আমাদের গ্রাহকদের যা প্রয়োজন সেটি ব্যবহার করতে পারেন। আমরা বেসিস ও এমসিসিআই এর সঙ্গে ই-কমার্সের সম্ভাবনা ও অগ্রগতির বিষয়ে সেমিনার আয়োজন করতে পেরে অত্যন্ত গর্বিত।’

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক