ইডটকো’র নতুন কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর রাহুল চৌধুরী

ইডটকো বাংলাদেশের নতুন কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন রাহুল চৌধুরী। তিনি সম্প্রতি বর্তমান কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর ড্যারিল সিনাপ্পার স্থলাভিষিক্ত হলেন। অন্যদিকে ইডটকো গ্রুপের ডিরেক্টর অব সেলস হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন সিনাপ্পা।

কর্ম-কৌশলকে আরো জোরালো করতে এবং এই অঞ্চলে উদ্ভাবনী টেলিযোগাযোগ অবকাঠামো স্থাপনের প্রচেষ্ঠাকে আরো তড়ান্বিত করতে কোম্পানি’র ব্যবস্থাপনা পর্যায়ে রদবদলের অংশ হিসেবে ২৪ এপ্রিল, ২০১৭ এ ঘোষণা দেয় ইডটকো গ্রুপ।

রাহুল চৌধুরী রিলায়েন্স কমিউনিক্যাশন্স লিমিটেড’র (মুম্বাই) চিফ অপারেটিং অফিসার (সিওও) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ভারতসহ বিভিন্ন দেশের টেলিযোগাযোগ ও অফিস অটোমেশন ভার্টিক্যালস’এ রয়েছে তার ২৭ বছরের অভিজ্ঞতা। এসব অঞ্চলে বিভিন্ন টেলিযোগাযোগ সেবাদাতা কোম্পানিতে গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

অন্যদিকে ইডটকো গ্রুপ’র ডিরেক্টর অব সেলস হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করতে যাওয়া সিনাপ্পার টেলিযোগাযোগ ও আইটি খাতে রয়েছে ২২ বছরের অভিজ্ঞতা।

photo

আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ বিশেষজ্ঞ সিনাপ্পা ২০১৪ সালের অক্টোবরে ইডটকো’তে যোগদানের আগে আজিয়াটা গ্রুপে কর্মরত ছিলেন। নতুন দায়িত্ব গ্রহণের পর তিনি সরাসরি গ্রুপ সিইও’র অধীনে কাজ করবেন। গ্রুপ সেলস এ্যান্ড মার্কেটিং, কৌশলগত ও গ্রাহক সম্পর্ক-বিষয়ক দিকনিদের্শনা প্রদান, মার্কেট শেয়ারে রাজস্ব ও ব্র্যান্ড ইক্যুইটি বৃদ্ধিতে নেতৃত্ব দেবেন সিনাপ্পা।

রাহুল চৌধুরী বলেন, “ইডটকো গ্রুপ এ অঞ্চলের অন্যতম টেলিযোগাযোগ অবকাঠামো প্রতিষ্ঠান। ইডটকো বাংলাদেশ-এর কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর হিসেবে যোগদানের সুযোগ পেয়ে আমি গর্বিত এবং এ অঞ্চলে কোম্পানিটির বিস্তৃতি ও সাফল্য ধরে রাখার প্রত্যাশী।”

ইডটকো গ্রুপের সিইও সুরেশ সিধু বলেন, “ক্রমবর্ধমান চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা এবং অন্যান্য সম্ভাবনাময় বাজারে ব্যবসা বিস্তারের লক্ষ্যে আমাদের সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা নিশ্চিত করতে ইডটকো-এ আমরা প্রতিনিয়ত ব্যবস্থাপনা পর্যায়ে রদবদল করে থাকি। এ অঞ্চলের সেরা টেলিযোগাযোগ অবকাঠামো কোম্পানিতে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার অঙ্গীকারকে আরো জোরালো করতেই আজকের এই ঘোষণা। পাশাপাশি ইডটকো গ্রুপে গতিশীলতা আনাও আমাদের লক্ষ্য। ইডটকো বাংলাদেশ-এর কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর হিসেবে ইডটকো গ্রুপে রাহুলকে স্বাগত জানাতে পেরে আমি আনন্দিত। টেলিযোগাযোগ শিল্পে রাহুলের সুনাম ও সমৃদ্ধ অভিজ্ঞতা রয়েছে এবং আমার বিশ্বাস, তিনি ইডটকো বাংলাদেশকে আরো সাফল্যের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন।”

এশিয়ার প্রথম আঞ্চলিক অবকাঠামো সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ইডটকো। এর কার্যক্রমের আওতাভূক্ত দেশগুলো হচ্ছে- মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, বাংলাদেশ, ক্যাম্বোডিয়া, শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান। এসব দেশে ২৫ হাজার-এরও বেশি টাওয়ার পরিচালনা করছে কোম্পানিটি। টেলিযোগাযোগ অবকাঠামো ব্যবহারের কার্যকারিতা বাড়াতে এবং এই অঞ্চলে টেলিযোগাযোগের বিস্তারে প্রতিনিয়ত নিত্য-নতুন উদ্ভাবন আনছে ইডটকো।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

 

Please Share This Post.