ইউনিসেফ এর সাথে শিশুদের জন্য নিরাপদ ইন্টারনেট নিয়ে কাজ করবে তথ্য প্রযুক্তি বিভাগ


বাংলাদেশের ছাত্র/ছাত্রী ও শিশুদের জন্য নিরাপদ ইন্টারনেট ব্যবহারের জন্য সচেতনতা সৃষ্টিতে যৌথভাবে কাজ করবে ইউনিসেফ বাংলাদেশ ও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। দু’পক্ষের মধ্যে এতদসংক্রান্ত বিষয়ে সহযোগিতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সম্প্রতি একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের  প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি  উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

ইন্টারনেট ও অনলাইন যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিনিয়ত শিশু ও তরুণ ছাত্র/ছাত্রীদের প্রবেশ প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশেষ করে বাংলাদেশে ১৫-১৮ বয়সের কিশোর/কিশোরীদের মধ্যে ইন্টারনেট ব্যবহার প্রতি বছরে ৩.৩% হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে অনলাইনে প্রদর্শিত বিভিন্ন আপত্তিকর ও যৌন বিষয় তাদের গোচরীভূত হওয়ায় ঝুঁকি বাড়ছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর আগামী দিনগুলোতে আমাদের শিশু ও কিশোর প্রজন্মকে মানসিক ও শারিরীকভাবে ইন্টারনেট এর বিভিন্ন ক্ষতিকারক প্রভাব হতে সুরক্ষাকল্পে সচেতনতা সৃষ্টি, গাইডলাইন তৈরী, আইসিটি সংক্রান্ত পলিসি ড্রাফটিং এবং ইন্টারনেট ব্রাউজিং নির্দেশিকা প্রণয়ন ও প্রতিপালনে সহায়তা দিবে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের পক্ষে মোঃ হারুনুর রশিদ, অতিরিক্ত সচিব এবং ইউনিসেফ বাংলাদেশ এর পক্ষে  এডওয়ার্ড বিগবেদার এ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। উক্ত সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠানে সরকারের পক্ষে মূল বাস্তবায়নকারী সংস্থা হিসেবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক  বনমালী ভৌমিক মহোদয় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

-সিনিউজভয়েস ডেক্স