ইডটকোর গ্রুপ সিইও ঢাকা আসছেন আজ

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় মোবাইল ফোন টাওয়ার কোম্পানি ইডটকো’র গ্রুপ সিইও সুরেশ সিধু আজ মঙ্গলবার (২৮ জুলাই, ২০১৫) দুই দিনের সফরে ঢাকা আসছেন।

সফরকালে তিনি সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের দায়িত্বশীল শীর্ষ কর্মকর্তাদের সাথে বাংলাদেশে মোবাইল ফোন টাওয়ার ব্যবস্থাপনা ব্যবসার সম্ভাবনা ও সুযোগ সর্ম্পকে আলোচনা করবেন। এছাড়াও বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পদস্থ কর্মকর্তা, ব্যবসায়িক অংশীদার ও বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যানের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন।

২০১৪ সালের আগস্ট থেকে ইডটকো গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন সুরেশ।

এর আগে তিনি ২০১২ সাল পর্যন্ত সেলকম আজিয়াটা বারহাদের চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড অপারেশনস অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সুরেশ সেলকম আজিয়াটা বারহাদের নেটওয়ার্ক ও আইটি থেকে শুরু করে নীতি নির্ধারণ ও রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স পর্যন্ত প্রযুক্তিভিত্তিক কাজগুলোতে দক্ষতার প্রমাণ রেখেছেন।

ইডটকো বাংলাদেশ লিমিটেড মালয়েশিয়া-ভিত্তিক আজিয়াটা গ্রুপের অংশীদারি প্রতিষ্ঠান যারা মূলত বিশ্বের ৮টি দেশে মোবাইল ফোন ও নেটওয়ার্ক সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম পরিচালনা করছে। প্রতিষ্ঠানটি ২০১৩ সালের ১ জুন থেকে বাংলাদেশে কার্যক্রম শুরু করে এবং বর্তমানে এ খাতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে।

বাংলাদেশে ইডটকো রবির সাথে অংশীদারির ভিত্তিতে কাজ করছে। রবির বর্তমান ৬ হাজার ৭০০ বিটিএসের মধ্যে প্রায় ১ হাজার ৫০০ টি’রও বেশি টাওয়ার পরিচালনার পাশাপাশি অনান্য পরোক্ষ অবকাাঠামো সেবাও দিচ্ছে ইডটকো।

কার্যক্রম শুরুর দুই বছর পর ইডটকো বাংলাদেশ এখন তাদের সাইট ডেলিভারি ও আপটাইম সার্ভিস আরো উন্নত করছে। এছাড়া স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে উচ্চ মান বজায় রাখার জন্য ইডটকো ইতোমধ্যে অবকাঠামোগত সমন্বয় ও আর্ন্তজাতিক মান নিশ্চিত করার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় অবকাঠমোগত নিরীক্ষা পদ্ধতি চালু করেছে।

ইডটকো সম্পর্কে:
ইডটকো গ্রুপ একটি সমন্বিত টেলিযোগাযোগ অবকাঠমো সেবাদানকারী কোম্পানি যা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় টাওয়ার, এনার্জি, ট্রান্সমিশন এবং পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণসহ সব ধরণের অবকাঠামো সেবা প্রদান করে থাকে।
বর্তমানে ইডটকো গ্রুপের বাংলাদেশ, মালয়েশিয়া, শ্রীলংকা, পাকিস্তান ও কম্বোডিয়ায় বিস্তৃত নেটওয়ার্ক রয়েছে। এটি প্রতিনিয়ত প্রতিযোগিতামূলক বাজারে টিকে থাকা ও ব্যবসায়িক প্রসারে সাশ্রয়ী টেলিযোগাযোগ অবকাঠামো নিশ্চিত করতে অঙ্গীকারবদ্ধ।

Please Share This Post.